রাজ্য

মুসলিম পড়ুয়াদের জন্য স্কুলে পৃথক খাবার ঘর গড়ার রাজ্য সরকারের নির্দেশ ঘিরে বিতর্ক

মুসলিম পড়ুয়াদের জন্য স্কুলে পৃথক খাবার ঘর গড়ার রাজ্য সরকারের নির্দেশ ঘিরে বিতর্ক

ডেস্ক, ২৮ জুনঃ যেসব রাজ্য সরকারি স্কুলগুলিতে ৭০ শতাংশেরও বেশি মুসলিম সম্প্রদায়ের পড়ুয়া রয়েছে সেখানে মিড ডে মিলের জন্য আলাদা করে খাবার ঘর অর্থাৎডাইনিং রুমগড়ার নির্দেশ দেয় রাজ্য সরকারের সংখ্যালঘু বিষয়ক দপ্তর এই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে শুক্রবার অর্থাৎ ২৮ জুনের মধ্যে সংখ্যালঘু ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা বেশি রয়েছে এমন স্কুলের তালিকা পাঠিয়ে দিতে হবে নির্দেশিকায় বলা হয়, যেসব সরকারি স্কুলে বেশিরভাগ সংখ্যালঘু পড়ুয়া রয়েছে সেই স্কুলগুলিকে চিহ্নিত করে স্কুলের নাম, কোন ব্লকে রয়েছে তা জানানো ছাড়াও পড়ুয়ার সংখ্যা এবং সংখ্যালঘুদের সংখ্যা ইত্যাদি বিস্তারিত ভাবে পাঠাতে হবে
    আর রাজ্য সরকারের সেই নির্দেশ ঘিরেই বিতর্ক দানা বেধেছে।  বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তীব্র কটাক্ষ করে বলেছেন সরকারের এই  নির্দেশউদ্দেশ্যপ্রণোদিত।পাশাপাশি কিছু সংখ্যক স্কুলে ওই নিয়ম কার্যকর করা নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধেপৃথকীকরণ”-এর রাজনীতিরও অভিযোগ করেন তিনি। সম্প্রতি রাজ্য সরকার একটি নির্দেশিকা জারি করেযেসব রাজ্য সরকারি স্কুলগুলিতে ৭০ শতাংশেরও বেশি মুসলিম সম্প্রদায়ের পড়ুয়া রয়েছে সেখানে আলাদা করে খাবার ঘর অর্থাৎ ডাইনিং রুম গড়া হবে।রাজ্য সরকারের সেই নির্দেশিকাটিকেই ট্যুইটারে তুলে ধরে বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সমালোচনা করেন বিজেপির  রাজ্য সভাপতি

      যদিও এখনও পর্যন্ত রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে দিলীপ ঘোষের এই কটাক্ষের পালটা জবাব আসে নি।ধর্মের ভিত্তিতে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে কেন ওই বৈষম্য তৈরি করা হচ্ছে? নাকি এই পৃথকীকরণের নেপথ্যে কোনো অন্য উদ্দেশ্য রয়েছে? অন্য কোনো ষড়যন্ত্র?”প্রশ্ন তোলেন দিলীপ ঘোষ

রাজ্য সরকারের এই নয়া নির্দেশিকাকেই এবার রাজনীতির হাতিয়ার করতে চায় বিরোধী দল বিজেপি

 

 

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news