������������


  • ফিফা আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ফুটবল ম্যাচে ভারত ও চীনের খেলা গোলশূন্য, অন্যবদ্য গোল কিপিং গুরপ্রীত সিং সান্ধুর

    Newsbazar24, ডেস্ক , ১৩ অক্টোবরঃ  আজ অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ফিফা আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে  ভারতীয় গোলকিপার গুরপ্রীত সিং সান্ধুর দুর্দান্ত  গোল কিপিংয়ের কাছে  চীন আটকে গেল । শুধু গুরপ্রীতের কথা বললে ভুল হবে । এদিন ভারতের ডিফেন্সের  সন্দেশ ঝিঙ্গান, আনাসরাও ডিফেন্সে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেন। যার ফলে ভারতীয় ফুটবলের ইতিহাসে এই প্রথমবার চীনের মাটিতে তাদের বিরুদ্ধে ম্যাচ ড্র করল ভারতীয় দল।তবে শেষ মুহূর্তে ফারুক চৌধুরীর  গোল হলে ম্যাচের ফলাফল অন্যরকম হতেই পারত। এদিন চীনের  বিরুদ্ধে খেলতে নামলেও, গুটিয়ে না থেকে ভারতীয় দল দাপটে  খেলে গেল যার  ফলে  ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্যভাবে শেষ হল  শনিবার সুজহাও অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ফিফা আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে ভারত একাধিক গোলের সুযোগ তৈরি করে। তবে চীনের  ছেলেরাও দুটো গোলের সুযোগ পান। যদিও গোলে অপ্রতিরোধ্য হয়ে দাঁড়ান গুরপ্রীত সিং সান্ধু। ম্যাচের ১৩ মিনিটে  বক্স থেকে প্রণয় হালদারকে পাশ বাড়ান সুনীল ছেত্রী। সেখান থেকে বল অনিরুদ্ধ থাপার কাছে যায় । ঠিক সেই সময় ডানদিক থেকে দৌড়ে এসে চলতি বলে  ডানপায়ে জোরালো শট নেন  প্রীতম কোটাল। তবে চীনের গোলকিপার সেভ না করলে দ্বিতীয় পোস্ট দিয়ে গোলে বল ঢুকতেই পারত। ১৭ মিনিটের মাথায় এবার গোলের সুযোগ পান সুনীল। তবে ফ্রিকিক পেলেও গোল করতে পারেননি তিনি। তাঁর শট বার পোস্টের উপর দিয়ে চলে যায়। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ফের আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়াতে থাকে চিন। পঞ্চাশ মিনিটে চিনের গউলিনের শট পোস্টে লেগে বেরিয়ে যায়। মিনিট ছয়েক পরই উদান্ত সিং ডানদিক থেকে বক্সে ঢুকে শট নিলেও অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৬৭ মিনিটে চিনের গাওয়ের শট গোলপোস্টের সামান্য উপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। ম্যাচের শেষলগ্নে চিন আরও চেপে ধরে ভারতকে। কিন্তু গুরপ্রীত সিং সান্ধুর তৎপরতায় ভারতের জালে বল ঢোকাতে পারেনি চিন। একদিকে ভারতের চেয়ে ফিফা  র‍্যাঙ্কিংএ   চীন ২১ ধাপ এগিয়ে । তার উপর  আবার চীনের কোচ  ইতালির বিশ্বকাপ জয়ী প্রাক্তন কোচ মার্সেলো লিপ্পি। এই দুইয়ের সংমিশ্রনে চীন অনেক এগিয়ে ছিল তাই  সুনীল ছেত্রী-জেজে’দের কাছে এই ম্যাচ কিন্তু মোটেও সহজ ছিল  না।  কিন্তু তবুও হাল ছেড়ে না দিয়ে লড়াই করে গেল ভারতের ছেলেরা এবং তারা  সব হিসেবনিকেশ বদলে দিল। কারণ, খাতায়-কলমে ম্যাচ ড্র হলেও, চীনকে তাদের ঘরের মাঠে রুখে দেওয়া যে জয়ের সমান।

