���������������


  • ভারতীয় মহাকাশ গবেষণায় আবার যুগান্তকারী সাফল্য উৎক্ষেপণ হল অত্যাধুনিক কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট।

    Newsbazar 24, ডেস্ক,  ৫ ডিসেম্বর :  ভারতীয় মহাকাশ গবেষণার ক্ষেত্রে আবার যুগান্তকারী সাফল্য। সফলভাবে উৎক্ষেপণ করা হল  GSAT 11  বা"বিগ বার্ড" অত্যাধুনিক কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট। এটা  ভারতের সবথেকে ভারী ও বড় স্যাটেলাইট । এর ওজন  ৫,৫৫৪ কিলোগ্রাম। গতরাতে ভারতীয় সময় ২টো ৭ মিনিটে ফ্রেঞ্চ গায়ানার কুরু মহাকাশ কেন্দ্র থেকে এই উৎক্ষেপণ করা হয়। যেসব জায়গায় কেবলের মাধ্যমে ইন্টারনেট পৌঁছাতে পারে না, সেই দুর্গম জায়গাতেও এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে মিলবে ইন্টারনেট পরিষেবা। এটা ৭৪ ডিগ্রী পূর্ব থেকে চালু থাকবে। ISRO-র চেয়ারম্যান কে শিভান বলেন, "GSAT 11 একটি অত্যাধুনিক কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট। এটি ISRO-র তৈরি সবথেকে ভারী ও বড় স্যাটেলাইট। BharatNet প্রোজেক্টের অধীনে প্রত্যন্ত এলাকা ও দুর্গম গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ব্রডব্যান্ডের কানেকশন পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে বেশিরভাগ চাহিদা পূরণ করতে পারবে।"এই স্যাটেলাইট তৈরী থেকে উৎক্ষেপণ পর্যন্ত  সম্পূর্ণ কৃতিত্ব টিম ইসরোর (ISRO)   GSAT 11 সফলভাবে উৎক্ষেপণের পর শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি তার টুইটে বলেছেন  "আমাদের মহাকাশ প্রোগামের ক্ষেত্রে এটি একটা বড় মাইলস্টোন। যা দেশের দুর্গম এলাকাগুলিকে যুক্ত করে কোটি কোটি ভারতবাসীর জীবনে পরিবর্তন নিয়ে আসবে। GSAT 11-র সফল উৎক্ষেপণের জন্য ISRO র গোটা দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি এবং বলেছেন  দেশের সবথেকে ভারী ও বড় কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট।" আরও একটি টুইট করেন মোদি,সেখানে তিনি জানিয়েছেন  "আমাদের  বিজ্ঞানীদের নিয়ে আমরা গর্বিত। যাঁরা উদ্ভাবন করতেই থাকেন ও উচ্চমানের কৃতিত্ব অর্জন করে লক্ষ্যমাত্রা গঠন করেন। তাঁদের অসাধারণ কাজ প্রত্যেক ভারতীয়কে উদ্বুদ্ধ করে।" ১নং ছবিতে ফ্রেঞ্চ গায়ানার কুরু মহাকাশ কেন্দ্র যেখান থেকে "GSAT 11 উৎক্ষেপণ হয়েছে। ২নং ছবিতে  "GSAT 11-র সফল উৎক্ষেপণ মুহূর্ত।   ৩ নং ছবিতে  "GSAT 11-র কমিউনিকেশন স্যাটেলাইটের বাইরের ছবি।       

