You are here: Homeরাজ্যআন্দামান-অন্যরাজ্যItems filtered by date: Monday, 12 February 2018

ডেস্ক , ১২ ফেব্রুয়ারি :  গত ম্যাচে চেন্নাই সিটি এফসি –র বিরুদ্ধে ড্র করার পরেও মোহনবাগান  কোচের  সামান্য আশা ছিল বাকী  ৫ ম্যাচ জিতলে  হয়ত চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে থাকা যাবে । কিন্তু আজ মোহনবাগান কোচের  আশায় জল ঢেলে দিল  গোকুলাম  এফসির ছেলেরা। ঘরের মাঠে কেরালার এই  দলের কাছে ২–১ গোলে হেরে চ্যাম্পিয়নের স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল মোহনবাগানের।  

 এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে চেষ্টা শুরু করেছিল মোহনবাগান। ডিপান্ডা ডিকা ও আক্রমকে সামনে রেখেই ছক সাজিয়েছিলেন কোচ শংকরলাল চক্রবর্তী কিন্তু গোলমুখ খুঁজে পেতে চেষ্টা করেও সফল হয়নি মোহনবাগান। ৩৮ মিনিটে নিখিল কদমের ক্রস পৌঁছে যায় আক্রম মাথা ছোঁয়ালেও গোকুলামের গোলরক্ষক সেটা আটকে দেয়। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য ভাবে। দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন সাধন করেন তিনি। গত ম্যাচে পেনাল্টি মিস করেছিলেন, আর এই ম্যাচের ৬৩ মিনিটে এক সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট করেন আক্রম মোগারবি। এরপরই শংকর তাঁকে তুলে নিয়ে বিমল ঘারটি মাগারকে নামান। ৭৬ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় গোকুলাম এফসি। গোল করেন মাহামুদ আল আজমি। এক গোলে পিছিয়ে পড়ে ঝাঁঝ বাড়ায় মোহনবাগান। বিমলের হেড থেকে আসা বল জালে জড়িয়ে দেন ডিপান্ডা ডিকা। ৭৮ মিনিটে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ১-১।
এদিকে ম্যাচ ড্র করেও মাঠ ছাড়া হল না মোহনবাগানের ৯০ মিনিটে ফের গোল করে যায় গোকুলাম। এবার গোলদাতা কিসেকা। দুরন্ত ভলিতে সকলকে চমকে বল জালে জড়িয়ে দেন তিনি। এদিকে এরপর ম্যাচে ৭ মিনিটে অতিরিক্ত সময় দেওয়া হলেও কোনওভাবেই গোল শোধ করতে পারেনি মোহনবাগান। ফলে এই ম্যাচ থেকে কোনও পয়েন্ট সংগ্রহ করা হল না। লিগ টেবলে ২১ পয়েন্ট নিয়ে এই ম্যাচের পরও চার নম্বরেই আছে মোহনবাগান।

Published in Football

ডেস্ক, ১২ই ফেব্রুয়ারীঃ আবার ক্রিকেট মাঠে আর এক মর্মান্তিক ঘটনা খবরের শিরোয়ামে । ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়া জেলার নবদ্বীপে। ক্রিকেট মাঠে আবার বল লেগে মৃত্যু হলএক দৃষ্টিহীণ স্কুল ছাত্রের।  নবদ্বীপ ব্লাইন্ড স্কুলের ছাত্র মিরাজুল মল্লিকের শনিবার স্কুলের মাঠে ক্রিকেট অনুশীলন করছিল। সহপাঠীর একটি শট মিরাজুলের মাথার ডানদিকে লাগে। এরপরই মাঠে লুটিয়ে পড়ে বেঙ্গল ব্লাইন্ড দলের ক্রিকেটার মিরাজুল। তাকে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। সেখান থেকে পাঠানো হয় কল্যানী জেএনএম হাসপাতালে। সেখানে শনিবার রাতেই মৃত্যু হয় মিরাজুলের। রবিবার ময়নাতদন্তের পর দেহ তুলে দেওয়া হয় পরিবারের কাছে। আসলে ক্রিকেট মাঠে এইভাবে বল লাগলে তা কত মারাত্মক হতে পারে তার উদাহরণ বিশ্ব ক্রিকেটেও রয়েছে। সেখানে উপযুক্ত পরিকাঠামো থাকা সত্বেও বাঁচানো যায়নি রমন লম্বা, ফিল হিউজের মত ক্রিকেটারদেরও। যেখানে তারা সেরা চিকিৎসা পরিষেবা পেয়েছেন।