  • যুব অলিম্পিকে ব্যাডমিন্টনের পুরুষ সিঙ্গলস ফাইনালে স্বর্ণপদক অধরাই থেকে গেল লক্ষ্য সেনের।

    Newsbazar24,ডেস্ক, ১৩ অক্টোবরঃ বুয়েনস আইরস,  : যুব অলিম্পিকের ব্যাডমিন্টনের পুরুষ সিঙ্গলসের ফাইনালে পৌঁছেও স্বর্ণপদক অধরাই থেকে গেল  ভারতীয় শাটলার লক্ষ্য সেনের। এবারও গত ২০১০ সালের  যুব অলিম্পিকে প্রণয় কুমারের মত তাকেও রৌপ্য পদক নিয়ে সন্তুস্ট থাকতে হল। তবে হেরে গেলেও তিনি সমানে সমানে লড়াই করে গেছেন তার প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্বে। আজ ভোররাতে ব্যাডমিন্টনের পুরুষ সিঙ্গলসের ফাইনালে হেরে রুপো পেলেন তিনি। সোনা জেতেন চিনের লি শিফেং। খেলার ফল ২১-১৫, ২১-১৯। ফাইনালে শুরু থেকেই ম্যাচের রাশ ধরে নেন লি। প্রথম গেমে ১৪-৫ ব্যবধানে এগিয়ে যান তিনি। কিন্তু পরপর  পয়েন্ট জিতে ম্যাচে ফেরেন লক্ষ্য। ম্যাচে ফিরলেও তাঁর পক্ষে গেম জেতা সম্ভব হলনা। প্রথম গেমে ২১-১৫-তে পরাজিত হন  লক্ষ্য। দ্বিতীয় গেমের শুরু থেকেই সমানে সমানে লড়াই চলে। ৭-৮ পয়েন্টে পিছিয়ে থাকার পর নিজের  মনেসংযোগ খুইয়ে  টানা চার পয়েন্ট হারান লক্ষ্য। তারপর লড়াই করে  ব্যবধান কিছুটা কমালেও  ২০-১৭-এ এগিয়ে যান লি। শেষদিকে দুটো ম্যাচ পয়েন্ট পেলেও  শেষরক্ষা করতে পারলেন না  লক্ষ্য। দ্বিতীয় গেমে ২১-১৯ পয়েন্টে হেরে যান। খেলা শেষে লক্ষ্য সেন বলেছেন,চিনের লি শিফেং কে অভিনন্দন স্বর্ণ পদক জেতার জন্য। আমি আমার আজকের খেলায় হতাশ, কিন্তু যুব  অলিম্পিকে এসে অনেক অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করলাম যা আমার আগামী ম্যাচ গুলোতে কাজে লাগবে। (ছবিতে বামে লক্ষ্য সেন)    

  • যুব অলিম্পিকের ব্যাডমিন্টনের পুরুষ সিঙ্গলসে পদক নিশ্চিত ভারতীয় যুব শাটলার লক্ষ্য সেনের.

