নতুন করে স্বাধীনতা পেলো মালদার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ভুটনির লক্ষাধিক মানুষ - Newsbazar24
মালদা

নতুন করে স্বাধীনতা পেলো মালদার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ভুটনির লক্ষাধিক মানুষ

নতুন করে স্বাধীনতা পেলো মালদার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ভুটনির লক্ষাধিক মানুষ

  মালদা : দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হলো মালদার ভুতনী চরের মানুষের।এযেন নতুন রূপে স্বাধীনতা পেলো ভূতনি বাসী।ভুতনী বাসীর সুবিধার্থে স্বাধীনতা দিবসের দিন খুলে দেওয়া হলো ভূতনি সেতুর গেট।আপাতত মটর বাইক , সাইকেল ও জরুরি চিকিৎসা পরিষেবার জন্য ব্রিজের ওপর দিয়ে শুরু হলো চলাচল।এদিন মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌর চন্দ্র মন্ডল সেতুর ওপর দিয়ে চলতি মানুষদের মুখ মিষ্টি করিয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন।এক মাসের মধ্যে ব্রিজের সমস্ত কাজ শেষ হবে।তখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন হবে ভুতনী চরের মানুষের স্বপ্নের সেতু ভূতনী ব্রিজের । মালদা জেলার মানিকচক ব্লকের অন্তর্গত ভুতনী চর । যার চার দিকে গঙ্গা ও ফুলহর নদী দিয়ে ঘেরা ।  ভুতনী চরে তিনটি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত লাক্ষাধিক মানুষের বসবাস।ভূতনি বাসীকে নিত্য প্রয়োজনীয় কাজে জন্য ফুলাহার নদী নৌকা মাধ্যমে পারাপার করে মানিকচকে আসতে হত।স্বাধীনতার পর থেকে ভুতনী চরের মানুষের একটায় দাবী ছিল ভুতনী চরকে মূল ভুখন্ড যুক্ত করার জন্য ফুলহর নদীর উপর পাকা সেতুর।বারবার বিভিন্ন ভাবে আন্দোলন করেও কোন লাভ পাইনি চর বাসী।অবশেষ তৃণমূল ক্ষমতায় আশার পর প্রতিশ্রুত অনুযায়ী ভুতনী সেতুর কাজের ২০১৪ সালে শিলান্যাস  করে তৎকালীন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেব ও মন্ত্রী সাবিত্রি মিত্র।এবারে সমাপ্তের দিকে ব্রিজ নির্মাণ কাজ।সেতুরটি লম্বাই ১৭৬০ মিটার।এখন পর্যন্ত ১৩১ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে।  

এপ্রসঙ্গে সেতুর নির্মাণকারী সংস্থা ইঞ্জিনিয়ার জগন্নাথ সামন্ত জানান, সেতু নির্মাণের কাজ প্রায় ৯৫ শতাংশ শেষ।সামান্য কিছু কাজ বাকী রয়েছে যা বৃষ্টি জন্য করতে দেরী হচ্ছে।আগামী এক মাসে সমগ্র কাজ শেষ হবে।তবে মানুষের সুবিধা ক্ষেত্রে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মটর বাইক ও সাইকেল চলাচল করবে।

মালদা জেলা পরিষদ সাভধিপতি গৌর চন্দ্র মন্ডল এদিন বলেন,সেতুর কাজ প্রায় শেষের দিকে। আজ থেকে মরট বাইক ও সাইকেল সহ জরুরি চিকিৎসার জন্য গাড়ি চলাচল করবে।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ মতো খুব তাড়াতাড়ি আনুষ্ঠানিক ভাবে ব্রিজের উদ্বোধন করা হবে।

ব্রিজে চলাচল শুরু হওয়ায় খুশিতে অফালুত ভূতনিবাসী।এদিন একে অপরকে মিষ্টি মুখ করিয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন।

NewsDesk - 2

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news