রাজ�য


  • হাসপাতালে ভর্তি বোনপোকে দেখে ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হলেন এক মহিলা

    news bazar24:কলকাতার বুকে পার্কসার্কাসেই ঘটে গেল ভয়ঙ্কর ঘটনা। হাসপাতালে ভর্তি বোনপোকে দেখে ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হলেন এক মহিলা। অভিযুক্ত ৩ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিস।ধৃতদের নাম বাপি মণ্ডল, সঞ্জীব সিং, ইন্দ্রজিত্‍ পাত্র।বোনপো ন্যাশানাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। বুধবার বিকালে তিনি তাকে দেখতে গিয়েছিলেন। স্টেশনে ট্রেনের অপেক্ষা করার সময়ে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে তিনি পার্কসার্কাস ও গুরুদাস হল্ট স্টেশনের মাঝে রেললাইনের ধারে যান। তখনই তিন যুবক তাঁকে খোলা আকাশের নীচে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।মহিলার চিত্কারে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান। শিয়ালদা জিআরপি থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। কিন্তু গোটা ঘটনা নিয়ে একটি রহস্য দানা বেঁধেছে। পুলিস স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে ,প্রশ্ন উঠছে, রাত ১টা নাগাদ ওই মহিলা পার্কসার্কাস স্টেশনে কী করছিলেন?ওই মহিলার সঙ্গে তাঁর এক পরিচিত ব্যক্তিও ছিল। ধৃত ৩ যুবক ওই ব্যক্তির সঙ্গে ছিল। ওই ব্যক্তির সঙ্গেই মহিলাকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। পরে স্থানীয়রা ছুটে এলে ওই ব্যক্তি পালিয়ে যায়, অন্যরা ধরা পড়ে যায়। গোটা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে পুলিস।

  • রাজ্য সরকার জ্বালানির ওপর বিক্রয় কর কমাক,আবেদন করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী

    news bazar24:রাজ্য সরকার জ্বালানির ওপর বিক্রয় কর কমাক,আবেদন করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী। গতকালের তুলনায় ১৯ পয়সা বেড়ে প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম ৮০ টাকা ১২ পয়সা। ডিজেলের দামও বাড়ছে পাল্লা দিয়ে।ক্রমেই উর্ধ্বমুখী পেট্রোল, ডিজেল। নাভিঃশ্বাস উঠছে আমজনতা।  গতকালের তুলনায় ১৯ পয়সা বেড়ে আজ শহরে ডিজেলের দাম লিটার প্রতি ৭১ টাকা ৮ পয়সা। এ নিয়ে টানা ১১ দিন উর্ধ্বমুখী জ্বালানি। বুধবার কুমারস্বামীর শপথের পর কর্নাটক বিধানসভা ভবনে চা-পানের আসরে পরবর্তী লড়াইয়ের ব্লু প্রিন্ট তৈরি করে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইস্যু পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি।পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে পশ্চিম সব আঞ্চলিক দলকে পথে নামতে বলেন মমতা। শুধু রাজ্যস্তরে নয়, জাতীয় স্তরেও আন্দোলন জোরদার করার আহ্বান জানান তৃণমূলনেত্রী। পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইতিমধ্যে রাজ্যজুড়ে পথে নামছে তৃণমূল।  মমতার প্রস্তাবে সম্মতি জানান উপস্থিত সব নেতা-নেত্রী। এরইমধ্যে মমতা-সরকারের কাছে এই দাবি রাখলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি।রাজ্য সরকার জ্বালানির ওপর বিক্রয় কর কমাক। 

  • হোয়াটসঅ্যাপ এ মেসেজ করে এবার থেকে মাংস সংক্রান্ত অভিযোগ জানাতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

