Share on whatsapp
Share on twitter
Share on facebook
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

আইএসএফ সমর্থকদের সংঘর্ষে ধুন্ধুমার ধর্মতলা এলাকা, ভাঙচুর পুলিশের কিয়স্ক

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin

news bazar24: শনিবার আইএসএফ সমর্থকদের অবরোধ তুলতে গিয়ে কার্যত রণক্ষেত্রের রূপ নেয় কলকাতার প্রাণকেন্দ্র ধর্মতলা এলাকা। কলকাতা পুলিশের সঙ্গে আইএসএফ সমর্থকদের সংঘর্ষে ধুন্ধুমার কাণ্ড বেঁধে যায় শনিবার দুপুরে।
ঘটনাস্থল থেকেই আইএসএফ বিধায়ক নৌশাদ সিদ্দিকিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। লাঠি পেটা করতে অবরোধকারীদের দিকে পুলিশ তেড়ে গেলে পাল্টা আক্রমণ করেন আইএসএফ সমর্থকরা। বাঁশ, লাঠি নিয়ে আক্রমণ করা হয় পুলিশের উপর।
প্রথমে আক্রমণের মুখে পুলিশ কিছুটা সরে এলেও পরবর্তীতে উত্তেজিত সমর্থকদের ছত্রভঙ্গ করতে একের পর এক কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটাতে বাধ্য হয় পুলিশ। লাল্ বাজার থেকে ছুটে আসেন সিনিয়র পুলিশ আধিকারিকরা। আনা হয় বিরাট সংখ্যক পুলিশবাহিনী।
ভয় পেয়ে থেমে থাকেনি আইএসএফ কর্মীরা।পুলিশ কে লক্ষ্য করে দূর থেকে ঢিল ছুঁড়তে থাকেন কর্মী সমর্থকরা। ঘটনায় ভাঙচুর হয়েছে পুলিশের একটি কিয়স্ক। পুলিশের সঙ্গে ঘটনায় আহত হয়েছেন কয়েকজন আইএসএফ কর্মীও।
উল্লেখ্য, এদিন আইএসএফের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষ্যে ধর্মতলায় সভা ছিল তাদের।এরপর ভাঙড়ের গোলমালের খবর আসতেই দুপুরের পর থেকে ধর্মতলায় রাস্তা অবরোধ করেন আইএসএফ কর্মীরা।
এই গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় অবরোধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আইএসএফের পক্ষে। ধর্মতলায় এদিন একটি ম্যাটাডোরের ওপর কর্মী, সমর্থকদের নিয়ে ছিলেন নৌশাদ নিজেই । অবরোধের জেরে ব্যহত হয় যান চলাচল,আটকে পড়ে দূর পাল্লার বাসও। এক ঘণ্টার কাছাকাছি অবরোধ চলার পর পুলিশের তরফে অবরোধকারীদের সরে যেতে বললে,রুদ্র মূর্তি ধারণ করে আইএসএফ কর্মী সমর্থকরা।

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on telegram
Share on linkedin