যুদ্ধের ভয়ঙ্কর ধ্বংসলীলা নয় বিজ্ঞান নিয়োজিত হোক কেবলমাত্র মানবকল্যাণে এই বার্তা নিয়ে প্রকাশিত হল অনিল সরকারের বই "কৃষি পরিবেশ ও বিজ্ঞান ভাবনা"। - Newsbazar24
সাহিত্য

যুদ্ধের ভয়ঙ্কর ধ্বংসলীলা নয় বিজ্ঞান নিয়োজিত হোক কেবলমাত্র মানবকল্যাণে এই বার্তা নিয়ে প্রকাশিত হল অনিল সরকারের বই "কৃষি পরিবেশ ও বিজ্ঞান ভাবনা"।

যুদ্ধের ভয়ঙ্কর ধ্বংসলীলা নয় বিজ্ঞান নিয়োজিত হোক কেবলমাত্র মানবকল্যাণে এই বার্তা নিয়ে প্রকাশিত হল অনিল সরকারের বই "কৃষি পরিবেশ ও বিজ্ঞান ভাবনা"।

newsbazar 24 ::সোমবার পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ মালদা জেলা শাখার জেলা বিজ্ঞান ভবনে অনুষ্ঠিত হলো বই প্রকাশ অনুষ্ঠান। এদিনের অনুষ্ঠানে প্রকাশিত হলো  কৃষি পরিবেশ নিয়ে গবেষণারত  বিজ্ঞান মঞ্চের সক্রিয় সংগঠক ও  আজীবন সদস্য অনিল সরকারের লেখা "কৃষি পরিবেশ ও বিজ্ঞান ভাবনা "বইটি। এদিন ছিল ৯ ই আগস্ট নাগাসাকি দিবস। "যুদ্ধের ভয়ঙ্কর ধ্বংসলীলা নয় বিজ্ঞান নিয়োজিত হোক কেবলমাত্র মানবকল্যাণে" এই বার্তা দিয়ে অনিল সরকারের বইটির উদ্বোধন করলেন নয়ডার বিশিষ্ট বিজ্ঞানী অধ্যাপক অনির্বাণ পাঠক। এই বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক সত্য চৌধুরী, সহকারী মূখ্য স্বাস্থ্য অধিকর্তা  ডাক্তার অমিতাভ মন্ডল, রক্তদান আন্দোলনের অন্যতম নাম অনিল সাহা,   পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চের  মালদা জেলা শাখার  সম্পাদক সুনীল দাস ও সভাপতি কে পি সিং  প্রমূখ ।

পূর্ববঙ্গের ময়মনসিংহ জেলার অন্তর্গত মির্জাপুর থানার সিংজুরী গ্রামে হাজার ১৯৫৩ সালে ১৭  ই মার্চ লেখক জন্মগ্রহণ করেন । ১৯৬৯ সালে তিনি এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন  ।১৯৭৩ সালে প্রি ইউনিভার্সিটি পরীক্ষায় পাশ করার পর ১৯৭৬ সালে মালদা কলেজ থেকে  জীববিদ্যা নিয়ে স্নাতক হন।  ১৯৭৬ সালে নবাব নগর কে কে জেকে বিদ্যাপীঠে শিক্ষকতা শুরু করেন। পাশাপাশি  ১৯৮২ সালে বিএড পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন ।

আদিবাসীদের গ্রামে শিক্ষকতা বেছে নেওয়ার উদ্দেশ্য ছিল আদিবাসীদের মধ্যে কুসংস্কার ও অন্ধকার দূর করে বিজ্ঞানের আলোকে নিয়ে আসা।

গ্রামে শিক্ষকতা করার পাশাপাশি নেশা ছিল গাছগাছালি চেনা কান্ড শিখর ফুল ও ফলের ঔষধি গুন আর ব্যবহার জেনে নেওয়া। মালদা জেলায় দেশি ধানের প্রজাতির খোঁজ করে সংরক্ষণ করার তাগিদ থেকে কটক এ অবস্থিত কেন্দ্রীয় ধান গবেষণা সংস্থা ও বিজ্ঞানীদের সঙ্গে যোগাযোগ‌ পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চের রাজ্যস্তরে গঠিত কৃষি কৃষি পরামর্শদান কমিটির দীর্ঘদিনের সদস্য তিনি।

২০১৩ সালের মার্চ মাস শিক্ষকতা থেকে অবসর গ্রহণ করেন। কৃষি পরিবেশ প্রভৃতি বিষয়ে লেখালেখি বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশ, দেশি ধানের বীজ সংরক্ষণ বিষয়ে গবেষণা পত্র বিভিন্ন আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে ।মালদা জেলায় বামন গোলায় আনারস চাষে লেখকের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে ।দুষ্প্রাপ্য ভেষজ উদ্ভিদ সন্ধান ধান ও চালের গুণগত মান নিয়ে লেখক এখনো গবেষণারত । পাশাপাশি তিনি ছিলেন  বাড়ির মায়েদের মসলার গুনাগুন আর মসলার মধ্যে মিশে থাকা ভেজাল চেনা ভার বড় ভরসা । জেলার ছাত্র ছাত্রীদের হাতে কলমে বিজ্ঞান শেখানোর প্রিয় শিক্ষক তিনি।

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news