সারা ভারত

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষনে বললেন ৩৭০ ধারা অবলুপ্ত , নয়া যুগের শুরু জম্মু ও কাশ্মীরে

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষনে বললেন   ৩৭০ ধারা অবলুপ্ত , নয়া যুগের শুরু জম্মু ও কাশ্মীরে

ডেস্ক, ৮ই আগস্টঃ বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় জম্মু কাশ্মীর এবং  চলতি পরিস্থিতি নিয়ে  জাতীর উদ্দ্যেশে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়ে বলতে গিয়ে, প্রধানমন্ত্রী  তার  ভাষণে, ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের ব্যাখা দেন এবং বলেন, এলাকার মানুষকে এই পদক্ষেপ মুক্ত করবে এবং দেশের বাকি অংশের সঙ্গে তাঁদের যোগাযোগ বাড়াবে। বেশীদিন জম্মু কাশ্মীরকে কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল রাখা হবে না বলেও এদিন জানান প্রধানমন্ত্রী।তিনি বলেন, “অনেক  চিন্তাভাবনা করেই এই পদক্ষেপ করা হয়েছে...বেশীদিন এটাকে কেন্দ্রশাসিত করে রাখার প্রয়োজন হবে না

৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করা ছাড়াও, জম্মু কাশ্মীরকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চে ভাগ করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তারমধ্যে একটি বিধানসভাযুক্ত কেন্দ্রশাসিত জম্মু কাশ্মীর এবং অপরটি বিধানসভাবিহীন লাদাখ

৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর থেকেই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে জম্মু কাশ্মীরে বন্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেট মোবাইল পরিষেবা। সেখানকার পরিবারের যে সমস্ত মানুষ অন্যান্য রাজ্যে বাস করেন, তাঁরা পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছেন না

এদিন জাতীর উদ্দ্যেশে ভাষণে, সাধারণ মানুষের অসুবিধার কথা স্বীকর করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর কথায়, “৩৭০ ধারা থেকে স্বাধীনতা বাস্তব। অন্য একটি বাস্তবতা হল, সতর্কতামূলক নানা ব্যবস্থা নেওয়ায় সাধারণ মানুষের সমস্যা হচ্ছে। তাঁরা আরও বেশী সমস্যায় পড়ছেন

জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেন্দ্রীয় সরকার প্রত্যাহারের সেখানে বনধ চলছে, এই পরিস্থিতিতে   তিনি বলেন, সেখানকার মানুষ ইদে যাতে সমস্যায় না পড়েন, তা নিশ্চিত করতে চায় সরকার। জাতীর উদ্দ্যেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ইদের উদযাপনে যাতে জম্মু কাশ্মীরের বাসিন্দারা যাতে কোনও সমস্যায় না পড়েন, সরকার সুনিশ্চিত করছে তিনি বলেন, “জম্মু কাশ্মীরের বাইরে যাঁরা থাকেন, এবং ফিরতে চান সেই সমস্ত বন্ধুদের সমস্তরকম সাহায্য করবে সরকার জম্মু কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে নিয়েছে কেন্দ্র। তারপর থেকেই সেখান বনধ চলছে

 প্রধানমন্ত্রী  বলেন,কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে জম্মু কাশ্মীরের উন্নয়নের বাধা দূর হবে এবং বিশ্বের পর্যটকদের অন্যতম গন্তব্য হয়ে উঠবে। তিনি বলেন, “জম্মু কাশ্মীরের গেরুয়া হোক বা কাওয়া, আপেলের মিষ্টতা হোক বা রসাল ফল হোক, অথবা কাশ্মীরী শাল বা সেখানকার শিল্পকার্য, লাদাখের জৈব সামগ্রি বা ভেষজ ওষুধপত্র, তাদের বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া দরকার

সিনেমার শ্যুটিং এর জম্মু কাশ্মীরকে আবার অন্যতম গন্তব্য হিসেবে তুলে ধরা হবে বলেও এদিন জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi) তিনি বলেন, “আমি হিন্দি, তেলুগু এবং তামিল ফিল্ম জগৎকে অনুরোধ করব, কাশ্মীরকে বেছে নিতে। তাতে সাধারণ মানুষের কর্মসংস্থান হবে

লাদাখের প্রসঙ্গ তুলে নরেন্দ্র মোদি  বলেন, এখানকার নানান পরিবেশ এবং ধর্মীয় পর্যটকদের কাছে আকর্ষনীয় তিনি   বলেন, “ আমি সংস্থাগুলিকে বলব এগিয়ে আসতে, এখানকার বিভিন্ন সামগ্রি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে হবে

 

Kartik Pal

aappublication@gmail.com

english bazar Reporter



Post your comments about this news