ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ মালদায় - Newsbazar24
মালদা

ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ মালদায়

ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ মালদায়

জিৎ বর্মন :ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল দাদার বিরুদ্ধে । ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে মালদা মানিকচক থানার ধরমপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পঁচিশা গ্রামে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত দাদা পলাতক। ঘটনায় মৃতের পরিবার তরফ থেকে মালদা মানিকচক থানায় হামলাকারী দাদা অর্জুন ঘোষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  মৃতের নাম সীতারাম ঘোষ (৪২)।  পেশায় ম্যাক্সিক্যাব চালক ওই ব্যক্তিকে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে এবং বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ । ঘটনার পর মানিকচক ম্যাক্সি চালক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের দাবি করা হয়েছে।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  মৃত সীতারাম ঘোষেরা পাঁচ ভাই । সে ছিল বাড়ির সব থেকে ছোট। তাদের পাঁচ ভাই হাফ কাঠা করে জায়গায় একটি করে ঘর তৈরি করে রয়েছেন। রাস্তার সামনে প্রথম ঘরটি ছিল সীতারাম ঘোষের। সেই ঘরের থাকা নিয়ে সেজো ভাই অর্জুন ঘোষের সঙ্গে সিতারামের বেশ কিছুদিন ধরে বচসা চলছিল। অর্জুন ঘোষের দাবি সীতারামের থেকে বড় হওয়ায় রাস্তার সামনে ঘরটি তাকে দিতে হবে। কিন্তু দাদার এই শর্ত মানতে চাইছিল না ছোট ভাই সীতারাম। রাতে মদ্যপ অবস্থায় অর্জুন এসে সীতারামের সঙ্গে বচসা শুরু করে । এরপরই ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাড়ির সকলের সামনে ভাইকে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে খুন করে বলে অভিযোগ।

চোখের সামনে ছোট ভাইকে খুন হতে দেখে অন্যান্য ভাইয়েরা ঝাঁপিয়ে পড়েন। তখনই পরিস্থিতি বেগতিক দেখে অভিযুক্ত অর্জুন ঘোষ পালিয়ে যায়।মৃতের এক প্রতিবেশী তথা মানিকচক ম্যাক্সি চালক ইউনিয়নের নেতা অমিত ঝা জানিয়েছেন, সীতারাম খুব শান্ত স্বভাবের মানুষ ছিল। যেহেতু সে রাস্তার ধারে একটি ঘরে থাকতো ।আর সেই ঘরের দখলদারি নিয়েই অর্জুন ঘোষ তার ভাইকে কুপিয়ে খুন করেছে। আমরা এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছি। পুলিশের কাছে দাবি করেছি অবিলম্বে যেন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মালদা মানিকচক থানার পুলিশ।

NewsDesk - 2

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news