���������


  • জ্বালানি, রান্নার গ্যাস সহ একাধিক জিনিসের অগ্নিমূল্যের বিরুদ্ধে ভারত বনধের ডাক কংগ্রেসের।

    Newsbazar 24 ডেস্ক, ৭ সেপ্টেম্বরঃ কংগ্রেস আগামী সোমবার ১০ই সেপ্টেম্বর ভারত বনধের ডাক দিয়েছে । মোদী সরকারের  বিরুদ্ধে  জ্বালানি, রান্নার গ্যাস সহ একাধিক জিনিসের অগ্নিমূল্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে ভারত বনধের ডাক দিয়েছে কংগ্রেস। এদিন দিল্লীতে কংগ্রেসের তরফে সাংবাদিক সন্মেলন ডাকা হয়। সেখানে ভারতের সমস্ত  বিরোধী দল সহ  নাগরিক সমাজকেও এই প্রতিবাদে শামিল হতে আবেদন জানানো হয়েছে। কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সূরযেওয়ালা বলেছেন, পেট্রোল, ডিজেল, রান্নার গ্যাসের বর্ধিত মূল্যের সঙ্গে পাল্লা দিতে গিয়ে জনতার নাভিঃশ্বাস উঠছে। তাই কংগ্রেস ১০ তারিখ ভারত বনধের ডাক দিয়েছে। কংগ্রেসের অভিযোগ, পেট্রোল ডিজেল সহ পেট্রোলিয়ামজাত দ্রব্যের উপর শুল্ক চাপিয়ে ১১ লক্ষ কোটি টাকার জ্বালানি লুঠ করা হয়েছে। অবিলম্বে কেন্দ্রীয় শুল্ক কমাতে হবে। পাশাপাশি রাজ্যগুলিকেও ভ্যাট কমাতে হবে। এছাড়া পেট্রোল-ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনার দাবিও জানানো হয়েছে। সোমবার যাতে অন্য রাজনৈতিক দল স্বেচ্ছ্বাসেবি সংস্থা ও সাধারণ মানুষ প্রতিবাদ করে বনধকে সফল করেন, সেই আবেদন জানানো হয়েছে। (ছবিতেসাংবাদিক সন্মেলনে কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সূরযেওয়ালা ,ছবিটি এএনআই থেকে প্রাপ্ত)    

  • আসামের গুয়াহাটিতে ব্রহ্মপুত্র নদীতে এক ভয়ানক নৌকাডুবি, মৃত ২,নিখোঁজ ২৬ জন।

    Newsbazar, 24 ডেস্ক, ৫ সেপ্টেম্বরঃ আসামের গুয়াহাটিতে ব্রহ্মপুত্র নদীতে এক  ভয়ানক নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে। এখনও পর্যন্ত ২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া  গিয়েছে ।  নিখোঁজ রয়েছেন ২৬ জন। এই ঘটনার ফলে সমগ্র গুয়াহাটি জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ।সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই নৌকাটিতে ৪৫ জন যাত্রী ছিলেন । তাঁদের মধ্যে এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ ২৬ জন। জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। আরও জানা গিয়েছে , পড়ুয়াদের নিয়ে যাচ্ছিল এই নৌকাটি। সেই সময় মাঝ নদীতে  একটি  স্তম্ভএ  ধাক্কা মারে নৌকা। সঙ্গে সঙ্গে দুটি ভাগ হয়ে যায় নৌকার। জলে ডুবতে থাকেন নৌকার যাত্রীরা। আর্তনাদ ছড়িয়ে পড়ে।  দুর্ঘটনাস্থলে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে উদ্ধারের কাজ। পৌঁছে গিয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল খবর পাওয়ামাত্র সেখানে পৌছে যান এবং উদ্ধারের কাজ শুরু করে দেন।  

