মালদা

সেক্রেটারির খামখেয়ালিপনায় বিজেপি পরিচালিত পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝুলালো তৃণমূল।

সেক্রেটারির খামখেয়ালিপনায় বিজেপি পরিচালিত পঞ্চায়েত অফিসে তালা ঝুলালো তৃণমূল।

মালদা, ২ ডিসেম্বরঃ মালদা: গ্রাম পঞ্চায়েত সেক্রেটারি অনুপস্থিতি খামখেয়ালিপনায় সমস্যায় সাধারণ মানুষ।জরুরী কাজে পঞ্চায়েত অফিসে এসে ঘুরে যেতে হচ্ছে তাদের। সেক্রেটারির বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ তুলে সোমবার পঞ্চায়েত অফিসে তালা মেরে বিক্ষোভ দেখাল সাধারণ মানুষ।গ্রামবাসীদের অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেছে পঞ্চায়েতের প্রধানও। সেক্রেটারির অনুপস্থিতিতে পঞ্চায়েতের কাজে অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে কোন স্বীকার করেছে খোদ প্রধান। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার মানিকচক ব্লকের নাজিরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে।

বিজেপি পরিচালিত নাজিরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত সেক্রেটারি পদে রয়েছেন পিন্টু সরকার।এলাকাবাসীর অভিযোগ ,এই পিন্টু বাবু পঞ্চায়েতে আসেননা।সাধারণ  মানুষের সাথে দুর্ব্যবহার করেন তিনি।প্রায় প্রতিনিয়ত পঞ্চায়েতে এসে সেক্রেটারির অনুপস্থিতি ঘুরে যেতে হয় সাধারণ মানুষকে।তাই সোমবার সেক্রেটারিকে না পেয়ে গ্রামবাসীরা তালা ঝুলিয়ে দেয় পঞ্চায়েতের গেটে।প্রায় ঘন্টাখানেক ধরে চলতে থাকে বিক্ষোভ কর্মসূচি।পরে পঞ্চায়েতের তরফে আশ্বাস দেওয়া হলে তালা খুলে দেন বিক্ষোপকারীরা।গ্রামবাসীদের দাবি,সেক্রেটারি পিন্টু সরকারকে বদলি করতে হবে। নইলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন তারা।

স্থানীয়দের এই দাবিতে সঠিক বলে জানিয়েছে পঞ্চায়েতের বিরোধী দলনেতা সহ এলাকার তৃণমূল নেতৃত্ব। এলাকাবাসীর এই অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেছে বিজেপি প্রধান পম্পা সরকার।এপ্রসঙ্গে তিনি জানান,সেক্রেটারি পিন্টু সরকার প্রায়ই পঞ্চায়েতে অনুপস্থিত থাকেন।  খামখেয়ালি মত পঞ্চায়েতে আসেন এবং কারোর কথায় কোন কর্ণপাত করেন না। প্রধান হিসেবে বারংবার তার না আসার কারণ জানার চেষ্টা করলেও তিনি কোন উত্তর দেননি নিজেকে পঞ্চায়েতের বস ভাবেন।তার না আসার কারণে পঞ্চায়েতের নানা কাজে অসুবিধা হচ্ছে।এদিনও সাধারণ মানুষ তার  কাছে কাজের জন্য আসে কিন্তু তাকে না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে  পঞ্চায়েতের তালা মেরে দেয়।এবিষয়ে আমি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছে।মানুষের সুবিধার্থে এই পঞ্চায়েত। অথচ মানুষ তার সুবিধা পাচ্ছ্রন না, কাজকর্মের  

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news