    Newsbazar24, ডেস্ক, ১২ অক্টোবর : ভারতীয় ব্যাডমিন্টনের পুরুষ সিঙ্গলসের তথা জুনিয়ার এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন লক্ষ্য সেন  ইতিহাস থেকে আর একধাপ  দূরে। আগামীকাল যুব অলিম্পিকের ব্যাডমিন্টনের পুরুষ সিঙ্গলসের ফাইনালে জিতলেই প্রথম ভারতীয় শাটলার হিসেবে যুব অলিম্পিকে সোনা জেতার নজির গড়বেন তিনি।আজ সেমিফাইনালে জাপানের কোদাই নারাওকার বিরুদ্বে  প্রথম ম্যাচে  পিছিয়ে পড়েও দুরন্ত জয় ছিনিয়ে নেন লক্ষ্য। জুনিয়র এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন এই শাটলার প্রথম গেমে ১৪-২১ এ   হেরে যান।কিন্তু  দ্বিতীয় গেমে দুরন্ত  খেলে কামব্যাক করেন এবং  ২১-১৫ ব্যবধানে জেতেন। তৃতীয় গেমে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলে  ৩৬ মিনিট ধরে এবং  শেষপর্যন্ত ২৪-২২ ব্যবধানে জিতে ফাইনালে পৌছান এবং রৌপ্য পদক নিশ্চিত করেন  এই ভারতীয় শাটলার।  এর আগে, ২০১০ সালে যুব অলিম্পিকে প্রণয় কুমারও ফাইনালে পৌঁছালেও সোনা জয় করতে পারেন নি।

  • এশিয়ান গেমসের পর যুব অলিম্পিকেও স্বর্ণপদক শুটার সৌরভ চৌধুরির

    Newsbazar24, ডেস্ক, ১২ অক্টোবর :  এশিয়ান গেমসে  সোনা জয়ের পর  যুব অলিম্পিকে ও সাফল্য ভারতের  শুটার সৌরভ চৌধুরি। ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ২৪৪.২ পয়েন্ট পেয়ে সোনা জেতেন সৌরভ। যা সিনিয়র পর্যায়ের রেকর্ডের থেকে ০.৬ পয়েন্ট বেশি। গতকাল কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে ৫৮০ পয়েন্ট পেয়ে ফাইনালের জন্য যোগ্যতা অর্জন করেন  সৌরভ। জানা যায়  ফাইনালে সৌরভের সামনে কোন শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দিতা  গড়ে তুলতে পারেননি অন্যান্য প্রতিযোগীরা । প্রথম পাঁচ শট পর্যন্ত ০.৯ পয়েন্টে এগিয়ে ছিলেন সৌরভ। এরপর প্রতি রাউন্ডেই লিড বাড়তে থাকে তার । শেষপর্যন্ত কোরিয়ার সুং উন-র থেকে ৭.৫ পয়েন্ট বেশি পেয়ে সোনা জেতেন সৌরভ। 

  • মালদহে অনুষ্ঠিত ৬৪তম রাজ্য অনুর্ধ ১৪ বালিকা স্কুল ফুটবল প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান বর্ধমান জেলা দল

    Newsbazar 24, ডেস্ক, ১১ অক্টোবরঃ  মালদহ জেলা ক্রীড়া পরিষদের পরিচালনায় ৬৪তম রাজ্য অনুর্ধ ১৪ বালিকা স্কুল ফুটবল প্রতিযোগিতা গত মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছিল গাজোলের হাতিমারি হাইস্কুল মাঠে। রাজ্যের ৬টি দল জেলা স্কুল দল এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছিল। দল গুলি উত্তর ২৪ পরগনা, বর্ধমান, দক্ষিণ কলকাতা,মালদহ, বীরভূম ও পশ্চিম মেদিনীপুর। প্রথম দিনের খেলায় বর্ধমান ২-০ গোলে উত্তর ২৪ পরগনা,কে পরাজিত করেছে। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেমিফাইনালে অংশগ্রহণ করেছিল বীরভূম ও পশ্চিম মেদিনীপুর। তীব্র প্রতিদ্বন্দিতা পূর্ণ এই খেলায় পশ্চিম মেদিনিপুর জেলা দল বীরভূম জেলা দলকে ২-০ গোলে পরাজিত করে ফাইনালে উঠে। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বর্ধমান ৪-১ গোলে মালদহকে পরাজিত করে ফাইনালে উঠেছে।  আজ ছিল এই প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা ছিল। ফাইনাল খেলায় বর্ধমান ৪-০ গোলে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা দলকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ান হয়। বর্ধমানের সোনালী টুডু ২ গোল সুজাতা রায় ও নাসিমুন প্র্ত্যেকে ১ গোল করে করেন। ফাইনাল খেলায় ম্যান অফ দি ম্যাচ হন পশ্চিম মেদিনীপুরের বনামিকা হেমরম ও ম্যান অফ দি টুর্নামেন্ট হন বর্ধমানের সোনালী টুডু।        