২০১৪ সালের নভেম্বর মাসে অস্ট্রেলিয়া-র বিরুদ্ধে মাঠে ফিল্ডিং করার সময় রমন লম্বা বল  লেগে  মারা গিয়েছিলেন। কলকাতা ময়দানেও ২০১৫ সালে মাথায় বল লেগে ক্রিকেটার অঙ্কিত কেশরীর মৃত্যু হয়েছিল।বাংলার অনুর্ধ্ব ১৯ দলের হয়ে কোচবিহার ট্রফি, অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ দলের ৩০ জনের সদস্যও ছিলেন তিনিছুঁয়ে গিয়েছিল এইভাবে ক্রিকেটারের মৃত্যুর ঘটনা। মারা গিয়েছিলেন অঙ্কিত কেশরী।

ক্রিকেট মাঠে পর পর দুর্ঘটনায় নিরাপত্তা ব্যাবস্থা সম্পর্কে অবহিত থাকা সত্ত্বেও  কাদের গাফিলতিতে এই দুর্ঘটনা  ঘটল তা খতিয়ে দেখা দরকার  এবং ক্লোজ ইন ফিল্ডারদের হেলমেট পড়ে ফিল্ডিং আবশ্যক হওয়া দরকার।

 

ডেস্ক, ১২ই ফেব্রুয়ারীঃ ডায়রিয়ার  যাদবপুর, পাটুলি ও বৈষ্ণবঘাটার বিস্তীর্ণ এলাকায়  ডায়েরিয়ার প্রকোপ দেখা দেয়। হাজারেরর বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়ে পড়েন ডায়েরিয়ায়। তাঁদের  বাঘাযতীন, টালিগঞ্জের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপরই অভিযোগ ওঠে পুরসভার পানীয় জল থেকেই এই সংক্রমণ হয়েছে।
পুরসভার সরবরাহ করা পানীয় জল কেউ ব্যাবহার করছেন না। যদিও পুরসভার জল পরীক্ষা করে   কোনও জীবাণু পাওয়া যায়নি বলে মেয়র দাবী করেছেন । বিরোধীরা দাবি তুলছেন, শুধু পুরসভার ল্যাবের উপর ভরসা করে বসে থাকলে হবে না, স্বাস্থ্য দফতরের ল্যাবেও পাঠাতে হবে নমুনা।
অভিযোগ,  এলাকাবাসী পুরসভার জলে ভরসা করতে না পেরে এখন জল কিনে খাচ্ছেন। আর সেই সুযোগে চড়াদামে জল বিক্রি হচ্ছে। প্রশাসনের চোখের সামনেই চড়া দামে জল বিক্রি হচ্ছে বলে অভিযোগ। এদিন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় বলেন, এখন পর্যন্ত পুরসভার সরবরাহকৃত পানীয় জলের ৮২টি নমুনা পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। কোনও নমুনাতেই কোনও সংক্রমণ মেলেনি। সংশ্লিষ্ট এলাকার ১০২ নম্বরের ওয়ার্ডের সিপিএম কাউন্সিলর রিঙ্কু নস্কর বলেন, শুধু পরীক্ষায় কোনও সংক্রমণ মেলেনি বলেই এড়িয়ে গেলে হবে না। পরীক্ষায় কিছু না মিললেও, আগের চারদিন যে খারাপ জল এসেছে, সেটা তো অস্বীকার করা যাবে না। আর এই সংক্রমণ যদি জলের কারণে না হয়, তাহলে এত লোকের একসঙ্গে সমস্যা হবে কেন? প্রশ্নও তোলেন সিপিএম কাউন্সিলর।

মেয়র বলেন, পুরসভার তরফে সমস্তরকম প্রতিরোধক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আতঙ্কের কিছু নেই।  প্রতিটি ওয়ার্ডের হেলথ সেন্টারে বিনা পয়সায় ওআরএস দেওয়া হয়েছে। ওষুধপত্রও বিতরণ করা হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, ওআরএস-ও অনেক বেশি পয়সা দিয়ে কিনতে হচ্ছে বলে। তবে সেই অভিযোগও অস্বীকার করেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। এদিন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় যুক্তি দেখান, একই পরিবারের পাঁচজনকে এই জল খাওয়ানো হয়েছে। অথচ সমস্যা হয়েছে শুধু একজনের। যদি জলেই সমস্যা থাকবে, তাহলে বাকিদেরও সংক্রমণ হওটাই স্বাভাবিক। এরপর আমরা আক্রান্তদের বাড়ির কল থেকেও পানীয় জলের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠিয়েছি। কিন্তু সেই নমুনায় কিছুই মেলেনি। এরপরই পানীয় জলের নমুনা স্বাস্থ্য দফতরের ল্যাবে পাঠানোর দাবি ওঠে।