    news bazar24:ভাগাড়কাণ্ডে তোলপাড় রাজ্য। পচা মাংসের আতঙ্কে দিশেহারা রাজ্যবাসী। এই পরিস্থিতিতে ভাগাড়কাণ্ড নিয়ে কড়া পদক্ষেপ করল রাজ্য সরকার।  ভাগাড়কাণ্ডের মোকাবিলায় এবার চালু হচ্ছে টোল ফ্রি নম্বর। চালু হচ্ছে নয়া হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরও। এই দুই নম্বরে ফোন ও মেসেজ করে এবার থেকে মাংস সংক্রান্ত অভিযোগ জানাতে পারবেন সাধারণ মানুষ।হোয়াটসঅ্যাপ করেও জানানো যাবে অভিযোগ। এই অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখবেন স্বাস্থ্য দফতর, পুলিস ও পুরসভার আধিকারিকরা। অভিযোগের ভিত্তিতে বিভিন্ন বাজার ও রেস্তরাঁয় হানা দেবেন তাঁরা।পচা মাংসের কারবার আটকাতে রাজ্যের সব ভাগাড়ে বৈদ্যুতিন চুল্লী বসানোরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

  • শান্তিপুরে বিজেপি কর্মী খুন:ভোট মিটলেও অশান্ত শান্তিপুর

    ডেস্ক :এবার খুন হলেন এক বিজেপি কর্মী। বিজেপি কর্মীর নাম বিপ্লব শিকদার। বুধবার রাত ১১ টা নাগাদ শান্তিপুর থানার হরিপুর পঞ্চায়েতের মেলের মাঠ এলাকায় গুলি করে খুন করা হয় সক্রিয় বিজেপি কর্মী বিপ্লব শিকদারকে (৪৫), অভিযোগের তীর শান্তিপুরের তৃণমূল আশ্রিত বাহিনীর দিকে। জানা গেছে হরিপুর পঞ্চায়েতের গ্রাম সংসদ আসনে তৃণমূল প্রার্থী সাধনা সরকারের হার মেনে নিতে পারেননি সাধনার স্বামী সুবল সরকার। গতকাল রাতে সদলবলে সশস্ত্র অবস্থায় বিজেপি র সক্রিয় কর্মী বিপ্লব শিকদারের বাড়ি ঢুকে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। একটি গুলি সরাসরি বুকে লাগে তার। শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় তাকে। এই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত অমল হালদার ও স্থানীয় দুষ্কৃতী রথীন দেবনাথকে গ্রেফতার করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ। অভিযুক্ত দুইজনই শান্তিপুরের বিধায়ক অরিন্দম ঘনিষ্ঠ বলে জানা গেছে। নির্বাচন থেকেই বিধায়ক বাহিনীর একের পর এক হামলায় রক্তাক্ত হচ্ছে শান্তিপুর। ক্ষোভে ফুঁসছে এলাকার সাধারণ মানুষ। আজ এই খুনের ঘটনার প্রতিবাদে শান্তিপুরে রাস্তা অবরোধ করে বিজেপি কর্মীরা।

  • প্রিসাইডিং অফিসার ও শিক্ষক রাজকুমার রায়ের মৃত্যুর ঘটনায় মালদার গাজোলে বিক্ষোভ ও মিছিল