  • আমেরিকায় মধ্যবর্তী নির্বাচনে নারী-শক্তির জয় জয়কার

    Newsbazar24, ডেস্ক,  ৭ নভেম্বর : এবারের আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচনে নারী-শক্তির জয় জয়কার।এই মধ্যবর্তী নির্বাচনে যত সংখ্যক মহিলা প্রার্থী হয়েছিলেন তা একটা রেকর্ড। সর্বোপরি যেভাবে মহিলা প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন তা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য । নেটিভ আমেরিকান থেকে  সোমালিয়ার উদ্বাস্তু, প্রথম গে-গভর্নর-  একাধিক নূতন দৃষ্টান্ত বিশ্ববাসী প্রত্যক্ষ করল এবারের  আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচনে। হাউসে রেকর্ড সংখ্যক মহিলা প্রার্থী জয় পেল। এটা আমেরিকার ইতিহাসে একটা ঐতিহাসিক ঘটনা। বুধবার পর্যন্ত মধ্যবর্তী নির্বাচনের যে ফল বেরিয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে হাউসে ৯৬ জন মহিলা প্রার্থী জয় পেয়েছেন। গতবার হাউসে নির্বাচিত হয়েছিলেন ৮৫ জন মহিলা। এবার নির্বাচিত হলেন ৯৬। প্রথম নেটিভ আমেরিকান মহিলা ডেমোক্র্যাট শারিস ডেভিডস ও দেব হ্যালান্ড প্রথম দুই নেটিভ আমেরিকান হিসাবে হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভ-এ নির্বাচিত হয়েছেন। শারিস ডেভিডস একজন লেসবিয়ান তার জয় আমেরিকার নির্বাচনের ইতিহাসে একটা নজির ।  রাজনীতিতে আসার আগে ডেভিডস একজন আইনজীবী এবং মিক্সড-মার্শাল আর্ট ফাইটার ছিলেন। মহিলা মার্কিন কংগ্রেসে এবার প্রথম মুসলিম মহিলা প্রতিনিধি হলেন  মিচিগান থেকে রশিদা তালাইব ও মিনেসোটা থেকে ইলাহান ওমর- এই দুই মুসলিম মহিলা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিসাবে জয় পেয়েছেন। তালাইব নির্বাচিত হয়েছেন মিচিগানের জন কনয়েয়ার্স-এর স্থানে। ইলাহান ওমর মার্কিন কংগ্রেসে এমন এক মুসলিম মহিলা প্রতিনিধি যিনি সোমালিয়া-আমেরিকান উদ্বাস্তু।   টেনিসি থেকে নির্বাচিত প্রথম মহিলা সেনেটর হলেন রিপাবলিকান মার্সা  । আমেরিকার অ্যারিজোনা প্রদেশ  প্রথম মহিলা সেনেটর পেতে চলেছে। সেখানে জোর লড়াই চলছে দুই মহিলা রিপাবলিকান মার্থা ম্যাকস্যালি ও ডেমোক্র্যাট ক্রিস্টেন সিনেমা-র মধ্যে। সুতরাং, এঁদের মধ্যে শেষ পর্যন্ত যেই জয়ী হন না কেন তাতে নিশ্চিত অ্যারিজোনা এবার মহিলা সেনেটর পাচ্ছে। আমেরিকার সর্বকনিষ্ঠ মহিলা সেনেটর হচ্ছেন অ্যালেক্সান্দ্রিয়া  ওকাসিও-কর্টেজ। মাত্র ২৯ বছর বয়সেই সেনেটে যাচ্ছেন তিনি। নিউ ইয়র্কের রিপাবলিকান প্রতিনিধি এলিসে স্টেফানিক-কে হারিয়ে দিয়েছেন। রিপাবলিকান ক্রিস্টি নোয়েম সাউথ ডাকোটার প্রথম মহিলা গভর্নর হচ্ছেন। তিনি ডেমোক্র্যাট বিলি সাটন-কে হারিয়ে দিয়েছেন। টেক্সাস থেকে এবার দু'জন হিসপানিক মহিলা মার্কিন কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়েছেন। যারা জন্মসূত্রে কিউবান, মেক্সিকান, পুয়ের্তো রিকান, দক্ষিণ বা মধ্য আমেরিকান অথবা স্প্যানিস সংস্কৃতির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত তাদের হিসপানিক বলা হয় আমেরিকায়। টেক্সাসের এল পাসো-তে রিপাবলিকান প্রার্থী ভেরোনিকা এসকোবার এবং হিউস্টন এলাকার ডেমোক্র্যাট সিলভিয়া গার্সিয়ার জয় প্রায় নিশ্চিত।

