ফুটবল

১৩ তম আই লীগের প্রথম ম্যাচে মোহনবাগান ধাক্কা খেল,

১৩ তম আই লীগের প্রথম ম্যাচে মোহনবাগান ধাক্কা খেল,

রীড়া ডেস্কঃ ১৩তম হিরো আই লিগের শুভ উদ্বোধন হল একদিকে আইএসএল চলছে অন্যদিকে  আই লিগ শুরু হল আজ যেন সমানে সমানে লড়াই  দিল্লির এক হোটেলে তারকাখোচিত উদ্বোধন হয়ে গেল এবারের আই লিগের মঞ্চ আলো করে থাকলেন ফুটবলার থেকে কর্মকর্তা আর ভারতীয় সিনিয়র দলের কোচ ইগর স্টিম্যাক তিনিই হাতে করে নিয়ে এলেন আই লিগ ট্রফি। ততক্ষণে মঞ্চ আলো করে হাজির হয়েছেন সব দলের তারকা ফুটবলাররা। গুরজিন্দর, বেইতা, লালরিনডিকা, প্লাজা, ডিকা, মাঞ্জির মতো প্লেয়াররা মঞ্চে এসে জানিয়ে দিয়েছেন তাঁদের লক্ষ্য। কেউ চান ট্রফি জিততে তো কেউ চান গোল করে জেতাতে কারও লক্ষ্য গতবারের গোলের সংখ্যায় আরও কিছু যোগ করা

  এবারের আই লীগের  প্রথম ম্যাচ শেষ হল গোলশূন্যভাবে শনিবার আইজলের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে আইজল এফসি মুখোমুখি হয়েছিল  মোহনবাগান উদ্বোধনী ম্যাচে দুই প্রাক্তন চ্যাম্পিয়ান সমানে সমানে লড়েও কোনও ফলের স্বাদ পেল না কোনও দলই গোলের মুখ খুলতে পারল না,  ফলস্বরুপ  গোলশূন্য ড্র দুই কোচ মোহনবাগানের কিবু ভিকানা আইজল এফসির স্ট্যানলি রোজারিও শুরু থেকেই জোর দিলেন মাঝমাঠে যে কারণে আক্রমণে উঠলেও সামনে থেকে গোল করার কেউ ছিলেন না

মোহনবাগান দল সাজিয়েছিল এক স্ট্রাইকারে। শুধু সুহেল ভিপিকে সামনে রেখেই গোল করার স্বপ্ন দেখেছিলেন কিবু ভিকুনা। যা সফল হলো না। অন্যদিকে স্ট্যানলি রোজারিও এক স্ট্রাইকার নামিয়েছিলেন ছয় মিডফিল্ডারের সামনে। তিনি রেখেছিলেন উইলিয়াম লালনুনফেলাকে

মোহনবাগান যদিও প্রথম থেকেই আক্রমণে ওঠার চেষ্টা করেছিল। সাহিত্যের ফরোয়ার্ড পাস থেকে ম্যাচ শুরুর তিন মিনিটের মধ্যেই সুযোগ চলে এসেছিল জুলিয়ান কলিনাসের সামনে। আইজল গোলকিপার লালরেমরুয়াতাকে বিট করে ফেলেছিলেন জুলিয়ান কিন্তু লক্ষ্যে রাখতে ব্যর্থ তিনি

এরপর আট মিনিটের মাথায় নোংদাম্বা নাওরেম এর থেকে প্রায় নিশ্চিত গোলের বল পেয়ে গিয়েছিলেন সুহের কিন্তু তার শট সরাসরি গিয়ে জমা হয় গোলকিপারের হাতে। ২১ মিনিটে গোলকিপার নিজের জায়গা ছেড়ে বেরিয়ে গেলেও লালরোসঙ্গা দারুনভাবে ফ্রান গঞ্জালভেসের গোলমুখে শটকে পরাস্ত করেন

প্রথম আধঘন্টা দাপটের সঙ্গে খেলে মোহনবাগান। আইজলকে ম্যাচে ফিরতে দেখা যায় আধঘন্টা পর। হাফটাইমের আগে জোড়া সহজ সুযোগ নষ্ট করেন উইলিয়াম লালনুনফেলা

হাফটাইমের পর দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা বেশি আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামে আইজল। কিন্তু কাজে লাগেনি। মোহনবাগানারে  নাওরেম চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন। এরপর মোহনবাগান দুটো পরিবর্তন করে, এসকে শাহীন সালভা  চামোরোকে নিয়ে আসেন কোচ। কিন্তু কেউই কোচের আস্থার মান রাখতে পারেননি

আইজল কোচ স্ট্যানলি রোজারিও একমাত্র পরিবর্তনটি করেন ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে। পুরো ম্যাচে একাধিক হলুদ কার্ড বের করতে হয় রেফারিকে। ফল না হলেও এই ম্যাচে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে, সেটাই ভারতীয় ফুটবলের জন্য সুখবর

এদিন অন্য ম্যাচে গোকুলাম কেরালা এফসি - গোলে হারিয়ে দিল নেরোকা এফসিকে। গোকুলামের হয়ে গোল করলেন হেনরি কিসেকা মার্কাস লেরিস। নেরোকার হয়ে একমাত্র গোলটি করলেন তারিক স্যামসন

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news