বাড়ি বাজার

কোলকাতায় কোন এলাকাগুলিতে ফ্ল্যাট কিনলে আপনার সব চাহিদা পুরন হবে ?

কোলকাতায় কোন এলাকাগুলিতে ফ্ল্যাট কিনলে আপনার সব চাহিদা পুরন হবে ?

কোলকাতায় কোন এলাকাগুলিতে ফ্ল্যাট কিনলে আপনার সব চাহিদা পুরন হবে ?

ফ্ল্যাট কিনতে যাওয়ার আগে আপনার ও পরিবারের সবরকম  সুবিধার কথা মাথায় রেখে ফ্ল্যাটএর জায়গা খোঁজা  উচিত । এইটা কাছে তো ওইটা দূরে,এইটা আছে তো ওইটা নেই।কিন্তু আমরা আপনার জন্য এমন কিছু জায়গা বেছে দিলাম যা আশা করি আপনার সব রকম চাহিদা মেটাতে পারবেন !

কসবা

আপনার নিজের ফ্ল্যাটটি কিন্তু আপনি এখানে দেখতেই পারেন।দেখুন সামনেই রয়েছে গড়িয়াহাট।আপনি অটো,বাস সবে করেই যেতে পারেন।সেখান থেকে রাসবিহারী খুবই কাছে,মানে মেট্রো পেয়ে যাবেন।যদি শপিং করতে হয় তাহলে গড়িয়াহাট রইল,আবার সামনেই অ্যাক্রোপলিশ মলও রইল।আবার দেখুন সামনেই বাইপাস।হাসপাতাল যেতে হলে রুবি,ডিশান তো রইলই।পড়াশোনার ক্ষেত্রে পেয়ে যাবেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।মাঝে মাঝে রেস্টুরেন্ট যাওয়ার শখ?জোম্যাটো দেখুন,অনেক ভালো ভালো রেস্টুরেন্ট পেয়ে যাবেন এই চত্বরে।তাই কসবাতে আপনি দেখতেই পারেন ফ্ল্যাট।

আপনার যদি পকেটের জোড় থাকে,তাহলে আপনার ডেস্টিনি হোক সল্টলেক।আপনি যদি শান্ত পরিবেশে আপনার ফ্ল্যাট কিনতে চান,তাহলেও সল্টলেক যেতে পারেন।দেখুন সামনেই বাইপাস পাচ্ছেন।যেখানে চাইবেন সেখানে যেতে পারেন।খেলা দেখবেন?সল্টলেক স্টেডিয়াম তো রইলই।শপিং করতে চাইলে সিটি সেন্টার ১,২ রইল।আর রেস্টুরেন্ট নিয়ে তো কথা বলার নেই।অনেক নামী-দামী রেস্টুরেন্ট রয়েছে।এছাড়া হাসপাতাল বলতে রুবি বা অ্যাপোলো তো পাচ্ছেন।সন্ধ্যেবেলা আপনার ফ্ল্যাটের বারান্দায় বসে আপনি চা খেতে খেতে ভাববেন আপনার মতো সুখী কে আছে!

দমদম

উত্তর কলকাতাও কিন্তু বাদ যায় না ফ্ল্যাট কালচারের থেকে।এখন খুব ভালো ভালো ফ্ল্যাট পাওয়া যাচ্ছে দমদমে।দেখুন সামনেই বি.টি.রোড,তো যাতায়াতের সমস্যা হবে না।দমদম স্টেশনও পেয়ে যাবেন।সামনেই শ্যামবাজার মেট্রো।মার্কেটিং এর জন্য শ্যামবাজার,হাতিবাগান তো রইলই।হাসপাতাল চাইলে আর.জি.কর বা মেডিকেল কলেজ পেয়ে যাবেন।আর পরিবেশও খুবই ভালো।সবচেয়ে বড় কথা কিছুদূরেই গঙ্গা পাচ্ছেন।তাই দমদমে আপনি ফ্ল্যাট কিনতেই পারেন।

 রাজারহাট-নিউটাউন

 

এখনকার দিনে যে কেউ ফ্ল্যাট কিনতে চাইলেই রাজারহাটে কেনার ইচ্ছে রাখেন।এই কয়েকবছরেই একটা ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছে রাজারহাটে ফ্ল্যাট কেনাটা।যদিও এখনও যাতায়াতের খানিক সমস্যা আছে,তাও আপনি এখানে যেতেই পারেন।সামনে তো সল্টলেক রয়েছেই,সেখানে এলেও আপনি যেখানে চাইবেন যেতে পারবেন।আই.টি সেক্টরে যারা কাজ করেন তাদের জন্য তো বেস্ট অপশন এটা হতেই পারে।

টালিগঞ্জ

কলকাতার এমন ভালো জায়গা থাকার জন্য আর পাবেন না।সামনেই রয়েছে দুদুখানা মেট্রো- মহানায়ক উত্তমকুমার আর রবীন্দ্র সরোবর।তাছাড়া আপনি এখান থেকে যে কোনো জায়গায় চলে যেতে পারবেন বাসে।সিনেমা দেখতে ভালোবাসেন!তো সামনেই নবীনা।প্রিন্স আনোয়ার শাহ দিয়ে চলে যেতে পারবেন যাদবপুর সংলগ্ন এলাকায়।হাসপাতাল চাইলে পেয়ে যাবেন বাঙ্গুর হাসপাতাল।আর শপিং করতে হলে পাবেন সাউথ সিটি।আর কি চাই বলুন তো!

সল্টলেক

আপনার যদি পকেটের জোড় থাকে,তাহলে আপনার ডেস্টিনি হোক সল্টলেক।আপনি যদি শান্ত পরিবেশে আপনার ফ্ল্যাট কিনতে চান,তাহলেও সল্টলেক যেতে পারেন।দেখুন সামনেই বাইপাস পাচ্ছেন।যেখানে চাইবেন সেখানে যেতে পারেন।খেলা দেখবেন?সল্টলেক স্টেডিয়াম তো রইলই।শপিং করতে চাইলে সিটি সেন্টার ১,২ রইল।আর রেস্টুরেন্ট নিয়ে তো কথা বলার নেই।অনেক নামী-দামী রেস্টুরেন্ট রয়েছে।এছাড়া হাসপাতাল বলতে রুবি বা অ্যাপোলো তো পাচ্ছেন।সন্ধ্যেবেলা আপনার ফ্ল্যাটের বারান্দায় বসে আপনি চা খেতে খেতে ভাববেন আপনার মতো সুখী কে আছে!

Shankar Chakraborty

aappublication@gmail.com

Editor of AAP publicaltions

Post your comments about this news