করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী সতর্কতা বজায় রাখার আহ্বান জানালেন। - Newsbazar24
সারা ভারত

করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী সতর্কতা বজায় রাখার আহ্বান জানালেন।

করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী সতর্কতা বজায় রাখার আহ্বান জানালেন।

ডেস্কঃ  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আক্ষেপ করে বললেন করোনা ভাইরাসের বিধিনিষেধের মধ্যেও এখনও  অনেকে এই পরিস্থিতিকে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করছেন না সতর্কতা বজায় রাখার আহ্বান জানালেন দেশে ক্রমশই বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, এখনও পর্যন্ত ভারতে এই মারণ ভাইরাসে  আক্রান্ত কমপক্ষে ৩৯০ জন, মারা গেছেন জন। এদিকে কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী, আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত মহারাষ্ট্র, কেরল, দিল্লি, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা, কর্নাটক, তেলেঙ্গানা, রাজস্থান, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, পঞ্জাব, জম্মু কাশ্মীর, লাদাখ, পশ্চিমবঙ্গ, চণ্ডীগড়, ছত্তিশগড়, হিমাচলপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, ওড়িশা, পুদুচেরি এবং উত্তরাখণ্ডে চলবে না কোনও ট্রেন, চলবে না মেট্রোও। পাশাপাশি বন্ধ থাকবে আন্তঃরাজ্য বাস পরিষেবাও। শপিং মল, সিনেমা হল, স্কুল, কলেজ এবং জিমও বন্ধ বিভিন্ন রাজ্যে দেশে করোনার বাড়বাড়ন্ত রুখতে সতর্ক না হলে ভারতের অবস্থাও হবে চিন, ইতালির মতো অনেকেই বলছেন এই কথা। এই বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সোমবার টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রীও। নরেন্দ্র মোদি লিখেছেন, "অনেক মানুষ এখনও লকডাউনকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছেন না। দয়া করে নিজেকে বাঁচান, আপনার পরিবারকে বাঁচান, এই নির্দেশগুলোকে গুরুত্ব দিয়ে অনুসরণ করুন। আমি রাজ্য সরকারগুলোকেও অনুরোধ করছি যাতে সব রাজ্যগুলোতেই এই সব নির্দেশিকা মেনে চলার বিষয়টি নিশ্চিত করা যায়।" এদিকে যেভাবে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে তাতে দেশের ল্যাবরেটরিগুলোতে ক্রমশই বাড়ছে চাপ। অনেকেই চাইছেন সতর্কতা স্বরূপ COVID-19 সংক্রমণ সংক্রান্ত পরীক্ষাটি করিয়ে নিতে। কিন্তু প্রয়োজনের তুলনায় দেশে এই ধরণের পরীক্ষা করার মতো কেন্দ্র অনেকটাই কম। তাই এই সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এসেছে কেন্দ্রীয় সরকার। শুধুমাত্র সরকারি সংস্থাই নয়, অনেক প্রাইভেট ল্যাবরেটরিগুলিকেও এই ধরণের পরীক্ষা করার অনুমতি দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। কোনওভাবে কোনও ঝুঁকি নিতে চায় না সরকার

 

NewsDesk - 3

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news