  • কেরলের সিপিএম বিধায়কের বিরুদ্বে যৌন হেনস্থার অভিযোগ দলের সদস্যার।

    Newsbazar, 24 ডেস্ক, ৫ সেপ্টেম্বরঃ কেরলের  সিপিএম বিধায়ক পিকে শশির বিরুদ্ধে  বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলেছেন দলের যুব শাখা ডিওয়াই এফআই-এর এক মহিলা সদস্য । এই ঘটনায় কেরলের  বাম  রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়েছে। যদিও কেরলের সিপিএমের রাজ্য কমিটি এই ঘটনা  নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন।   সূত্রে জানা যায়, কেরলের সিপিএমের পালাক্কাড পার্টি  অফিসে বিধায়ক পিকে শশি ডিওয়াই এফআই-এর  সদস্যা ঐ মহিলার সঙ্গে এই অভব্য আচরণ  করেন ।ঐ সদস্যা  এ নিয়ে সিপিএম ও ডিওয়াই এফআই-এর জেলা ও রাজ্য অফিসেও  অভিযোগ জানান। তবে বিধায়কের বিরুদ্ধে এখনও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে দাবি ওই অভিযোগকারী মহিলার। সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য বৃন্দা কারাতের কাছেও তিনি অভিযোগ পত্র পাঠিয়েছেন বলে  দাবী করেছেন। তবে তার কাছে থেকে এ ব্যাপারে  কোন উত্তর এখনও পাননি বলে তিনি জানিয়েছেন।  এদিকে, সিপিএমের  সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি  জানান যে তিনি এই সংক্রান্ত অভিযোগ পেয়েছেন আর তা কেরল রাজ্য  কমিটির কাছে  পাঠিয়ে দেওয়া  হয়েছে। পলিটব্যুরোর বহু সদস্য ইয়েচুরির এই বক্তব্যে বেশ অসন্তুষ্ট বলে জানা  গেছে। তারপর  পলিটব্যুরোর পক্ষ থেকে  একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়, কিছু মিডিয়া  দলের এক জনপ্রতিনিধি সম্পর্কে  খবর প্রকাশ্যে আনে এবং বলা হয়  পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব নাকি এই বিষয়টি খতিয়ে দেখছে ও কিছু নির্দেশ দিয়েছে। পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী   পলিটব্যুরো সরাসরি কোনও কিছু খতিয়ে দেখেনা এবং এ ক্ষেত্রেও কিছুই খতিয়ে দেখা হচ্ছে না। এই ধরনের অভিযোগ সংশ্লিষ্ট রাজ্য কমিটি দেখে থাকে, এক্ষেত্রে কেরল  রাজ্য কমিটিই দেখবে। এদিকে  অভিযুক্ত বিধায়ক শশির দাবি, গোটা ঘটনাই তাঁর বিরুদ্ধে বড়সড় 'চক্রান্ত'। এবং তাকে বিপাকে ফেলার জন্য  সাজানো ঘটনাকে হয়েছে।     

  • ফেসবুকে ৫ হাজার ফোলোয়ার ও নিউজ পোটাল গুলো পড়ার অভ্যাস না থাকলে আর মিলবে না টিকিট