  • ভারত পাক বৈঠক বাতিলের প্রেক্ষিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে অবমাননাকর টুইট ইমরান খানের

    Newsbazar24 ডেস্ক, ২২ সেপ্টেম্বরঃ ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ পাকিস্তানকে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছিলেন যে সন্ত্রাসবাদ ও আলোচনা একসঙ্গে চতে পারে না। এরপরেও পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদ থেকে নিজের হাত গুটিয়ে নেয়নি। এখনও সীমান্তে সন্ত্রাস জারি রেখেছে। পাকিস্তানে নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান শপথ নেওয়ার পরে যৌথ আলোচনার আর্জি জানিয়ে প্রস্তাব পাঠান প্রধামন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভার ফাঁকে  দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের কথা হয়েছিল। সৌজন্য দেখিয়ে পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের সঙ্গে ভারতের বিদেশমন্ত্রকের বৈঠকে রাজী হয়েছিল। তবে বৃহস্পতিবার ফের সীমান্তে এক পুলিশকর্মীকে গলা কেটে হত্যা করার পাশাপশি কাশ্মীরে তিন পুলিশ কর্মীকে অপহরণ করে খুনের ঘটনায় পাকিস্তান সরাসরি জড়িত বলে অভিযোগ  করে ভারত  এদিন বৈঠক বাতিল করে দিয়েছে।  বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার আগে জানিয়েছিলেন, সুষমা স্বরাজ ও পাকিস্তানের মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি নিউ ইয়র্কে  এক বৈঠকে বসবেন। তবে ঐ বৈঠকের কোনও অ্যাজেন্ডা ঠিক হয়নি বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। এরপর এদিন বৈঠক বাতিলের খবর সামনে এসেছে। বৈঠক বাতিলের খবর সামনে আসতেই পাকিস্তান  নিজেদের অসন্তোষের কথা প্রকাশ্যে জানিয়েছে। পাকিস্থান বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে ভারত  বৈঠক বাতিলের যে কারণ জানিয়েছে তা একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়। পাকিস্তান সেনাদের ভারতীয় বিএসএফ জওয়ান খুনে কোনও  হাত নেই। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আরও একধাপ এগিয়ে নাম না করে ভারতের সর্বোচ্চ নেতাদের উদ্দেশে অবমাননাকর মন্তব্য করে টুইট করেছেন। ইমরান তার টুইটে বলেছেন, “আমার প্রস্তাব সত্ত্বেও ভারতের বৈঠক বাতিল করে দেওয়ার মতো ঘটনা ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও নেতিবাচক ভাবনা। সারাজীবন দেখে এসেছি, ক্ষুদ্র ব্যক্তিত্বরা বড় পদে বসে থাকেন। যাঁদের ভবিষ্যত দেখার কোনও দূরদৃষ্টি নেই।“     

