Share on whatsapp
Share on twitter
Share on facebook
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু যেতেই, পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

news bazar24: খবরের শিরোনামে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়।গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যকরী উপাচার্যকে সরিয়ে দেওয়া হলো পদ থেকে। যেভাবে পদ থেকে সরানো হয়েছিল যাদবপুরের কার্যকরী উপাচার্যকে, ঠিক সেই ভাবেই সরানো হল গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যকরী উপাচার্যকেও।উল্লেখ্য, রজতকিশোর দে কে উপাচার্য পদে বসানো হয়েছিল গত বছর অগাস্ট মাসে। রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোসই তাঁকে এই দায়িত্ব দিয়েছিলেন।কিন্তু ৯ মাস যেতেই আচার্যই তাঁকে সরালেন পদ থেকে।

২০২৩ সালের  জুন মাসে রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস রাজ্যের একাধিক উপাচার্যহীন বিশ্ববিদ্যালয়ে কার্যকরী উপাচার্য নিয়োগ করে ঝড় তুলেছিলন।দু’মাস উপাচার্যহীন থাকার পর অগাস্টে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে রজতকিশোর দে-কে কার্যকরী উপাচার্যের দায়িত্ব দেন সিভি আনন্দ বোস। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কি কারণে ৯ মাসের মাথায় পদ থেকে সরতে হল রজত কিশোরকে? বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অংশের অভিমত, সম্প্রতি গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের অধ্যাপক সংগঠন কনভেনশন হয়েছে।ওয়েবকুপার সভাপতি হিসাবে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু সেখানে উপস্থিত ছিলেন।এই কনভেনশনের পরই নাকি আচমকা জানা গেল পদ থেকে সরানো হয়েছে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে।যা নিয়ে ইতিমধ্যেই তৃণমূল বনাম বিজেপির রাজনৈতিক ইগো বলে অনেকে মনে করছেন।

 

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

সম্পর্কিত খবর