    News bazar24: কম্পিউটার জানি না। Whattasaps রোজ খুলে দেখিনা। অনলাইন নিউজপোর্টাল গুলোর লিংক ক্লিক করিনা। এইসব বাহানা শেষ করতে হবে । সোস্যাল মিডিয়ায় পারদর্শী না হলে এবার থেকে আর মিলবে না টিকিট। এমন ই বিধান রাহুল গান্ধীর।  বলাবাহুল্য, মাঠে-ময়দানে নেমে জনসংযোগের থেকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মেই বেশি মনযোগ নিবেশ করছে সব রাজনৈতিক দলই। বিজেপি এই জগতে সাবেক সদস্য হলেও পাল্লা দিয়ে বিরোধীরাও দখল করতে চলেছে ডিজিটাল ভুমি। মধ্যপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনের টিকিট পেতে গেলে এ বার সোশ্যাল মাধ্যমে খাসা ফোলোয়ার থাকতেই হবে কংগ্রেস নেতাদের। এমনই নির্দেশ মধ্যপ্রদেশের প্রদেশ কংগ্রেসের। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানা গিয়েছে, মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেস কমিটি একটি চিঠি দিয়ে জানিয়েছে, যে সব কংগ্রেস নেতা ভোটে টিকিট পেতে ইচ্ছুক, তাঁদের ফেসবুকে ১৫ হাজার লাইক, টুইটারে ৫ হাজার ফোলোয়ার এবং হোয়াটসঅ্যাপে তৃণমূল স্তরে মজবুত একটি গ্রুপ থাকতেই হবে। না থাকলে, টিকিট নৈব নৈব চ- বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কংগ্রেসের তরফে।কংগ্রেসের এই নির্দেশিকায় বিধায়ক এবং সদস্যদেরও বলা হয়েছে সোশ্যাল মাধ্যমে নিজেদেরকে আরও জনপ্রিয় করে তোলার জন্য। ভোটে টিকিট পেতে ইচ্ছুক প্রার্থীরা তাঁদের সোশ্যাল মিডিয়ার পরিকল্পনার খসড়া জমা দিতে হবে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে।উল্লেখ্য, মধ্যপ্রদেশে ‘সাইবার ওয়ারিয়রস’ নামে একটি শক্তিশালী আইটি সেল রয়েছে বিজেপির। সেখানে প্রতি দিন ৬৫ হাজার কর্মী কাজ করে চলেছেন। তাদের সঙ্গে পাল্লা দিতে কংগ্রেস বানিয়েছেন ‘রাজীব কা সিপাহি’ নামে একটি আইটি সেল। রাজীব গান্ধীর হাত ধরেই প্রথম দেশে ডিজিটাল বিপ্লব ঘটে বলে দাবি কংগ্রেসের। সেই কারণেই এই নাম রাখা হয়েছে। তাদের এই সেলে প্রায় ৪ হাজার কংগ্রেস কর্মী কাজ করছে। মধ্যপ্রদেশ বিজেপির আইটি সেলের প্রধান শিবরাজ সিং ধাবি জানিয়েছেন, গত তিন মাসে ৬৫ হাজার কর্মী নিয়োগ করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই আরও ৫ হাজার কর্মী নিযুক্ত করা হবে।

  • গাড়ি লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। অল্পের জন্য রক্ষা পেলো শিবারাজ সিং চৌহান

    News Bazar24:কপাল ভালো তাই অল্পের জন্য ,রক্ষা পেলেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। শনিবার তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। মধ্যপ্রদেশের সিধি জেলার চুরহাটে শনিবার একটি ‘‌যাত্রা’ করছিলেন শিবারাজ সিং চৌহান। একটি বাসকে রথের আকার দেওয়া হয়। সেটির মাথায় দাঁড়িয়েই তিনি জনতার উদ্দেশ্যে হাত নাড়ছিলেন। সেসময় জনতার মধ্যে থেকে তাঁকে লক্ষ্য করে উড়ে আসে পাথর। মধ্যপ্রদেশ পুলির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওই পাথর মুখ্যমন্ত্রীর গায়ে লাগেনি। চুরহাট পুলিসের ইনস্পেক্টর বাবু চৌধুরী সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রী বর্তমানে গোটা রাজ্যে ঘুরছেন। সেই ‘আশীর্বাদ ‌যাত্রা’ উপলক্ষ্যেই তিনি সিধিতে এসেছিলেন। সেখানেই ওই ঘটনা ঘটে। এর বেশি তিনি কিছু বলতে অস্বীকার করেন। যে এলাকায় ওই ঘটনা ঘটেছে সেটি বর্তমানে রয়েছে বিরোধী কংগ্রেসের দখলে। চুরহাটের কংগ্রেস বিধায়ক অজয় সিংকেই এখন গোটা ঘটনার জন্য নিশানা করছে বিজেপি।

  • ভারতের ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রে নয়া দিশা দেখাবে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্ক-প্রধানমন্ত্রী

