পাঁচ বছরের মেয়েকে ছেড়ে একমাস ধরে ভেলরে আটকে আছেন বাবা –মা। করুন অবস্থা বাচ্চার - Newsbazar24
মুরশিদাবাদ -নদীয়া

পাঁচ বছরের মেয়েকে ছেড়ে একমাস ধরে ভেলরে আটকে আছেন বাবা –মা। করুন অবস্থা বাচ্চার

পাঁচ বছরের মেয়েকে ছেড়ে একমাস ধরে ভেলরে আটকে আছেন বাবা –মা।  করুন অবস্থা বাচ্চার

পাঁচ বছরের মেয়েকে ছেড়ে একমাস ধরে ভেলরে আটকে আছেন বাবা –মা।  করুন অবস্থা বাচ্চার

News bazar24:  পাঁচ বছরের ছেলে মেয়েকে ছেড়ে একমাস ধরে ভেলরে আটকে আছেন বাবা –মা। আর এদিকে ফোনে বাবামায়ের সঙ্গে কথা বলতেই রোজই কান্না শুরু করে দেয় ৫ বছরের মেয়ে অস্মিতা ভৌমিক। মা বাবা কে কাছে না পেয়ে খাওয়া দাওয়া প্রায় বন্ধই করে দিয়েছে অস্মিতা । বোনের কান্না দেখে চোখে জল গড়িয়ে পড়ে ১১ বছরের অঙ্কুজিৎ ভৌমিকেরও।

নদীয়ার তেহট্ট থেকে প্রায় দেড় মাস আগে ভেলরে চিকিৎসার জন্য গিয়েছেন বাবা অভিজিৎ ভৌমিক এবং মা শর্মিষ্ঠা ভৌমিক ।  ১৮ মার্চ সকালে সেখানে তাঁদের চিকিৎসা শেষ হয়। সেদিন থেকেই ট্রেনের  টিকিট কাটার চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু পাচ্ছিলেন নয়া।   এরপর ২৫ তারিখে ঘরে ফেরার জন্য তৎকাল এ একটি ট্রেনের টিকিট পান। যাবতীয় সরঞ্জাম, ওষুধপত্র গুছিয়ে নিলেও  ট্রেনে ওঠার আগেই লকডাউন! 
অভিজিৎবাবুর কথায় ফোনে জানান, যে টাকা নিয়ে চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলাম। কিন্তু তাতেও হয়নি, নিরুপায় হয়ে পরে ব্যাঙ্ক থেকে দু’‌বার ১০,৫০০ ও ২১,০০০ টাকা তুলেছিলাম হোটেল ভাড়া ও খাওয়া খরচ চালানোর জন্য। কিন্তু সেই টাকাও প্রায় শেষ। যে কারণে আর্থিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে তাঁদের।  তারপর আবার রুগীর পথ্য অনুযায়ী খাবার পাওয়া যাচ্ছেনা ।তাহলে বাচ্চা গুলো কার কাছে আছে ?

এই বিষয়ে  শর্মিষ্ঠা ভৌমিক বলেন, ‘তাঁর বাবামা তেহট্টের বাড়িতে থেকে তাঁর ছেলেমেয়েকে দেখাশোনা করছেন। বৃদ্ধ বাবামা নিজেরাই অসুস্থ। বাচ্চাগুলোকে নিয়ে কতটা সমস্যাই আছেন সেটাই ভেবে অসুস্থ হয়ে পড়ছি । আমাদের দেখতে না পেয়ে বাচ্চারা কান্নাকাটি করছে সারাক্ষণ।

NewsDesk - 2

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news