  • ফার্স্ট ডিভিশন ডিস্ট্রিক্ট ফুটবল লীগ এবং সুপার ডিভিশন লীগের সমাপ্তি হলো বালুরঘাটে

    সরোজ কুন্ডু, বালুরঘাট:ভারী বর্ষণের মধ্যেও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা আয়োজিত ফার্স্ট ডিভিশন ডিস্ট্রিক্ট ফুটবল লীগ এবং সুপায়র ডিভিশন ডিস্ট্রিক্ট ফুটবল লীগ সমাপ্তি হলোl সমাপ্তি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া সংস্থার কার্যকরী সভাপতি অমর সরকার, সম্পাদক গৌতম গোস্বামী, বিশিষ্ট সমাজসেবী ও জেলার প্রাক্তন খেলোয়াড় বিপ্লব দেব সহ ক্রীড়া প্রেমীরাl ফাস্ট ডিভিশন ডিস্ট্রিক্ট ফুটবল লীগ এ চ্যাম্পিয়ন কাস্টহর এম -এ ফুটবল ক্লাব ও রানার্স ফাতাল্লুপুর এস -কে ওয়াই সংঘ, সুপার ডিভিশন ডিস্ট্রিক্ট ফুটবল লীগ এ চ্যাম্পিয়ন ফ্রেন্ডস ইউনিয়ন ক্লাব বালুরঘাট, রানার্স দিগরা স্পোর্টিং এসোসিয়েশন l চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স দলের হাতে ট্রফি ও অর্থ মূল্য তুলে দেন ক্রীড়া সংস্থার কার্যকরী সভাপতি অমর সরকার, ফুটবল সম্পাদক সত্য দেব, জেলার প্রাক্তন খেলোয়াড় বিপ্লব দেব, রেফারি এসোসিয়েশন এর সদস্য পীযুষ সরকার, ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদকর গৌতম গোস্বামীর সমাপ্তি ভাষণের মধ্য দিয়ে এই বছরের ফুটবল লীগ শেষ হয় !

  • চতুর্থ যুব অলিম্পিকে ভারত ২টি স্বর্ণপদক ও ৩টি রৌপ্যপদক লাভ করল

    Newsbazar24, ডেস্ক, ১০ অক্টোবরঃ এই বছর আরজেন্টিনার রাজধানী বুয়েনোস আয়ার্স-এ যুব অলিম্পিকের আসর বসেছে।  ভারত এবার চতুর্থ যুব অলিম্পিকের আসরে মোট ৪৬ সদস্যের দল পাঠিয়েছে। তাঁরা অংশ নিচ্ছেন ১৩টি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায়। এখন পর্যন্ত ভারত ২টি সোনা, ৩টি রুপো লাভ করেছে। ভারতের হয়ে প্রথম সোনা লাভ করলেন ১৫ বছর বয়সী মিজোরামের ভারোত্তোলক জেরেমি লালরিননুয়াঙ্গা।৬২ কেজি বিভাগে স্বর্ণপদক জিতলেন তিনি। গত সোমবার যুব অলিম্পিকে প্রথমে স্ন্যাচে ১২৪ কেজি ও পরে ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ১৫০ কেজি - মোট ২৭৪ কেজি ওজন তোলেন জেরেমি। বাকি প্রতিযোগীরা অনেক দূরে   ছিলেন ।দ্বিতীয় তুরস্কের  তপতাস কানের তোলেন ২৬৩ কেজি (১২২কেজি + ১৪১ কেজি)।  তৃতীয় কলম্বিয়ার ভিয়ার এস্তিভেন হোসে  ২৬০ কেজি (১১৫কেজি + ১৪৩ কেজি) ওজন তুলে ব্রোঞ্জ পদক জেতেন।  দ্বিতীয় সোনাটি আসে শুটিং থেকে। প্রথম ভারতীয় শুটার হিসেবে যুব অলিম্পিকে সোনা জিতলেন  মানু ভাকের। ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে ২৩৬.৫ পয়েন্ট পেয়ে সোনা জেতেন মানু। এর আগে যুব অলিম্পিকের মঞ্চে শাহু মানে ও মেহুলি ঘোষ রুপো জিতলেও শুটিং-এ সোনা এই প্রথম। এ ছাড়াও ৪৪ কেজি জুডোতে তাবাবি দেবী রৌপ্য পদক লাভ করেন।   (প্রথম ছবিতে পদক হাতে মানু ভাকের,দ্বিতীয় ছবিতে জেরেমি লালরিননুয়াঙ্গা)    