    ডেস্ক,মালদা ২২মে : প্রিসাইডিং অফিসার ও  শিক্ষক রাজকুমার রায়ের মৃত্যু অভিযোগের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাল রাজ্যে ও রাজনৈতিক মহল ।পঞ্চায়েত ভোটের ডিউটিতে গিয়ে রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় স্কুল শিক্ষক রাজকুমার রায়ের  এঘটনা নিয়ে রাজ্যে জুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠে ।তার অঙ্গ হিসাবে সোমবার সন্ধ্যায় গাজোল শহরে বিক্ষোভ ও মিছিল ও এক পথ সভা অনুষ্ঠিত হয় গাজোলের শিক্ষক শিক্ষিকা ও রাজ্য সরকারী কর্মচারী সহ সাধারন মানুষের যুক্ত  মঞ্চের উদ্যোগে।তারা গোটা গাজোল শহরে মিছিল করে একটি পথ সভা করেন ।তারা প্রিসাইডিং অফিসার ও শিক্ষক রাজকুমার রায়ের মৃত্যুর প্রতিবাদে নিরপেক্ষ তদন্ত এবং দোষীদের শাস্তির দাবী জানান ।পাশাপাশি ভোট কর্মীদের ওপর আক্রমন এবং হয়রানীর বিরুদ্ধে পরবর্তী নির্বাচন গুলিতে ভোট কর্মীদের উপযুক্ত নিরাপত্তা  প্রদানের দাবী জানান ।প্রসঙ্গ ফাসিদেওয়ার কালাগাছের বাসীন্দা  পেশায় শিক্ষক রাজকুমার রায় রায়গনেজ বাসা বাড়া নিয়ে থাকতেন ।তিনি পঞ্চায়েত নির্বাচনে ইটাহারের বানবোল হাইস্কুলে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িইত্বে গিয়েছিলেন।কর্মসুত্রে রায়গনেজর সুদর্শনপুরে থাকতেন তিনি ।করনদিঘীর দোমহনীর রহতপুর হাইমাদ্রাসার শিক্ষক ছিলেন রাজকুমার বাবু ।তার পরিবারে মা,বাবা ,স্ত্রী সহ এক ছেলে রয়েছে ।নির্বাচনের কাজে গিয়ে সেদিন দুপর নাগাদ আচমকা নিরুদ্দেশ হয়ে যান তিনি ।এরপর পরের দিন সকালে তার মৃতদেহ রায়গনজ রেল স্টেশনের থেকে দু,কিমি দুরে তার ২ টুকরো মৃতদেহ উদ্ধার হয় বলে তারা জানান ।তারা বলেন ভোটের ডিউটিতে গিয়ে রাজকুমারের মত অকালে যেন কোন ভোট কর্মীর প্রান না যায় বা এই রুপ ঘটনার পুনরাবৃতি যাতে ভবিষতে অন্যে কারো সঙ্গে না ঘটে তাই তাদের এ বিক্ষোভ ও মিছিল পথ সভা ।      

  • রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মেধা তালিকাতে বাংলা অন্য রাজ্য থেকে এগিয়ে।

    ডেস্ক, ২৩শে মেঃ রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মেধা তালিকাতে বাংলা  অন্য রাজ্য থেকে এগিয়ে।  মেধা তালিকার প্রথম দশজনের মধ্যে  পশ্চিমবঙ্গের পড়ুয়ার সংখ্যাই বেশি।   প্রথম স্থান অধিকার করেছেন কলকাতা সাউথ পয়েন্টের অভিনন্দন বসু। মেয়েদের মধ্যে প্রথম হয়েছেন আয়ুষি বিদ্যান্ত। মেধা তালিকায় তাঁর স্থান দশ নম্বরে। জয়েন্টে ক্রমানুযায়ী প্রথম  দশের মধ্যে রয়েছেন যথাক্রমে সাউথ পয়েন্টের অভিনন্দন বসু, হরিয়ানা বিদ্যামন্দিরের দীদীপ্য রায়, ডিপিএস রুবি পার্কের অর্চিস্মান সাহা, সেন্ট টমাসের শুভম আগরওয়াল, এপিজে স্কুলের দেবজ্যোতি কর, শ্রী শ্রী অ্যাকাডেমির নমন বিয়ানি, দুর্গাপুরের হেমশিলা মডেল স্কুলের ঋত্বিক গঙ্গোপাধ্যায়, অ্যাডামাস স্কুলের রণজয় মিদ্যা, সেন্ট জেভিয়ার্স রাঁচির অভিষেক শ্রীবাস্তব এবং বিশাখাপত্তনমের ফিটজির ছাত্রী আয়ুষি বিদ্যান্ত। এই বছর মোট পরীক্ষার্থী ছিলেন প্রায় ১ লক্ষ ২৫ হাজার ছাত্রছাত্রী।   কৃতকার্য হয়েছে ১ লক্ষ ৫ হাজার ৮১ জন। সবথেকে বেশি পশ্চিমবঙ্গ বোর্ড থেকে সফল হয়েছে ৬৪ শতাংশ পড়ুয়া। তার মধ্যে উচ্চমাধ্যমিক সংসদ থেকে সফল হয়েছেন ৪৭ শতাংশ। সিবিএসই-র সাফল্য ২৮ শতাংশ। বিহার বোর্ডের সাফল্য ১৩ শতাংশ। আইসিএসই বোর্ডের সাফল্য ৫ শতাংশ। অন্যান্য বোর্ড ৭ শতাংশ। জয়েন্টের পাশের হার এবার ৪.৫ শতাংশ বেড়েছে। ফার্মাসিতে ১ লক্ষ ৪ হাজার জন সফল হয়েছেন। গতবারের তুলনায় ৪.৪ শতাংশ বেড়েছে সাফল্যের হার। পরের বছর জয়েন্টের সম্ভাব্য তারিখ ২১ এপ্রিল। বোর্ড চেয়ারম্যান জানিয়ে দেন বিকেল চারটে থেকে ওয়েবসাইটগুলিতে ফল দেখতে পাবেন পরীক্ষার্থীরা। এদিন ইঞ্জিনিয়ারিং, আর্কিটেকচার ও ফার্মাসির কোর্সে প্রবেশিকা পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ড একইসঙ্গে জানিয়েছে, এবার র‍্যাঙ্ক-কার্ড ডাউনলোড করা  যাবে বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে। এই ওয়েবসাইটটি হল www.wbjeeb.nic.in।  এছাড়া পরীক্ষার্থীরা নিজেদের র‍্যাঙ্ক  দেখতে পাবেন বোর্ডের ওয়েবসাইট www.wbjeeb.in-এও।  ৩১ দিনের মাথায় জয়েন্টের ফল প্রকাশ করা হল। ফলে পরীক্ষার্থীরা বাড়তি সুবিধা পাবেন এবার। আগে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার পর ফল প্রকাশিত হত। ফলে অনেক পড়ুয়া অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে যেতেন। তাঁরা কলেজে ভর্তি হয়ে যেতেন। তারপর জয়েন্টের সুযোগ মিললে কলেজ ছেড়ে দিতেন।  