  • আগুনে ভস্মীভূত ২০০ বছর পুরনো ন্যাশনাল মিউজিয়াম।

    Newsbazar24:আগুনে ভস্মীভূত ২০০ বছর পুরনো ন্যাশনাল মিউজিয়াম। ব্রাজিলের সবচেয়ে পুরনো এই জাদুঘরে বিরল প্রত্নসম্পদ থেকে শুরু করে ঐতিহাসিক স্মারক মিলিয়ে প্রায় দুই কোটি নিদর্শন সংরক্ষিত ছিল। ব্রাজিলের স্থানীয় সময় ২ সেপ্টেম্বর রবিবার রাতে এই অগ্নিকাণ্ডে বেশিরভাগই ধ্বংস হয়ে গিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিবিসি সূত্রে খবর, রবিবার রাতে জাদুঘর বন্ধ হওয়ার পর কোনও এক সময় ওই ভবনে আগুন লাগে। তবে কীভাবে আগুন লাগে তা এখনও স্পষ্ট নয়। জাদুঘরের ভেতরে কাঠের ফ্লোর ও কাগজের মতো দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই অগ্নিকাণ্ডে কেউ হতাহত হয়েছে কি না- সে বিষয়ে নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি এখনও। ব্রাজিলের সবচেয়ে প্রাচীন বিজ্ঞানভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃত এ জাদুঘরটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও সরকারিভাবে এখনও জানানো হয়নি। চলতি বছরের শুরু দিকে জাদুঘরটির দুশো বছর পূর্তি অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয়। একসময় পর্তুগিজ রাজপরিবারের বাসস্থান ছিল এই জাদুঘরটি। প্রেসিডেন্ট মিশেল তেমের এক টুইট করে লেখেন,"ব্রাজিলিয়ানদের জন্য এটা একটা দুঃখের দিন। ওই ভবনের সঙ্গে আমাদের ইতিহাসের অপরিমেয় ক্ষতি হল। জানা গেছে, ব্রাজিলের পাশাপাশি মিশরসহ বিভিন্ন দেশের প্রত্নসম্পদ সংরক্ষিত ছিল ওই জাদুঘরে। ডাইনোসরের হাড় এবং ১২ হাজার বছর আগের এক মানুষের মাথার খুলিও সংরক্ষিত ছিল জাদুঘরটিতে। ১৮১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল মিউজিয়াম অব ব্রাজিলের দেখভালের দায়িত্বে যৌথভাবে ছিল রিও দে জেনেইরো ফেডারেল ইউনিভার্সিটি এবং ব্রাজিলের শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

  • মাত্র ১৫ বছর বয়সে সম্পন্ন স্নাতক স্তরের পাঠ!

    News Bazar24: বয়স মাত্র ১৫। আর এই বয়সেই সম্পূর্ণ হয়েছে স্নাতক স্তরের পাঠ! বিএমন ‘বিস্ময় বালকে’র প্রতিভা দেখে তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাকাডেমিক স্তরের সর্বোচ্চ সম্মান ‘সুমা কাম লদে’ প্রদান করল দাভিসের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া।নাম তানিসক আব্রাহাম। ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকার এই খুদে নাগরিক এ বার পিএইচডি করতে চাইছে। বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশুনা করেছে তানিসক। এই বয়সে তার এতবড় সাফাল্য মার্কিন দুনিয়ায় নজিরবিহীন। তানিসক বলছে, “আমি ভীষণ খুশি এই সাফাল্য পেয়ে।” তার মা-বাবা জানিয়েছেন, বেশ কিছু বিষয়ে তানিসকের মারাত্মক আগ্রহ রয়েছে এবং আমরা বরাবরই উত্সাহ দিয়ে এসেছি ওকেজানা গিয়েছে, তানিসক এমন এক প্রযুক্তি তৈরি করেছে, যেটি অগ্নিদগ্ধ রোগীর হৃদস্পন্দন মাপার সাহায্য করবে। সে ডেভিস ল্যাবে পিএইচডি করতে চায়। তানিসক জানিয়েছে, ক্যানসারের উপর কাজ করতে চায় সে। ক্যানসার চিকিত্সায় নতুন দিগন্ত খোলার চেষ্টায় গবেষণা চালাবে তানিসক। দাভিসের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার স্নাতক ডিগ্রি গ্রহণ করেছে। আপনি এই খবর টা পড়লেন newsbazar24.com এ

  • আবার কেপে উঠলো ইন্দোনেশিয়া, সকাল সকাল ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়ার মাটি