    Newsbazar 24, ডেস্ক, ১লা সেপ্টেম্বরঃ  ভারতীয় ডাক  বিভাগের পরিকাঠামোকে  ব্যবহার করে দেশের  ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রে নয়া দিশা দেখাতে  চলেছে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্ক। শনিবার দিল্লির তালকটোরা স্টেডিয়ামে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্কের  শুভ সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, এবার বাড়ি বাড়ি ব্যাঙ্কের সুবিধা পৌঁছে দেবেন পোস্টম্যানরা।  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আরও বলেন, ''বছর শেষ হওয়ার আগে দেশের ১ লক্ষ ৫৫ হাজার ডাকঘর থেকে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা প্রদান করা হবে। অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য আর ব্যাঙ্ক এ  যেতে হবে না। ঘরে ঘরে দিয়ে ব্যাঙ্ক একাউন্ট  খুলবেন ডাক কর্মীরাই''।  ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্কের মাধ্যমে দেশের প্রতিটি কোণায় পৌঁছে যাবে ব্যাঙ্ক। দূরদূরান্তে থাকা মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে। গরিব আদিবাসীরাও সুবিধা পাবেন। এক একজন ভারতবাসীর দরজায় পৌঁছে যাবে ব্যাঙ্ক । দেশের অর্থনীতি, সমাজ ব্যবস্থায় আমুল  পরিবর্তন আনবে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্ক। প্রধানমন্ত্রী মনে করিয়ে দেন, ''পুরনো ব্যবস্থার সংস্কার করে আমাদের সরকার নতুনভাবে রূপায়ন করছে''।   শুধু ব্যাঙ্কিং পরিষেবাই নয়, বরং মিউচুয়াল ফান্ড ও বিমাও করাবেন ডাক কর্মীরা। বাজাজ এলায়্যাঞ্জ জীবন বিমা সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করেছে আইপিপিবি। আরও সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করছে এই পেমেন্টস ব্যাঙ্ক। দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা হতে চলেছে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্টস ব্যাঙ্ক।   (ছবিটি দূরদর্শনের সৌজন্যে প্রাপ্ত)  

  • শুক্রবার ফের তেলের দাম বাড়াল রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানিগুলি।

    Newsbazar24:আজ থেকে সর ভারত জুড়ে বাড়লো তেলের দাম।অপরিশোধিত তেলের দাম বৃদ্ধি ও একসাইজ ডিউটি বাড়ার কারণেই তেলের দাম বেড়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা আইএএনএস। গত ২৯ মে তেলের দাম রেকর্ড বেড়েছিল। এবার তাকেও ছাপিয়ে গেল নতুন দাম।শুক্রবার দিল্লিতে পেট্রোলের দাম হল ৭৮.৫২ টাকা প্রতি লিটার। দেশের মধ্যে দিল্লিতেই পেট্রোলের দাম সবচেয়ে কম। মুম্বইয়ে পেট্রোলের দাম সর্বোচ্চ। বাণিজ্য নগরিতে শুক্রবার লিটারপিছু পেট্রোলের দাম হল ৮৫.৯৩ টাকা। কলকাতায় এই দাম ৮১.৪৪ টাকা ও চেন্নাইয়ে ৮১.৫৮ টাকা প্রতি লিটার।দাম বাড়ল ডিজেলেরও। দিল্লিতে শুক্রবার ডিজেলের দাম হল ৭০.২১ টাকা প্রতি লিটার। মুম্বইয়ে এই দাম ৭৪.৫৪ টাকা প্রতি লিটার। কলকাতায় লিটারপিছু ডিজেলের দাম ৭৩.০৬ টাকা ও চেন্নাইয়ে এই দাম ৭৪.১৮ টাকা প্রতি লিটার।গোটা দেশের মধ্যে দিল্লিতেই পেট্রোল-ডিজেলর দাম সবচেয়ে কম। কারণ দিল্লিতে ভ্যাটের হার সবচেয়ে কম। ভ্যাটের হার সবচেয়ে বেশি। মুম্বইয়ে। সেখানে এই হার ৩৯.১২ শতাংশ। দিল্লিতে এই হার ২৭ শতাংশ ও ডিজেলে ১৭.২৪ শতাংশ। আন্তর্জাতিক স্তরে শুক্রবার তেলের দাম কমছে। ভারতে এর ঠিক উল্টো। পাশাপাশি ডলারের তুলানায় টাকার দামও কমছে কয়েকদিন ধরে।

  • কাশ্মীরের অনন্তনাগে জঙ্গি হিজবুল জঙ্গি গোষ্ঠীর দুই জঙ্গি খতম, ফেরার পথে জঙ্গী হামলায় ৪ পুলিশ কর্মী শহীদ।

