বিনোদন

আগামী বছর মা আসছেন আশ্বিনে নয়, কার্তিকে, মহালয়ার ৩৫ দিন পরে দুর্গাপুজো,

আগামী বছর  মা আসছেন  আশ্বিনে নয়,  কার্তিকে, মহালয়ার ৩৫ দিন পরে দুর্গাপুজো,

কার্ত্তিক পাল,৮ অক্টোবরঃ নবমীর রাত থেকেই যেন ঢাকের আওয়াজ বেসুরে  ঢাকের আওয়াজ শুনে মনে হচ্ছিল, “ওগো   নবমীর নিশি আর পোহাইয়ো না সকাল হলেই  আবার কৈলাশে ফিরে যাবে উমা। আবার আসবে একবছর

তাই সকাল থেকেই ঢাকের বোলে বিষাদের সুর প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ভীড় পাতলা হতে শুরু হয়েছে। আজ  বিজয়া দশমী  থেকে আবার ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টানো। দিন গোনা।  কবে মা আসবেন?  পুজো মণ্ডপে আয়োজন চলছে ঘরের মেয়েকে শ্বশুরবাড়ি পাঠানোর।নিয়ম মেনে মহিলা এয়ো স্ত্রীর বিধি মেনে বরণ করেছেন প্রতিমাকেমায়ের কপালে সিঁদুর ছোঁয়ানো নিয়ম অনুযায়ী পানপাতায় মুখ মুছিয়ে সেই পাতা অঞ্জলি হিসেবে নিবেদন করা হয়েছে মায়ের পায়ে। মিষ্টিমুখ করানো হয়েছে লক্ষ্মী-সরস্বতী-কার্তিক-গণেশকে। এরপর সবার জন্য অবারিত দ্বার। সিঁদুর খেলা। তারপর শুরু হয়েছে  ঘাটে ঘাটে  প্রতিমা নিরঞ্জনের পালা

এই সুযোগে  আপানাদের জানিয়ে রাখি, আগামী বছর মা কবে আসছেন তাঁর বাপের বাড়িতে। আজ থেকেই শুরু করে দিন, তার কাউন্ট ডাউনও

আগামী বছর (দুর্গাপুজো ২০২০) মহালয়া পড়েছে ১৭ সেপ্টেম্বর। কিন্তু আপনি যদি ভেবে থাকেন যে সামনের বছর দেবী দুর্গা তাড়াতাড়ি আসছেন মর্ত্যে, তাহলে সে মস্ত বড় ভূল আগামী বছর আশ্বিনে নয়, মা আসছেন কার্তিকে। হ্যাঁ, একদম ঠিকই পড়েছেন। আগামী বছর মহালয়া ১৭ সেপ্টেম্বর হলেও দেবী দুর্গার বোধন অর্থাৎ ষষ্ঠী পড়েছে তার ৩৫ দিন পরে, অর্থাৎ আশ্বিন পেরিয়ে কার্তিক মাসে। 

আসলে আগামী বছর দুটো অমবস্যা একমাসে পড়ায় আশ্বিন মাস মল মাস। ফলে পুজো পিছিয়ে কার্তিক মাসে চলে গেছে। সামনের বছর মহালয়া ১৭ সেপ্টেম্বর হলেও, ষষ্ঠী পড়েছে ২২ অক্টোবর। বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত এবং গুপ্ত প্রেস, দুই পঞ্জিকা মতেই এটা ঘটতে চলেছে

Kartik Pal

aappublication@gmail.com

english bazar Reporter

Post your comments about this news