    UNI: ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৪। ভূমিকম্পের ফলে এখনও পর্যন্ত ১০ জন প্রাণ হারিয়েছেন বলে জানা গেছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আহত বহু।বিশ্ব মানচিত্রে অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ ইন্দোনেশিয়া। এদিন স্থানীয় সময় পৌনে ৭টা নাগাদ কেঁপে ওঠে মাটি। জানা গেছে, ইন্দোনেশিয়ার লম্বক দ্বীপের মাতারাম শহর থেকে ৫০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে ছিল ভূমিকম্পের উপকেন্দ্র। ভূমিকম্পের জেরে সুনামির সতর্কতা জারি করা হয়েছে দ্বীপপুঞ্জে। উল্লেখ্য,ভূমিকম্পের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে লম্বক এলাকাটি। ভেঙে পড়েছে বহু বাড়ি। এই লম্বক দ্বীপে প্রায় ৩ লাখ মানুষের বাস বলে সেখানকার সরকারি সূত্রে জানা গেছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কম্পন অনুভূত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সবাই প্রাণ বাঁচাতে দৌড়ে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসে। মূল কম্পনের পর আরও প্রায় ১১ বার আফটার শক অনুভূত হয়। প্রশান্ত মহাসাগরীয় আগ্নেয় বলয়ে অবস্থিত হওয়ায় ইন্দোনেশিয়া ভূমিকম্পপ্রবণ। মাঝেমধ্যেই ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে দ্বীপপুঞ্জের মাটি। ভূমিকম্পের ফলে সুনামিরও আশঙ্কা রয়েছে দ্বীপপুঞ্জে। ইন্দোনেশিয়ায় সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্পটি হয় ২০০৪ সালে। পশ্চিম ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা উপকূলে সমুদ্রের গভীরে ৯.৩ মাত্রার ভূমিকম্পে সুনামির ভয়ঙ্কর স্মৃতি এখনও স্মৃতিতে টাটকা। আপনি খবর টা পড়লেন Newsbazar24.com এ

  • সন্ত্রাসবাদের পাশে দাঁড়াল না পাক আম জনতা

    News Bazar:এ বারের পাকিস্তানের নির্বাচনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ছত্র ছায়ায় ভোটে দাঁড়িয়ে ছিল বিপুল সংখ্যক জঙ্গি। যার জেরে উদ্বেগের পারদ চড়েছিল খোদ দিল্লি থেকে হোয়াইট হাউজ। কিন্তু বুধবারের নির্বাচনী ফলে দেখা গিয়েছে, একটিও আসন দখল করতে পারেনি জঙ্গি মদতপুষ্ট প্রার্থীরা।পঞ্জাব, পাখতুনখোয়ায় গোহারা হেরেছে ভোটে দাঁড়ানো হাফিজের ৫০ জন প্রার্থী। এর মধ্যে রয়েছে মুম্বই হামলার অন্যতম চক্রী হাফিজ সইদের ছেলে এবং জামাই। সারগোধা থেকে দাঁড়িয়ে হাফিজের ছেলে তালহা ১১ হাজার ভোটে হেরেছে। এ বারে আল্লাহ-ও-আকবর তেহরিক নামে একটি রাজনৈতিক দলের ব্যানারে দাঁড়িয়েছিল লস্কর প্রধানের অনুগামীরা। অন্যদিকে জামাত-ই-ইসলামি, দ্য জামাত-উল-উলেমা-ই-পাকিস্তান, দ্য মিলি আওয়ামি লিগের মতো জঙ্গি সংগঠনগুলি একত্র হয়ে পঞ্জাব এবং খাইবার পাখতুনখোয়ায় প্রাদেশিক নির্বাচনে মুতাহিদা মজলিস-ই-আমল নামে রাজনৈতিক দল তৈরি করা হয়। কিন্তু এই দলটিকে সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে ,উল্লেখ্য, লস্কর ই তইবাকে আগেই আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন হিসাবে চিহ্নিত করে রাষ্ট্রসংঘ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এমনকী ট্রাম্প প্রশাসনের চাপে পড়েই জঙ্গিদের মদত দেওয়া ইস্যুতে কোণঠাসা হয়েছে পাকিস্তান। এ বারের নির্বাচনে হাফিজের মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন মিল্লি মুসলিম লিগকে ভোটে লড়ার প্রস্তাব খারিজ করে দেয় পাক নির্বাচন কমিশন। দেড় হাজারের মতো জঙ্গি এ বারের নির্বাচনে লড়েছে বলে জানা গিয়েছে!আহলে সুন্নত ওয়াল জামাত নামে এই জঙ্গি সংগঠন আল কায়দার সঙ্গে যুক্ত থাকায় নিষিদ্ধ ঘোষণা করে আমেরিকা। যদিও এই জঙ্গি সংগঠনের নেতারও ভোটে লড়ার সুযোগ পায়। তেহেরিক ই লাবাইক পাকিস্তানের মতো ছোটো ছোটো জঙ্গি সংগঠনও এবারে ভোটে লড়েছে। কিন্তু কোনও দলই আসন দখল করতে পারেনি। ভোটে জয় কার্যত নিশ্চিত জেনে বুধবার রাতে সাংবাদিক বৈঠক করেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের সুপ্রিমো। তাঁর সরকার যে সংস্কারমূলক উন্নয়নে জোর দেবে, এ দিন তা স্পষ্ট করে দেন ভাবী প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি জানান, অগ্রাধিকার দেওয়া হবে দেশের দারিদ্র, বেকারত্ব দূর করার বিষয়ে। তাঁর সরকার গরিবের পাশে থেকে কাজ করবে বলেও জানিয়েছেন ইমরান। দেশের আর্থিক সংস্কার করতে চিনা মডেলের পথেই এগোতে চেয়েছেন তিনি।