    Newsbazar24, ডেস্ক, ২৯ আগস্টঃ আজ সকালে শ্রীনগর থেকে প্রায় ৬০ কিমি দূরে জম্মু ও কাশ্মীরের অনন্তনাগে জঙ্গি হিজবুল জঙ্গি গোষ্ঠীর  দুই জঙ্গি  নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত।  সূত্রে জানা  যায় , বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে, অনন্তনাগের মুনিওয়ার্ড গ্রাম ঘিরে ফেলে নিরাপত্তা বাহিনী। একযোগে অভিযান চালায় পুলিশ, সেনা ও সিআরপিএফ। সেখানকার একটি বাড়িতে জঙ্গিরা আশ্রয় নিয়েছিল । এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতি বুঝতে পেরে গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। নিরাপত্তা বাহিনীও পাল্টা গুলি চালায়।  নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে দুই জঙ্গী খতম। তার মধ্যে একজন আলতাফ আহমেদ দার। বহুদিন ধরে পুলিশের হিট লিস্টে তার নাম ছিল। দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়ানের আহমারা ফল মান্ডিতে পুলিশের উপরে আচমকা হামলা চালাল  জঙ্গিরা। ঘটনায় অন্তত চারজন পুলিশ কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সোপিয়ানের বোনাগাম এলাকায় পুলিশের উপরে গুলি ছুড়তে শুরু করে জঙ্গিরা। তাতেই চারজনের প্রাণ গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সূত্রে জানা যায় যে তল্লাসী থেকে ফেরার পথে  পুলিশের গাড়ি খারাপ হওয়ায় তা সারাইয়ের কাজ চলছিল। গাড়ির পাশেই পুলিশকর্মীরা দাঁড়িয়ে ছিলেন।তাদের খুন করে অস্ত্র নিয়ে জঙ্গিরা পালিয়ে যায়। ঘটনার খবর পেয়েই এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী ছুটে যায়। গোটা এলাকা পুলিশ ঘিরে ফেলেছে। দুজন পুলিশ কর্মী ঘটনাস্থলেই মারা যান। হাসপাতালে দুজন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। (উপরের ছবি দুইটি এ এন আই থেকে প্রাপ্ত, একটিতে ২ জঙ্গী নিহত হবার পর পুলিশি টহল ও অপরটিতে হাস্পাতালের পথে ৪ পুলিশকর্মী)

  • আরএসএস আয়োজিত আলোচনা সভায় আমন্ত্রণ পেতে চলেছেন রাহুল গান্ধী ও সীতারাম ইয়েচুরি।

    Newsbazar 24, ডেস্ক, ২৭ আগস্টঃ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বিদেশে গিয়ে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘকে  প্রচন্ড সমালোচনা  করেছিলেন। তার পাল্টা হিসাবে  আরএসএস আয়োজিত দিল্লির এক অনুষ্ঠানে রাহুলকে অতিথি হিসাবে আমন্ত্রণ জানাতে চলেছে সংঘ। পাশাপাশি  সিপিএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরিকেও আরএসএস-এর ঐ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানাতে চলেছেন বলে সূত্রের খবর।  আগামী  ১৭ থেকে ১৯ সেপ্টেম্বর, দিল্লীতে তিনদিনব্যাপী 'ফিউচার অব ভারত - অ্যান আরএসএস পার্সপেক্টিভ' শীর্ষক এক আলোচনা সভার আয়োজন করছে আরএসএস। বক্তৃতায় বিভিন্ন সাম্প্রতিক ইস্যুতে আরএসএস-এর মত জানাবেন সঙ্ঘচালক মোহন ভাগবত। তৃতীয় দিনে এক প্রশ্নোত্তর পর্বের মুখোমুখিও হবেন তিনি। সেই ইস্যুগুলি নিয়ে বিভিন্ন মতাদর্শের মানুষদের মতামত জানার জন্য তাঁদের ভাষণ দিতে আমন্ত্রণ জানানো হবে। আরএসএসের মুখপাত্র অরুণ কুমার এদিন বলেছেন, আগামী ১৭-১৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হতে চলা অনুষ্ঠানে সংঘের তরফে সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে।আমন্ত্রিতদের তালিকা এখনও প্রস্তুত না হলেও সঙ্ঘ সূত্র জানা গিয়েছে আমন্ত্রিতদের তালিকায় রয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও  কমিউনিস্ট নেতা সীতারাম ইয়েচুরি ছাড়াও অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ।  বিদেশে রাহুল গান্ধী আরএসএস-কে মুসলিম ব্রাদারহুডের সঙ্গে  তুলনা করায় তিনি সঙ্ঘকে বোঝেনই না বলে তাঁর সমালোচনা করলেও ঘরোয়া আলোচনায় সঙ্ঘের অনেক নেতাই মেনে নিয়েছেন আরএসএস নিয়ে সমাজের একটা অংশে ছুতমার্গ রয়েছে। বিভিন্ন মতাদর্শের বক্তাদের হাজির করে সেই ছুতমার্গ কাটানোর চেষ্টাই করছে আরএসএস।  এর আগে সঙ্ঘের তরুন সেবকদের সামনে বক্তৃতা দিতে ডাকা হয়েছিল প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি তথা প্রবীন কংগ্রেসী রাজনীতিক প্রণব মুখোপাধ্যায়কে। সেই প্রচেষ্টা কার্যকর হয়েছে বলেই সঙ্ঘ নিয়ে দেশের মানুষের ধারণাটা পাল্টাতে, সঙ্ঘের বাইরের লোকেদের সঙ্ঘের অনুষ্ঠানে আরও বেশি করে অংশগ্রহণ  করাতে চাইছে আরএসএস।  আরএসএসের সভায় সাম্প্রতিক সময়ে গিয়েছেন রতন টাটাও। এখন রাহুল এবং সীতারাম ইয়েচুরির  কাছে আমন্ত্রণ গেলে তিনি কী করেন সেটাই দেখার।    

