মালদা

জেলা সদর থেকে গ্রাম সর্বত্র বিষাদের সুর, তারই মধ্যে চলছে মহিলাদের সিঁদুর খেলাও মিষ্টি মুখ।

জেলা সদর থেকে গ্রাম সর্বত্র বিষাদের সুর, তারই মধ্যে চলছে মহিলাদের সিঁদুর খেলাও মিষ্টি মুখ।

মালদাঃ বাঙালির প্রিয় উৎসব শেষ হয়ে গেল। নবমীর রাত শেষ না হতে চাইলেও এক সময় রাত কেটে শুরু হয় নতুন প্রভাতের। শুরু হয় দশমীর । মায়ের এবার পিতৃগৃহে ফিরে যাওয়ার পালা। আবার শুরু হল বছরভর অপেক্ষার। আনন্দ হাসি উত্তেজনার মধ্য দিয়ে খুব তাড়াতাড়ি চলে গেল পুজো। এখন কান পাতলেই শোনা যাবে বিসর্জনের সুর। প্রতিমা শিল্পী থেকে শুরু করে পুজো উদ্যোক্তাদের গত কয়েকমাসের প্রস্তুতি কর্মব্যস্ততার অবসান ঘটল দশমীর দিন । মালদা শহর থেকে শুরু করে গ্রামে গঞ্জে একটু খোঁজ রাখলেই জানা যাবে পুজো উদ্যোক্তা থেকে শুরু করে আলোক সজ্জার শিল্পীদের জিনিষপ্ত্র গোটানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আবার কোথাও কোথাও প্রতিমা নিরঞ্জনের কাজও সেরে ফেলেছেন পুজো কমিটির সদস্যরা। সব মিলিয়ে গমগমে পুজো মণ্ডপগুলিতে এখন বিষাদের সুর ভরে উঠছে। বনেদি বাড়ি থেকে পাড়ার পুজো মণ্ডপ সব জায়গায় চলছে প্রতিমা নিরঞ্জনের তোরজোড় এবং মহিলাদের সিঁদুর খেলা। আর এই বিজয়া দশমীকে কেন্দ্র করে বিষাদের সুর ভরে উঠলো মালদার বুলবুলচন্ডীতে। এলাকার মৃত্যুঞ্জয় মেমোরিয়াল ক্লাবের(এম এম সি) দুর্গাপূজাকে কেদ্র করে । আদি রীতি নীতি ঐতিহ্য মেনে পুজো পর্ব চলে এখানে। কারন এই পূজাটি এক সময় বুলবুলচন্ডীর জমিদারবাড়ীর পূজা হিসাবে পরিচিত ছিল।। পুজো মিটে যাওয়ার পর এলাকার মহিলারা পরিবার পরিজনদের সঙ্গে মিলেমিশে সিঁদুর খেলে । সঙ্গে চলে মিষ্টিমুখ এবং কোলাকুলির পর্বও। জানা গিয়েছে, দশমীর সিঁদুর খেলার অনুষ্ঠানকে ঘিরে মণ্ডপে ভীড় জমান এলাকার বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ। (দেখুন ভিডিওতে সিঁদুর খেলা ও মিষ্টি মুখের দৃশ্য)

Kartik Pal

aappublication@gmail.com

english bazar Reporter

Post your comments about this news