  • পাক নির্বাচনের মুহূর্তে হাফিজ সইদকে বড়সড় ধাক্কা দিল ফেসবুক

    news bazar24: পাক নির্বাচনের মুহূর্তে হাফিজ সইদকে বড়সড় ধাক্কা দিল ফেসবুক,মুম্বই হামলার অন্যতম চক্রী তথা লস্কর ই তইবার প্রধান হাফিজ সইদের মদতপুষ্ট সমস্ত পেজ নিষ্ক্রিয় করল ফেসবুক সংস্থা।মিলি মুসলিম লিগকে নির্বাচনের লড়ার জন্য স্বীকৃতি দেয়নি কমিশন। লস্কর ই তইবাকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন চিহ্নিত করায় হাফিজ সইদের এই দলটির নির্বাচনের লড়ার আবেদন খারিজ করে দেয় কমিশন। হাফিজ সইদের সংগঠন মিলি মুসলিম লিগের তৈরি বেশ কয়েকটি ফেসবুক পেজ নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। সম্প্রতি পাক নির্বাচন কমিশনের কাছে জালি অ্যাকাউন্ট চিহ্নিত করতে সাহায্য চায় ফেসবুক। পরোক্ষভাবে পাক নির্বাচনে লড়ছে হাফিজ সইদ। তার অনুগামীরা আল্লাহ-ও-আকবর-তেহরিক নামে রাজনৈতিক দলের ব্যানারে ভোটে দাঁড়িয়ে বলে দাবি করেছে হাফিজ সইদ। এই দলটিকে ভোটে লড়ার স্বীকৃতি দিয়েছে কমিশন।বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে ফেসবুক। সব রাজনৈতিক দল ফেসবুকে প্রচার চালাচ্ছে। এমএমএল-র ফেসবুক পেজে ডিলিট করে দেওয়ায় প্রচার চালাতে পারছে না সমর্থকরা। এটা অন্যায় বলে দাবি মিলি মুসলিম লিগের।ফেসবুকের মাধ্যমে প্রভাব খাটিয়ে জালি প্রচার চালালে কড়া পদক্ষেপ করা হবে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দেয়ছে ফেসবুক সংস্থা।ফেসবুক কর্তা মার্ক জুকারবার্গ স্পষ্ট জানিয়েছে দিয়েছেন, ভারত, পাকিস্তান, ব্রাজিল, মেক্সিকো এবং অন্যান্য দেশের নির্বাচনে কড়া নজরদারি চালাবে ফেসবুক।

