সুজাপুরে প্লাস্টিক কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনার নয়া মোড় ! মেশিনের অংশ পরীক্ষা করতে গিয়ে এদিন আবার বিস্ফোরণ - Newsbazar24
মালদা

সুজাপুরে প্লাস্টিক কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনার নয়া মোড় ! মেশিনের অংশ পরীক্ষা করতে গিয়ে এদিন আবার বিস্ফোরণ

সুজাপুরে প্লাস্টিক কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনার নয়া মোড় ! মেশিনের অংশ পরীক্ষা করতে গিয়ে এদিন আবার বিস্ফোরণ

কনিকা বিশ্বাস,(news bazar24): মালদার কালিয়াচক থানার সুজাপুরে প্লাস্টিক কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনা নয়া মোর মেশিনে ত্রুটির কারণেই যে বিস্ফোরণ সেই কথা আর জোড়ের সাথে বলতে পারছেনা ফরেনসিক টিম সংগৃহীত নমুনা ল্যাবে পরীক্ষার পরই আরও তথ্য স্পষ্ট হবে বলে তারা পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিলেন    উল্লেখ্য, গতকাল ফরেনসিক টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে ঘটনা গম্ভীর বুঝে  আজও ফের দ্বিতীয় দফায় নমুনা সংগ্রহ করতে  ঘটনাস্থলে  ছুটে যান ফরেনসিক প্রতিনিধি দল খালি এই নয়, বিস্ফোরণে ভেঙে যাওয়া ঘটে যার জেরে আতঙ্ক  ছড়িয়ে পড়ে দক্ষিণ মালদার কালিয়াচক সুজাপুর এলাকায়

) বিধায়ক সাবিনা ইয়াসমিন    প্রসঙ্গ ক্রমে মোথাবাড়ি বিধানসভার বিধায়ক ( তৃণমূল কংগ্রেস  ) সাবিনা ইয়াসমিন দাবি করেন , "এই কারখানাগুলি কীভাবে চলে সে তথ্যও জানা দরকার কারখানাগুলি আইন মেনে চলছে কিনা তারও খোঁজ প্রয়োজন যদিও  কারখানাগুলি আইন মেনে চলছিল না বলেই তাঁর অভিযোগ পুলিশ ব্লক প্রশাসন এই কারাখানা গুলি সম্পর্কে কেন কিছুই জানতেন না,সেই বিষয়ে তিনি প্রশ্ন তোলেন তবে বিস্ফোরণের পর  পুলিস আইন অনুসারে কাজ করছেআর  রাজ্য সরকারও সব রকমের তদন্ত করবে আমরাও জানতে চাই কী করে বিস্ফোরণ হয়েছে"

) বিজেপির সাংসদ খগেন মুর্মু  বিস্ফোরণের ঘটনায়  উত্তর মালদার বিজেপির সাংসদ তথা নেতা খগেন মুর্মু অভিযোগ করেন, "৭২ ঘণ্টার পরও পুলিস কোনও মামলা করেনি পুলিসের আচরণ সন্দেহজনক ঘটনার পিছনে তথ্য গোপন করছে পুলিস ঘোড়া পিড়ের টোটো বিস্ফোরণ এর আসল তথ্য গোপন করে রেখেছে পুলিশ মানুষের মনে প্রশ্ন থেকে গেছে টোটো বিস্ফোরণের আসল কারণ কি ছিলো

) চিত্রাক্ষ সরকার টিম ফরেনসিক আধিকারিক চিত্রাক্ষ সরকার জানান, "এখনই স্পষ্ট কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি মেশিনের কারণে বিস্ফোরণ হয়েছে, এমন তথ্য এখনই বলা সম্ভব নয় নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে নিয়ে গিয়ে পরীক্ষা করার পরই বিস্ফোরণের কারণ জানা যাবে ভগ্ন মোটরের অংশ ল্যাবে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

বলা বাহুল্য, জানান,"এই এলাকায় অন্য কারখানাতেও মেশিন পরীক্ষা করা হয়েছে" স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকায় প্রায় ২০-২৫ টি প্লাস্টিক কারখানা রয়েছে তবে এই কারখানা গুলিতে কতটা বৈধ কাগজপত্র আছে বা দক্ষ শ্রমিক, নিরাপত্তার ব্যবস্থা আছে, বা কতজন শিশুশ্রমিক কাজ করে সেই বিষয়ে এড়িয়ে গেছেন এলাকার অনেক মানুষ

NewsDesk - 2

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news