  • ২০১৮র পুরুষ বিভাগের বিশ্বকাপ হকির সরকারী ম্যাসকট ‘অলি’ র শুভ উদ্বোধন

    Newsbazar24, ডেস্ক , ৮অক্টোবরঃ  আজ ঊড়িষ্যার পুরীর সৈকতে ঊড়িষ্যা সরকারের ক্রীড়া এবং যুব কল্যান  দপ্তরের উদ্যোগে হকির বিশ্বকাপ ২০১৮র পুরুষ বিভাগের সরকারী ম্যাসকট ‘অলি’ র শুভ উদ্বোধন হল। ২০১৮র পুরুষ বিভাগের বিশ্বকাপ হকি শুরু হবে ২৮শে নভেম্বর ঊড়িষ্যার ভুবনেশ্বরে।        

  • ভারতের বিরুদ্ধে একদিবসীয় ও টি-২০ সিরিজের ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল ঘোষণা

    Newsbazar 24, মালদা, ৮ অক্টোবর : সোমবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড ভারতের  বিরুদ্ধে  আগামী  ২টি একদিবসীয়  ও ২টি টি-২০ সিরিজের দল ঘোষণা করে দিল। আগামী ২১ অক্টোবর থেকে শুরু হবে ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ একদিনের সিরিজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের  বিধ্বংসী ওপেনার ক্রিস গেইল ও স্পিনার সুনীল নারাইন নেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১৫ সদস্যের দলে।  ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোর্ডের পক্ষে জানানো হয়েছে, ব্যক্তিগত কারণে ভারত সফর ও তারপরের ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফরে তিনি থাকছেন না। তার সঙ্গে ৫ ওয়ানডে ও ৩ টি২০ ম্যাচের দলে রাখা হয়নি স্পিনার সুনীল নারাইনকেও। বাদ পড়েছেন ডোয়েন ব্রাভোও। তবে  টি২০ ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে থাকছেন অভিজ্ঞ ড্যারেন ব্রাভো ও অলরাউন্ডার কিরন পোলার্ড। আরেক অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল একদিনের ক্রিকেট ও টি২০ দুই দলেই খেলেন। কিন্তু চোটের জন্যই তিনি ওয়ানডে সিরিজে থাকছেন না। তবে তাঁকে টি২০ দলে রাখা হয়েছে। নভেম্বরে সিরিজ শুরুর আগেই তিনি সুস্থ হয়ে যাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। আলজারি জোসেফকেও ভারত সফরে রওনা হওয়ার আগে ফিটনেস টেস্টে পাস করতে হবে।  আগামী একদিনের বিশ্বকাপ, আবার তার পরের বছরই  টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য  কিছু নতুন মুখকে দলে নেওয়া হয়েছে ওপেনার চন্দরপল হেমরাজ, অলরাউন্ডার ফাবিয়ান অ্যালেন ও জোরে বোলার ওশানে থমাসকে। টেস্ট দলে থাকা তরুণ সুনীল অম্ব্রিশকেও সীমিত ওভারের দলে রাখা হয়েছে। তাদের বোর্ড জানিয়েছে, গত ২ বছর ধরে তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ ও বি দলের হয়ে এবং ক্যারিবয়ান প্রিমিয়ার লিগে ভাল খেলেছেন। জানা গিয়েছে গুয়াহাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সীমিত ওভারের এই দুই দলই শিবির করবে। তাই ভারতের ভিসা ও বিমানের টিকিট ইত্যাদি পেতে যাতে সমস্যা না হয়, তার জন্যই এত আগে থেকে সীমিত ওভারের ক্রিকেটের দুটি দল ঘোষণা করা হয়েছে। একদিনের আন্তর্জাতিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে নেতৃত্ব দেরৃবেন জেসন হোল্ডার। আর টি২০ দলটির নেতৃত্বে থাকছেন কার্লোস ব্রেথওয়েট। ওয়ানডের দলঃ  জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), ফাবিয়ান অ্যালেন, সুনীল অম্ব্রিশ, দেবেন্দ্র বিশু, চন্দরপল হেমরাজ, শিমরন হেতমিয়ের, শাই হোপ, আলজারি জোসেফ, এভিন লুইস, অ্যাশলে নার্স, কিমো পল, রোভমান পাওয়েল, কেমার রোচ, মারলন স্যামুয়েলস, ওশানে থমাস। টি-২০ দল  কার্লোস ব্রেথওয়েট (অধিনায়ক), ফাবিয়ান অ্যালেন, ড্যারেন ব্রাভো, শিমরন হেতমিয়ের, এভিন লুইস, ওবেড ম্যাকয়, অ্যাশলে নার্স, কিমো পল, খারি পিয়ের, কিয়েরন পোলার্ড, রোভমান পাওয়েল, দেনেশ রামদিন, আন্দ্রে রাসেল, শেরফানে রাদারফোর্ড, ওশানে থমাস। ।  