  • জোড়া শক্তিশালী বিস্ফোরণে রক্তাক্ত পাকিস্তান : মৃত্যু কমপক্ষে ৭৫ জনের

    news bazar 24: সাধারণ নির্বাচন ভেস্তে দিতে রাজনীতিকদের নিশানা করল সন্ত্রাসবাদীরা। মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৭৫ জনের। আহত হয়েছেন শতাধিক। বালুচিস্তান ও ও খাইবার পাখতুনওয়া প্রদেশে দুটি বিস্ফোরণ ঘটে। বালুচিস্তান প্রদেশের মাসটুঙ্গ এলাকায় বালুচিস্তান আওয়ামি পার্টির নেতা সিরাজ রাইসানিকে টার্গেট করে সন্ত্রাসবাদীরা। প্রাণ হারিয়েছেন তিনি। বালুচিস্তানের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নবাব আসলাম রাইসানির ভাই সিরাজ। কীভাবে বিস্ফোরণ, তা এখনও জানা যায়নি। প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করা হচ্ছে, আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছে।  তার কয়েকঘণ্টা আগে রাজনৈতিক দল মুতাহিদা মজলিস আমালের আকরম খান দুরানির সভাতেও বিস্ফোরণ ঘটেছে। সুস্থ আছেন দুরানি। পরে জখমদের দেখতে হাসপাতালে যান তিনি। তবে তাঁর গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচনের আগে ভেঙে পড়েছে আইনশৃঙ্খলা। বিভিন্ন জায়গায় একের পর এক হামলার মুখে পড়ছেন রাজনৈতিক নেতারা।যদিও পাক সরকার দাবি করেছিল, দেশে সমস্ত জঙ্গিদের খতম করেছে তারা। রাজনৈতিক প্রচারে নিরাপত্তার আশ্বাসও দিয়েছিল। হামলার নিন্দা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নাসির মুলক ও রাষ্ট্রপতি মামনুন হুসেইন।  সোমবার পেশোয়ারে আত্মঘাতী হামলায় নিহত হন আওয়ামি ন্যাশনাল পার্টির নেতা ও  প্রার্থী হারুন বিলোর। আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়। 

  • প্যারিসের একটি জেল থেকে উধাও পুলিসের তালিকায় কুখ্যাত গ্যাংস্টার রেদোয়াইন ফায়েদ

    news bazar24: হেলিকপ্টারে চড়ে উধাও আসামী। তা দেখে হতভম্ব ফ্রান্সের পুলিস। ঘটনাটি প্যারিসের একটি জেলের।প্যারিস পুলিসের তালিকায় কুখ্যাত গ্যাংস্টার হিসাবে পরিচিত সে,নাম রেদোয়াইন ফায়েদ।পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ফায়েদকে মুক্ত করতে রবিবার সন্ধ্যায় জেলের এক পরিত্যক্ত জায়গায় অবতরণ করে কপ্টারটি।যে সময় ফায়েদ তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলছিল,সে সময় দুই সশস্ত্র দুষ্কৃতী জেলে ঢুকে স্মোক্স বম্ব ব্যবহার করে। নিরাপত্তা রক্ষীদের চোখে ধূলো দিয়ে গরাদ কেটে বার করে নিয়ে আসে ফায়েদকে।পুরোটাই পরিকল্পনামাফিক করা হয়েছে পুলিস জানিয়েছে। এভাবে জেল পালানো ফায়েদের কাছে নতুন নয়। ২০১৩ সালে ডিনামাইট বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জেল থেকে চম্পট দেয় ফায়েদ।তবে এবার পুলিস অফিসারকে খুন করার অভিযোগে ২৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল বছর ছেচল্লিশের ফায়েদকে।