Share on whatsapp
Share on twitter
Share on facebook
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

Uttar Dinajpur News:জোড়া খুনে ব্যাপক চাঞ্চল্য এলাকায়, কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই গ্রেফতার খুনি

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

Newsbazar24:শনিবার সকালে রায়গঞ্জের নিউ উকিলপাড়া এলাকায় জোড়া খুন রায়গঞ্জে। এই জোড়া খুনে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। পুলিশ সূত্রে জানা যায় মৃত দুই ব্যক্তির নাম বাপি সরকার ওরফে ডিস্কো অপরজনের নাম তপন দে। পুলিশ দেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। কিন্তু সকালেই পুলিশ একটি ফোন পেয়ে রতন সরকার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে জানা যায় সেই আসল খুনি। জানা যায় এই খুনিকেই ধরিয়ে দিলেন তার নিজের স্ত্রী। শনিবার সকাল দশটা নাগাদ হত্যাকারী রতন সরকারের স্ত্রী তার দাদাকে ফোন করে জানান ,যে রতন রক্তমাখা জামা কাপড় নিয়ে বাড়িতে ঢুকেছে। মনে হয় খুন করে বাড়িতে এসেছে। মুহূর্তেই দাদা বাপ্পা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তালা বন্ধ ঘর থেকে উদ্ধার হয় দুটি মৃতদেহ। এরপর রতন সরকারের বাড়িতে গিয়ে তাকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তদন্তে জানা যায়, ঘটনার সূত্রপাত একটি গাড়ির বন্ধক নিয়ে।
বেশ কিছুদিন আগে রতনের কাছে এক লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিল একটি চার চাকার গাড়ি বন্ধক রেখে পি ডব্লিউ ডি অফিসের গ্রুপ ডি কর্মী বাপি সরকার ওরফে ডিস্কো। সেই টাকার সুদ সহ দেড় লক্ষ টাকার দাবি করে ছিলেন রতন। টাকা ফেরত না পাওয়ায় শুক্রবার বাপিকে তুলে নিয়ে আসে তার বাড়ি থেকে রতন ও আরেক সহকারি বন্ধু তপন দে। সারারাত ধরে তপনের বাড়িতেই তাদের বাদানুবাদ চলে। এরপরেই শনিবার সকালে রতন সরকার ক্ষুর চালিয়ে খুন করে বসে বাপি ওরফে ডিস্কোকে। এরপর প্রমাণ লোপাটের উদ্দেশ্যে সে খুন করে বন্ধু তপন দেকে। এরপর সেখান থেকে সে পালিয়ে নিজের বাড়িতে চলে যায়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয় না নিজের স্ত্রী স্বামীর গায়ে রক্তমাখা জামা দেখে তার দাদাকে বিষয়টি জানায় এবং দাদা পুলিশকে জানালে গ্রেফতার হয় রতন সরকার।

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

Latest News

সম্পর্কিত খবর