উলটো পুরান, শাসকদলের নেতা কে রাস্তায় ফেলে মারধর পুলিশের

Newsbazar24:এ যে উলটো পুরান। শাসকদলের নেতা কে রাস্তায় ফেলে মারধর পুলিশের। ঘটনায় হতচকৃত এলাকার আমজনতা। ঘটনার জেরে শনিবার গভীর রাতে তীব্র উত্তেজনা এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙায়। জানা গেছে আক্রান্ত তৃণমূল নেতা আমডাঙা ব্লকের তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ। এর প্রতিবাদে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের কর্মীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন রাজ্যের মন্ত্রী তথা ব্যারাকপুরের তৃণমূল প্রার্থী পার্থ ভৌমিক। আরও জানা যায়, পার্থর আশ্বাসেও অবরোধ তুলতে রাজি হননি আক্রান্ত তৃণমূল নেতার অনুগামীরা। পরে হাসপাতাল থেকে হাতে প্লাস্টার বাঁধা অবস্থায় ঘটনাস্থলে পৌঁছন মোস্তাক আহমেদ। তাঁর অনুরোধে অবরোধ তোলেন অনুগামীরা। রবিবার সকালেও ঘটনায় থমথমে রয়েছে এলাকা। পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছেন আক্রান্ত তৃণমূল নেতার অনুগামীরা।
আক্রান্ত তৃণমূল নেতা মোস্তাক আহমেদ বলেন, “দলের এক কর্মীকে পুলিশ অকারণে মারধর করছে দেখে তাকে বাঁচাতে গিয়েছিলাম তখন আমাকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করে। হাত ভেঙে গেছে। পুলিশ অবশ্য জানিয়েছে, এক বাইক চালককে উদ্ধার করতে গিয়ে পুলিশ আক্রান্ত হওয়ায় লাঠিচার্জ করেছে।”
ব্যারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং এর দাবি, “এটা তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল ছাড়া কিছু নয়। কারণ,তৃণমূলের কারও মদত না থাকলে পুলিশ শাসকদলের কোনও নেতার গায়ে হাত দেবে? ঘটনার নেপথ্যে নিশ্চয়ই পার্থর হাত রয়েছে।” এ ব্যাপারে পার্থ ভৌমিক অবশ্য কোনও প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি।

এরকম আরো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন