Share on whatsapp
Share on twitter
Share on facebook
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

ভিভিপ্যাট নিয়ে শীর্ষ আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়লো নির্বাচন কমিশন

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

news bazar24: এবার বিরোধীরা  নয়। ভিভিপ্যাট নিয়ে শীর্ষ আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়লো নির্বাচন কমিশন ৷ লোকসভা নির্বাচন থেকে বিধানসভা ভিত্তিক সমস্ত ভিভিপ্যাট স্লিপ গণনা করা সম্ভব কি না, কমিশনের কাছে তা জানতে চাইল দেশের শীর্ষ আদালত৷
উল্লেখ্য , আইনজীবী ও সমাজকর্মী অরুণ কুমার আগরওয়ালের আবেদন করা মামলার শুনানিতে এই নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি বিআর গভই ও সন্দীপ মিশ্রর বেঞ্চ৷
আদালত এ ব্যাপারে দেশের নির্বাচন কমিশনের জবাব তলব করেছে৷ আদালতের নির্দেশ ভাইরাল হতেই ঘটনাটিকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ বলে টু্যইট করেছেন কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ৷ তিনি জানিয়েছে, ‘১০০ শতাংশ ইভিএমের ভোট ভিভিপ্যাটের সঙ্গে মিলিয়ে দেখার দাবি নিয়ে বারবার নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিল ইন্ডিয়া মঞ্চের প্রতিনিধি দল৷ কিন্ত্ত কমিশন দেখা করতে অস্বীকার করেছে৷’
এখন পর্যন্ত প্রতিটি বিধানসভা এলাকায় রান্ডম সিলেকশনের মাধ্যমে পাঁচটি ইভিএম নির্দিষ্ট করে সেগুলির ভিভিপ্যাটের গণনা করা হয়৷ বহুকাল ধরে এমনটাই রীতি৷
এ ব্যাপারে সুপ্রিমকোর্টে আবেদন করে অরুণবাবু জানান, প্রতিটি ভোটার যেন ভিভিপ্যাটে নিজেদের নিজেদের স্লিপ নিজে হাতে জমা দিতে পারে এবং প্রতিটি ভোট গোনার ক্ষেত্রে যেন ভিভিপ্যাটের স্লিপ মিলিয়ে দেখা হয়৷ এর জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে ভিভিপ্যাট সামলানোর জন্য অতিরিক্ত সময় ও অতিরিক্ত আধিকারিক নিয়োগ করারও আবেদন জানান তিনি৷ সেক্ষেত্রে ৫ থেকে ৬ ঘণ্টার মধ্যে ভিভিপ্যাট স্লিপ গণনার কাজ সম্পূর্ণ হবে বলেও আদালতে জানিয়েছেন তিনি৷
ভিভিপ্যাট স্লিপের সঙ্গে ইভিএমে পড়া ভোট মিলিয়ে দেখা নিয়ে বিতর্ক দীর্ঘদিনের৷ ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের আগে একটি বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তত ৫০ শতাংশ ইভিএমের সঙ্গে ভিভিপ্যাট স্লিপ মিলিয়ে দেখার আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় ২১টি বিরোধী রাজনৈতিক দল৷ তার আগে প্রতি বিধানসভা কেন্দ্রে যে কোনও একটি বেছে নেওয়া ইভিএমের ভিভিপ্যাট স্লিপ সেই ইভিএমের সঙ্গে মিলিয়ে দেখা হত৷ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সেই ইভিএমের সংখ্যা বেডে় হয় পাঁচ৷
আবেদনেকারীর তরফে আদালতে এও বলা হয়, সরকার প্রায় ২৪ লক্ষ ভিভিপ্যাট কেনার জন্য যেখানে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করেছে, সেখানে মাত্র ২০ হাজার ভিভিপ্যাটের স্লিপ যাচাই করা হবে কেন৷ এরপরই প্রতিটি ভিভিপ্যাটের স্লিপ গণনা বাধ্যতামূলক করার আবেদন জানানো হয়৷
এর আগে সব ইভিএমে পড়া ভোটের সঙ্গে ভিভিপ্যাট স্লিপ মিলিয়ে দেখার আর্জি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল ‘অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস’৷ গত বছরের জুলাই মাসে সেই মামলার শুনানিতে শীর্ষ আদালত মন্তব্য করে, নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে জনস্বার্থ মামলা অনেক সময়ে নির্বাচন নিয়ে খুব বেশি সন্দেহ তৈরি করে৷

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

Latest News

সম্পর্কিত খবর