সারা ভারত

রাফাল চুক্তি নিয়ে সরকারকে ক্লিনচিট দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশান বেঞ্চ।

রাফাল চুক্তি নিয়ে সরকারকে ক্লিনচিট দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশান বেঞ্চ।

ডেস্ক, ১৪ নভেম্বরঃ রাফাল চুক্তি নিয়ে সরকারকে ক্লিনচিট দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট, পুনর্বিবেচনার আর্জি খারিজ করে দিয়ে শীর্ষ আদালত আজ  জানায়, “আমরা মনে করি  কোনও এফআইআর করার প্রয়োজন নেই, অথবা আবারও তদন্তের কোনও প্রয়োজন নেই প্রধানমন্ত্রীকেচৌকিদার চোর হ্যায়”, বলার জন্য ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন রাহুল গান্ধি ,  তারপরেই অবমাননার অভিযোগ থেকে মুক্ত হন তিনি, এদিন শীর্ষ আদালতের রায়ের পরেই তিনি বলেন, রাফাল মামলা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়তদন্তের জন্য অনেক বড় দরজা খুলে দিয়েছে”, ফ্রান্স থেকে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে তারা। তদন্তের দাবি সুপ্রিম কোর্ট খারিজ করে দেওয়ার পরেই, বিজেপির আক্রমণের মুখে, “রাফাল দুর্নীতি নিয়ে সর্বদলীয় সংসদীয় তদন্তের দাবি করেন রাহুল

     বিদায়ী প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি এসকে কৌল এবং বিচারপতি কুরিয়েন জোসেফের বেঞ্চ ১৪ ডিসেম্বরের রায় বহাল রাখেন। এবং বলেন ,  যে পদ্ধতিতে চুক্তি করা হয়েছে তা নিয়ে সন্দেহের কোনও অবকাশ নেই বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে রাফাল চুক্তিতে ৫৯,০০০ কোটি টাকার দু্র্নীতির অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস

      রাহুল গান্ধি ট্যুইটে লেখেন, “রাফাল কেলেঙ্কারিতে তদন্তের বড় দরজা খুলে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জোসেফ। পুরোপুরিভাবে এখন অবশ্যই প্রয়োজন তদন্তের। এই দুর্নীতির প্রমাণে অবশ্যই একটি যৌথ সংসদীয় কমিটি গঠন করতে হবে বিচারপতি জোসেফের পর্যবেক্ষণ উল্লেখ করে ট্যুইট করেন তিনি। 

প্রধান বিচারপতি এবং বিচারপতি এসকে কৌল বলেন, রাফায়েল চুক্তিতে সিবিআইকে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই, যাশুধুমাত্র মামলাকারীদের সন্দেহের জন্য, রাফায়েল চুক্তির মূল্য নির্ধারণ করা আদালতের কাজ নয়

   আলাদা একটি রায়ে বিচারপতি জোসেফ, প্রধানবিচারপতি এবং বিচারপতি কৌলের সঙ্গে একমত হয়ে বলেন, “মামলাকারীরা এফআইআর দায়ের করার জন্য সিবিআইয়ের কাছে যেতে পারেন, যা দুর্নীতি দমন আইনে সরকারের থেকে পেয়েছে সিবিআই

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news