আমের নানা রেসিপি , বাড়িতে বানিয়ে নিন কাঁচা আমের নানা রেসিপি - Newsbazar24
রান্না ঘর

আমের নানা রেসিপি , বাড়িতে বানিয়ে নিন কাঁচা আমের নানা রেসিপি

আমের নানা রেসিপি , বাড়িতে বানিয়ে নিন কাঁচা আমের নানা রেসিপি

এখন বাজারে কাঁচা আম সস্তা ও জোগানও বেশি। আশাকরি লকডাউনের আবাহে আপনার সময়য়ও অফুরন্ত। তাই বাড়িতে বানিয়ে নিন কাঁচা আমের নানা রেসিপি।

জুলি শেখ, মুর্শিদাবাদ

আমের চাটনি

কি কি লাগবে (উপকরণ) : সেদ্ধ করা আমেরমের টুকরা ১ কাপ, কিশমিশ পেস্ট আধা কাপ, চিনি বা গুড় আধা কাপ, শুকনা লঙ্কা ৩-৪টি, আলু বোখারা ৪-৫টি, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, আদা কুচি পৌনে এক চা-চামচ, রসুন কুচি পৌনে এক চা-চামচ, সরিষার তেল পৌনে এক কাপ।

কিভাবে বানাবেন  :  কড়াইতে তেল দিয়ে শুকনা লঙ্কা ফোড়ন দিয়ে আদা রসুন কুচি দিন। একটু লাল হলে আম ও আলু বোখারা দিয়ে দিন। এতে হলুদ লঙ্কা গুঁড়া দিয়ে কিশমিশ পেস্ট ও চিনি দিয়ে নাড়ুন। একদম পেস্টের মতো হলে নামিয়ে নিন। এই চাটনি পোলাও, রুটি, ভাত সবকিছুর সঙ্গে খাওয়া যায়। ফ্রিজে রেখে দিলে অনেকদিন খেতে পারবেন।

আমের সালসা

উপকরণ:  কাঁচা আমের টুকরা ২ কাপ, লাল লঙ্কা কুচি ১ টেবিল চামচ, চিনি ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা ও পুদিনা পাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, হলুদ গুঁড়া সামান্য।


কি ভাবে বানাবেন ?  আগুনে জল ও হলুদ দিয়ে তাতে আম ফুটিয়ে নিন। একটু ফোলা উঠলে নামিয়ে জল ঝরিয়ে নিন। এবার সব একসঙ্গে মিলিয়ে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন। দেখবেন শরীরের সাথে মনটাও ঠাণ্ডা হয়ে গেছে ।

আম পাতুরি

যা জোগাড় লাগবে : আম  কুচি ২ কাপ, নারকেল ও সরিষা বাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, কাঁচা লঙ্কা ফালি ৪-৫টি, সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, চিনি ১ টেবিল চামচ, আমের খোল ৪টি, কলাপাতা প্রয়োজনমতো, সুতা বাঁধার জন্য।


যে ভাবে বানাবেন : আমের কুচি, সরিষা বাটা-নারকেল বাটা, পেঁয়াজ কুচি, কাঁচা লঙ্কা ফালি, তেল লবণ ও চিনি একসঙ্গে মাখিয়ে নিন। আমের খোল পরিষ্কার করে নিন। কলাপাতা আগুনে ছেঁকে নরম করে নিন। তার মধ্যে আম মাখা ভরে সুতা দিয়ে বেঁধে ভাপিয়ে নিন। অথবা তাওয়ায় ছেঁকেও নিতে পারেন। বের করে আমের খোলে করে পরিবেশন করুন।

আম কাসুন্দির আচার

উপকরণ: কাঁচা আম ৫০০ গ্রাম, কাসুন্দি ২ কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, লঙ্কা গুঁড়া ১ চা-চামচ, আদা রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ ও চিনি স্বাদমতো, পাঁচফোড়ন ১ চা-চামচ, সরিষার তেল ১ কাপ।


