সংসদে পাস হওয়া আইনকে মেনে চলব না,কোনও রাজ্য সরকারের পক্ষে এটা বলা কঠিনঃ কপিল সিবাল - Newsbazar24
সারা ভারত

সংসদে পাস হওয়া আইনকে মেনে চলব না,কোনও রাজ্য সরকারের পক্ষে এটা বলা কঠিনঃ কপিল সিবাল

সংসদে পাস হওয়া আইনকে মেনে চলব না,কোনও রাজ্য সরকারের পক্ষে এটা বলা কঠিনঃ কপিল সিবাল

ডেস্কঃ গতকাল শনিবার কংগ্রেসের বিশিষ্ট নেতা ও আইনজীবী কপিল সিবাল কেরল সাহিত্য উৎসবে যোগ দিতে এসে বলছেন কোনও রাজ্য সরকারের পক্ষে এটা বলা কঠিন যে আমরা সংসদে পাস হওয়া আইনকে মেনে চলব না।  তিনি বলেন,  ইতিমধ্যে বিভিন্ন রাজ্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে দাবী জানিয়েছে  তারা নাগরিকত্ব আইন , এনআরসি  ও এনআরপি  নিয়ে অখুশি। এনআরসি তৈরি হয় এনআরপির উপরে ভিত্তি করে। এবং সেটা কোনও স্থানীয় রেজিস্ট্রার বাস্তবায়িত করবেন।  তিনি আরও বলেন কোন কোন রাজ্য সরকার বলছে আমরা রাজ্য স্তরের আধিকারিকদের কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করতে দেব না। যুক্ত রাষ্ট্রীয় কাঠামোয় এটা সম্ভব নয় বলে তিনি জানান ।

এই বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ বলেন, ‘‘সাংবিধানিক ভাবে কোনও সরকারের পক্ষে এটা বলা কঠিন যে, আমি সংসদে পাস হওয়া আইন মেনে চলব না।'' সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন তথা সিএএ-বিরোধী আন্দোলনে অন্য দলগুলির উচিত কংগ্রেসকে দায়িত্ব নিতে দেওয়া। এই দাবি করে কপিল সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, ‘‘জাতীয় রাজনীতির ক্ষেত্রে, আমি মনে করি আমাদের সকলের উচিত একসঙ্গে দাঁড়ানো, কেননা এটা জাতীয় আইন। আমাদের যা করা উচিত তা হল রাজনৈতিক ভাবে একত্রিত হয়ে এই লড়াইটি লড়া। এবং কংগ্রেসকে দায়িত্ব দেওয়া।'' প্রসঙ্গত দেশের প্রথম রাজ্য হিসাবে ঐ আইঙ্কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রীম কোর্টে ইতিমধ্যে মামলা করেছে কেরল সরকার এবং দ্বিতীয় রাজ্য হিসাবে পাঞ্জাব সরকার সিএএ বাতিলের জন্য প্রস্তাব গ্রহণ  করেছে। সুপ্রিম কোর্টে এই আইনের বিষয়ে ৬০টি পিটিশন জমা পড়েছে। 

এ ছাড়াও রবিবার সকালে কপিল সিবালের  একটি টুইট বার্তা থেকে জানা যায়, নতুন নাগরিকত্ব আইন অসাংবিধানিক' এবং  এর বিরুদ্ধে  আমাদের লড়াই চলবে । কপিল আরও লেখেন, ‘‘প্রতিটি রাজ্যের বিধানসভার সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে এর বিরুদ্ধে প্রস্তাব পেশ করে একে তুলতে আর্জি জানানোর। যদি আইনটিকে সুপ্রিম কোর্ট সাংবিধানিক বলে ঘোষণা করে দেয়, তাহলে এর বিরোধিতা করা সমস্যাজনক।''

আর এক বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা সলমন খুরশিদ সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানান, যদি সুপ্রিম কোর্ট হস্তক্ষেপ না করে তবে এই আইন আইনের বইতে থেকে যাবে। সেক্ষেত্রে তাকে অমান্য করা কঠিন বলে দাবি করেন সলমন।

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news