  • কেরলের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্যকে ৫০০ কোটি টাকা এবং মৃতদের ও গুরুতর আহতদের আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

    Newsbazar 24, ডেস্ক, ১৮ই আগস্টঃ কেরলের ভয়াবহ বন্যা  পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৫০০ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার সকালে কোচিতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নকে একথা জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গে আপতকালীন পরিস্থিতিতে মৃতদের পরিবারকে ২০০,০০০ টাকা এবং গুরুতর আহতদের ৫০,০০০ টাকা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন তিনি। শনিবার সকালেই তিরুঅনন্তপুরম থেকে কোচিতে চলে আসেন নরেন্দ্র মোদী। সেখান থেকে প্রথমে আকাশপথে বন্যা পরিদর্শনের কথা থাকলেও তা বাতিল করে তিনি বৈঠকে বসেন। যাতে উপস্থিত ছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন, রাজ্যপাল সাথাশিবম এবং রাজ্যের অন্যান্য মন্ত্রী থেকে শুরু করে তিন বাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ আধিকারীকরা। এই বৈঠকেই ৫০০ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্যের ঘোষণার পরই আকাশপথে বন্যা পরিদর্শনে বের হন তিনি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন এবং রাজ্যপাল। পরে প্রধানমন্ত্রী জানান পরিস্থিতি মোকাবিলায় এনডিআরএফ, বিএসএফ, সিআইএসএফ, রাফ নামানো হয়েছে। এরা সকলেই নানাভাবে উদ্ধারকাজে এবং দুর্গত এলাকায় যোগাযোগ স্থাপনের জন্য কাজ করছেন। এমনকী কেরলের একটা অংশে বায়ু সেনা ও নৌসেনা, কোস্ট গার্ডও কাজ করে চলেছে। বিভিন্ন স্থানে যে সব মানুষ গুরুতর অবস্থায় জলবন্দি হয়ে আছে তাদের আগে নিরাপদ স্থানে সরানোটাই লক্ষ্য বলেও জানান নরেন্দ্র মোদী। কেরলের বন্যা পরিস্থিতিতে আর্থিক সাহায্যের সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধারকারী দলকেও পাঠিয়েছে ওড়িশা। যার মধ্যে রয়েছেন ২২৫জন দমকল কর্মী, ৭৫টি লাইফ সেভিং পাওয়ার বোটের সঙ্গে ১৫ জন সুপারভাইজার। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার তরফেও কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২ কোটি টাকা দান করা হয়েছে। তামিলনাড়ুর ইরোডে থেকে শুক্রবার বিকেলে কেরলের বন্যা বিধ্বস্ত এলাকায় ২.৮ লক্ষ পানীয় জল পাঠানো হয়।