সুদানে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে কাঁদানে গ্যাস নিরাপত্তা বাহিনীর,নিহত ১৪, ও আহত ৩০০। - Newsbazar24
বিশ্ব

সুদানে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে কাঁদানে গ্যাস নিরাপত্তা বাহিনীর,নিহত ১৪, ও আহত ৩০০।

সুদানে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে কাঁদানে গ্যাস নিরাপত্তা বাহিনীর,নিহত ১৪, ও  আহত ৩০০।

newsbazar 24::সুদানে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ  সে দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর।শ্ব। গত মাসে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে সুদানের ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। এর পরই বিক্ষোভ শুরু করে সাধারণ মানুষ। ক্রমেই সে বিক্ষোভ তীব্র আকার ধারণ করছে আফ্রিকার এই দেশটিতে। নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১৪ বিক্ষোভকারী নিহত ও ৩০০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। রবিবার  কাতারের  সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

রবিবার রাজধানী খার্তুমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বাইরে কয়েক ডজন শিক্ষক ‘সামরিক সরকার চাই না, বেসামরিক প্রতিনিধিদের হাতে ক্ষমতার হস্তান্তর চাই’ লেখা ব্যানার নিয়ে সমাবেশ করেন।

মোহাম্মদ আল-আমিন নামের একজন ভূগোলের শিক্ষক বলেন, আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বাইরে সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি। কিন্তু পুলিশ এসে আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ থেকে ব্যানার ছিনিয়ে নেয় ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে।

এ ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি তবে সুদানের শিক্ষাবিদদের একটি সংগঠন জানিয়েছে, বেশ কয়েকজন শিক্ষককে ঘটনা স্থল থেকে আটক করা হয়েছে।

২৫ অক্টোবর সে দেশের শীর্ষ রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করে ক্ষমতা দখল করেন জেনারেল ফাত্তাহ আল-বুরহান। প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদককে গৃহবন্দি ও বেশ কয়েকজন মন্ত্রীকে গ্রেফতারের পাশাপাশি দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন তিনি।

এ ঘটনার পরপরই সামরিক অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে রাস্তায় নামেন সুদানের হাজার হাজার মানুষ। নিন্দার ঝড় ওঠে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও। সুদানে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠায় এরই মধ্যে সরব হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা।

সুদানে তিন দশক ধরে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতায় ছিলেন ওমর আল-বশির। ২০১৯ সালে ওমর আল-বশিরের সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে দেশটির সেনাবাহিনী। এরপর ক্ষমতা ভাগাভাগি করে দেশ পরিচালনা করছিল সামরিক বাহিনী ও বেসামরিক সরকার।

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news