 

 

 

Published in Kolkata

ডেস্ক, ১২ই ফেব্রুয়ারী: ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায় অনুষ্ঠিত ১৮তম এশিয়ান গেমস  ইনভাইটেশান  টুর্নামেন্টে সোনা পেল রায়গঞ্জের মেয়ে সনিয়া বৈশ্য । গত রবিবার ভারতের  হয়ে ৪০০ মিটার দৌড়ে  সনিয়া অংশগ্রহণ করেন। প্রতিযোগিতায় ৫৩.৫১ সেকেন্ডে  সময় নিয়ে প্রথমস্থান অধিকার করে দৌড় শেষ করে।

সনিয়ার মা মমতা বৈশ্য বলেন, “গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে ত্রিবান্দমে সাই ক্যাম্পাসে প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল সনিয়া। ৯ ফেব্রুয়ারি এশিয়ান গেমসে অংশ নেওয়ার জন্য জাকার্তা উড়ে যায় সে। রবিবার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সোনা পেয়েছে। ছোট্ট শহর থেকে এই সাফল্য পাওয়ায় খুব খুশি আমরা।  এখন তার পাখির চোখ অলিম্পিকের দিকে।”

জোলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক সুদীপ বিশ্বাস বললেন, “সোনিয়া আমাদের জেলার গর্ব। আন্তর্জাতিক স্তরে ওর সাফল্য দেশকে গর্বিত করেছে। সোনিয়া নতুন প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে। ও ফিরলে জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে বিশেষ সংবর্ধনার আয়োজন করব।”

Published in Other Sports

ডেস্ক, ১২ই ফেব্রুয়রীঃ বেআইনি পোস্তের খোসা সহ তিন পাচারকারিকে গ্রেফতার করলো মালদার বৈষ্ণব নগর থানার পুলিশ। ধৃতদের সোমবার মালদা জেলা আদালতে তোলা হয়েছে।
জানা যায়, রবিবার রাতে বৈষ্ণব নগর থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পি, টি, এস মোড় এলাকায় হানা দেয়। সেখানে হানা দিয়ে পুলিশ তিনজনকে আটক করে। ধৃতদের হেফাজত থেকে উদ্ধার হয় ১৫১ কেজি বেআইনি পোস্তের খোসা। যার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় চার লক্ষ টাকা। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃতরা হল চরবাবুপুরের বাসিন্দা সাইফুদ্দিন সেখ, রাহুল আমিন এবং ভিমা গ্রামের বাসিন্দা সাকির সেখ। সোমবার তাদের সাতদিনের পুলিশি হেফাজত চেয়ে মালদা জেলা আদালতে পেশ করা হয়।

 

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক, ১২ই ফেব্রুয়েরী ঃ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মৎস্য দপ্তরের উদ্যোগে উদ্ধোধন করা হল চুনো পুটি খাল বিল মেলার। মালদা কলেজ মাঠে সোমবার এই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন করা হয়।
জানা যায়, লুপ্তপ্রায় বিভিন্ন প্রজাতির মাছের প্রচার ও প্রসারের স্বার্থে আয়োজন করা হয়েছে এই মেলা। ত্রদিন ফিতে কেটে এই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন করেন রাজ্য মৎস্য মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা।  তিনি বলেন এই মেলার উদ্দেশ্য মালদা জেলা জুড়ে মাছ চাষের ব্যাপক প্রসার।বর্তমানে রাজ্যের সমস্ত জেলায় প্র্তি হেক্টর জলাশয়ে প্রতি বছ্রে ৬ মেট্রিক টন মাছ উৎপাদন হয় , আগামী দুই বছরে এর লক্ষমাত্রা ১২ মেট্রিক টন ধরা হয়েছে। এ ছাড়াও এই জেলায় মাছ চাষের প্রসারে জেলার কৃতি সমবায় সমিতি গুলিল্কে পুরুস্কৃত করা হবে। এই অনুষ্ঠানে  উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক কৌশিক ভট্রাচার্য, পুলিশ সুুপার অর্ণব ঘোষ সহ অন্যান্যরা।  মৎস্য চাষিরা কিভাবে ছোট এবং বড় মাছের চাষ করবেন তা মেলা জুড়ে তুলে ধরা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন প্রজাতির মাছ প্রদর্শনীর জন্য রাখা হয়।


Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক, ১২ই ফেব্রুয়ারীঃ তালা ভেঙ্গে মনসা মন্দিরে দুঃসাহসিক চুরি। প্রায় এক লক্ষ টাকার গয়না নিয়ে চম্পট দিয়েছে দুস্কৃতিরা। ঘটনাটি ঘটেছে, পুরাতন মালদার পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাচামারি রামচন্দ্রপুর এলাকায়।

জানা যায়,এলাকার বাসিন্দা শিব নাথ হালদারের বাড়িতে একটি মনসা মন্দির আছে। রবিবার গভীর রাতে বেশকিছু দুস্কৃতি তাদের সেই মনসা মন্দিরে চুরি করে।ত্রদিন সকালে স্থানীয়দের নজরে পড়ে মনসা মন্দিরের তালা ভাঙ্গা। বিষয়টি জানাজানি হতেই গোটা এলাকা জুড়ে চাঞ্জল্য ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় মালদা থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। মন্দিরের মালিক শীবনাথ হালদার জানান, ২ ভরি সোনা ও ৪০ ভরি চাঁদির অলংকার  ও প্রণামির বাক্স  নিয়ে প্রায় এক লক্ষ টাকা চুরি গেছে। ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবি তুলেছেন তিনি।





Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক,১২ই ফেব্রুয়ারীঃ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তিন জনের এক ডাকাত দলকে গ্রেফতার করল মালদহের কালিয়াচক থানার পুলিশ। সোমবার ধৃতদের মালদা জেলা আদালতে পেশ করে পুলিশ।
জানা যায় রবিবার রাতে কালিয়াচক থানার পুলিশ  পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পাগলা ব্রীজে হানা দেয়। সেখানে হানা দিয়ে পুলিশ তিন জনের এক ডাকাত দলকে গ্রেফতার করে। পুলিশ জানিয়েছে, তাঁরা সংখ্যায় ৬ থেকে ৮ জন ছিলো। বাকিরা পালিয়ে গেলেও তিন জনকে ধরতে সক্ষম হয় পুলিশ। ধৃতরা কালিয়াচক থানার ঘারিয়ালি চকের বাসিন্দা সালেমান সেখ, আব্দুলকাবির এবং মহেশপুরের বাসিন্দা পিকু সেখ।  তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি  হাঁসুুয়া, একটি রড় এবং একটি ভুজালি। কোন বাস বা গৃহস্থ বাড়িতে ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে ধৃতরা জড় হয়েছিলো বলে পুলিশ তদন্তে উঠে এসেছে। সাত দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন চেয়ে সোমবার ধৃতদের জেলা আদালতে পেশ করা হয়।


Published in Malda-Dinajpur-2

ফটো গ্যালারী

Market Data

সম্পাদকের কথা

ফ্যান ছবিতে দেখা যাবে ১৭ বছরের শাহরুখকে

ফ্যান ছবিতে দেখ...

ডেস্ক: ছবির নাম যখন ফ্যান, আর অভিনয়ে যখন...

ধর্মীয় মৌলবাদীদের হামলায় খুন লেখক অভিজিৎ রায়

ধর্মীয় মৌলবাদীদ...

ঢাকা: একুশের বইমেলা থেকে ফেরার পথে ঢাকা ...

উদাসী হাওয়ায় গা ভাসিয়ে বলতেই পারেন, ""হোলি হ্যায়''!!!

উদাসী হাওয়ায় গা...

শান্তিনিকেতনে বসন্ত উত্সবের সূচনা হয় প্র...

বিবাহ বন্ধনে আবব্ধ হতে চলেছেন খ্যাতনামা অফ-স্পিনার হরভজন সিংহ

বিবাহ বন্ধনে আব...

কার্ত্তিক চন্দ্র পাল : ভারতের খ্যাতনামা ...

আপগ্রেড করুন

« February 2018 »
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
      1 2 3 4
5 6 7 8 9 10 11
12 13 14 15 16 17 18
19 20 21 22 23 24 25
26 27 28        

MC News

Contact Us

Email: This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.

Face Book: /newsbazar24 

Helpline No- 09434219594/9126173604