প্রণালি: প্যানে তেল দিয়ে পাঁচফোড়ন দিয়ে ফুটে উঠলে আম দিয়ে সব মসলা দিয়ে দিন। কষিয়ে নিয়ে তাতে কাসুন্দি দিন। নামানোর আগে পেঁয়াজ বেরেস্তার সঙ্গে চিনি মিশিয়ে দিয়ে দমে রাখুন। তেল ওপরে উঠলে নামিয়ে নিন। এই আচার অনেক দিন রেখে খাওয়া যায়। মাঝে মধ্যে রোদে দেবেন ।

আমের সসে করলার দোলমা

উপকরণ: করলা বড় ২টি, আম সেদ্ধ আধা কাপ, পুরের জন্য মাংসের কিমা ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, কাঁচা মরিচ ১ টেবিল চামচ, আমচুর গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, তেল ১ কাপ, গুড় ২ টেবিল চামচ, মেথি ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, শুকনা লঙ্কা ২টি, হলুদ ও মরিচ গুঁড়া সামান্য, চিনি স্বাদমতো। দারুচিনি ও এলাচ একটি করে।


যে ভাবে বানাবেন :

প্রথমে  আদা-রসুন বাটা পরিমান মত, ১টি গোটা এলাচ, ১ টুকরা দারুচিনি, লবণ দিয়ে কিমা সেদ্ধ করে নিন। এবার করলার ওপর দিক একটু চেঁছে নিয়ে দুপাশ কেটে একটু ভাঁজ দিয়ে নিন। এবার মাঝখানে চিরে দিয়ে ভেতর থেকে বিচি বের করে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে কিমা দিয়ে নেড়েচেড়ে নিন। তাতে পেঁয়াজ কুচি, কাঁচা মরিচ কুচি দিয়ে একটু মাখা মাখা হলে লবণ, চিনি ও আমচুর গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে নিন। করলার ভেতরে কিমার পুর ভরে সুতা দিয়ে বেঁধে রাখুন। সেদ্ধ করা আম ভালো করে চটকিয়ে নিয়ে তাতে ১ কাপ জল মেশান।

এবার একটি কড়াইতে তেল গরম করে মেথি ও শুকনা মরিচ ফোড়ন দিয়ে সেদ্ধ আম ঢেলে দিন। সামান্য হলুদ মরিচ গুঁড়া লবণ ও গুড় দিয়ে বলক এলে পুরভরা করলা দিয়ে দিন। মাখা মাখা হলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। পরিবারের সবাইকে খাওয়ান ।

আমের মোরব্বা

যা যা লাগবে ঃ কাঁচা আম ৮ টুকরা, চিনি ১ কেজি, জল ২ কাপ, ফিটকিরি ১ চা-চামচ, চুন গালা ১ চা-চামচ, ভিনেগার ২ টেবিল চামচ।যে ভাবে বানাবেন : আমের খোসা ছাড়িয়ে দুই ফালি করে আঁটি ফেলে জলে  ভিজিয়ে রাখুন। ১ ঘণ্টা পর পর দুবার জল বদলান। এবার আর একটি বাটিতে জল নিয়ে তার মধ্যে চুন ও ফিটকিরি দিন। জল থেকে আম উঠিয়ে জল ঝরিয়ে আম খুব ভালো করে কেঁচে নিন। এবার ফিটকিরি মেশানো জলে ভিজিয়ে রাখুন ২-৩ ঘণ্টার।

এবার তুলে খুব ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিয়ে ফুটানো জলে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে উঠিয়ে নিন। এবার ভালোমতো মুছে জলে শুকিয়ে নিন।
চিনি আর জলে জ্বাল দিয়ে শিরা তৈরি করে নিন। শিরার ময়লা কাটার জন্য এতে ২ টেবিল চামচ দুধ দিতে হবে। প্রয়োজন হলে শিরা ছেঁকে নেওয়া যায়। শিরা ঘন হয়ে এলে তাতে আম ছেড়ে ৪০-৪৫ মিনিট আস্তে আঁচে জ্বাল দিয়ে নামিয়ে নিন।  মোরব্বা হালকা ঠান্ডা হয়ে গেলে কাচের বয়ামে ভরে রাখুন। মাঝে মধ্যে রোদে দিন।

 

NewsDesk - 2

aappublication@gmail.com

Newsbazar24 Reporter

Post your comments about this news