দিলীপ ঘোষের কনভয়ে আবারও হামলা, রক্তাক্ত দুই নিরাপত্তা রক্ষী

Newsbazar24:আবারো নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রক্ত ঝরল। দিলীপ ঘোষের কনভয়ে আবারো হামলা চালানোর অভিযোগ । সকাল থেকে বারেবারে বিক্ষিপ্ত অশান্তির অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বর্ধমান-দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের
বিভিন্ন এলাকা । এবারে বর্ধমান উত্তরের ২০৪ নম্বর বুথের কাছে হামলার অভিযোগ। দিলীপ ঘোষের দুই নিরাপত্তা রক্ষী আহত। তার মধ্যে একজন রক্তাক্ত। মাথা ফেটে রক্ত বেরোচ্ছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ক্যামেরা বন্দি করেছেন এই ঘটনা। নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে গুরুতর প্রশ্ন উঠেছে
সোমবার সকালে প্রথমে বর্ধমানের তুল্লা বাজারে বিজেপি সমর্থকদের ভোট দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে দিলীপ ঘোষ সেখানে পৌঁছান। দিলীপ ঘোষ কে ঘিরে উত্তেজক স্লোগান দিতে থাকেন তৃণমূল কর্মীরা। খবর করতে গিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সেখানে আক্রান্ত হয়। ইট দিয়ে হামলা চালানো হয় সংবাদ মাধ্যমের গাড়িতে । এরপর ভোটের দ্বিতীয় পর্বে ফের বর্ধমান উত্তরের ২০৪ নম্বর বুথের কাছে হামলার অভিযোগ ওঠে।
দিলীপ ঘোষের কাছে খবর আসে ২০৪ নম্বর বুথ থেকে বিজেপি এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ দিলীপ ঘোষ সেখানে গেলেই তার উপর হামলা চালানো হয়। দিলীপ ঘোষের নিরাপত্তা রক্ষীরা, দিলীপ ঘোষ কে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত হন একজনের মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়। আরেকজনের হাতে লাগে জানা গেছে।আহত নিরাপত্তা রক্ষী দের নাম এস আই সুনীল কুমার ও কনস্টেবল রামু প্রমাণ। কোন ভয় কনভয়ে থাকা নিরাপত্তা রক্ষীদের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। সকালে উজানা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিজে গিয়ে এজেন্ট বসিয়ে এসেছিলেন। সেখানেও একই অভিযোগ উঠেছিল। এ
এই ঘটনায় দিলীপের সঙ্গে যে নিরাপত্তারক্ষীরা ছিলেন, তাঁদের বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অভিযোগ, মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালও তৃণমূলের লোকেরা ঘিরে রেখেছে। এই ঘটনার পর দিলীপ ঘোষ বর্ধমান জেলায় দলীয় দফতরে যান।
যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করে বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তৃণমূল নেতাদের ন্যায় চিরাচরিত প্রথায় এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন গোটা ঘটনাটাই সাজানো। এই লোকট কমজোরী । গাড়িতে গুন্ডা নিয়ে ঘুরছেন। নির্বাচন কমিশন কিছুই করতে পারছে না।