  • মোহনবাগান ক্লাবের নির্বাচনে টুটু বসু গোষ্ঠীর প্রচারে টলিউডের সুপার স্টার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়

    Newsbazar24, ডেস্ক, ৭ অক্টোবরঃ মোহনবাগান ক্লাবের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, হোসে ব্যারেটোর পর এবার  টলিউডের সুপার স্টার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।  টুটু বসু গোষ্ঠীর প্যানেল কে জয়ী করার আবেদন  জানালেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। আজ স্টার থিয়েটারে আয়োজিত নির্বাচনী প্রচারসভায় টুটু বসু গোষ্ঠীর  হয়ে হাজির হয়ে ছিলেন প্রসেনজিৎ ।  আগামী ২৮ অক্টোবর নির্বাচনের দিন ধার্য করা হয়েছে। উত্তর কলকাতার হাতিবাগান এলাকায় মোহনবাগান সদস্য  সমর্থক সবচেয়ে বেশী। তাই স্টার থিয়েটারে আয়োজিত নির্বাচনী প্রচারসভায় টুটু বসুর সমর্থনে  উপছে পড়া ভিড় ছিল । তবে চমক ছিল প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতি।   সবুজ-মেরুন সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, "যোগ্য ব্যক্তিকে দায়িত্ব দেওয়ার ভারটা আপনাদের উপর নির্ভর করবে। বাবা সময় সুযোগ পেলেই মোহনবাগানের খেলা দেখতে আসতেন। দল জিতলে ভুড়িভোজ আর না জিতলে দুঃখে খাওয়াদাওয়া বন্ধ হয়ে যেত।"পাশাপাশি, সহ সচিব পদপ্রার্থী সৃঞ্জয় বসুর সঙ্গে তাঁর সখ্যতার কথাও জানান অভিনেতা। এই সভা থেকেই টুটু বসু তাঁদের প্যানেলের বাকি ২১ প্রার্থীকে জেতানোর আবেদন করেন।