  • নদীয়ার বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিকদের ওপর হামলার উস্কানি, জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ সকল সাংবাদিক :

    অভিজিৎ লুইস সরকার : পঞ্চায়েত ভোটের আগের থেকে শুরু করে ভোটের শেষ অবিধি জেলার বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিক, বিশেষ করে যে সকল সাংবাদিক শাসক দলের বিপক্ষে সংবাদ পরিবেশন করেছে,তাদের দেখে নেওয়ার হুমকী দেওয়া শুরু করেছে শাসক দলের কিছু নেতা।এরই প্রতিবাদে আজ নদিয়ার জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানালো সাংবাদিকরা। উলেখ্য, ভোটের দিন শান্তিপুরে তৃনমূলের বাইক বাহিনীর সদস্যদের বাইক পোড়ানো এবং এক তৃনমূল ছাত্র নেতার গণপ্রহারে মৃত্যুর ঘটনার সংবাদ করা নিয়ে শান্তিপুরের বিধায়ক ও বিধায়ক ঘনিষ্ঠ কুমারেশ চক্রবর্তী এক জনসভায় সাংবাদিকদের হাতের আঙুল কেটে নেওয়ার হুমকী দেন।এই বক্তব্যের অডিও ও ভিডিও রেকডিং নিয়ে সকল সাংবাদিকদের নিরাপত্তার স্বার্থে আজ সকল সাংবাদিকরা জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান। আগামীতে জেলার বিভিন্ন স্থানে মৌন মিছিল করার কথাও তাদের জানানো হয়। প্রশাসন অবিলম্বে বিষয় দেখার আস্বাস দিয়েছেন। অভিযোগ জানানো হচ্ছে শিক্ষামন্ত্রী ও জেলার পরিদর্শক পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছেও।

  • আগামীকাল ইঞ্জিনিয়ারিং জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হবে।

    Newsbazar, ডেস্ক, ২২শে মেঃ আগামীকাল জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হতে চলেছে। শুধুমাত্র ইঞ্জিনিয়ারিং, আর্কিটেকচার, ফার্মাসি ইত্যাদি বিভাগের ফল জানা যাবে। এ বৎসর সারা দেশে মেডিক্যাল এন্ট্রান্স অভিন্ন এক পরীক্ষার মাধ্যমে হয়েছে,সেই জন্য তার ফল এখনই প্রকাশিত হচ্ছে না। এই বৎসর ইঞ্জিনিয়ারিং,এ জয়েন্ট এন্ট্রান্স হয়েছিল গত ২২শে এপ্রিল ।প্রায় ১মাসের মাথায় ফলাফল প্রকাশিত হবে।   উল্লেখ্য,জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার ফল (www.wbjeeb.in/https://wbjeeb.nic.in)সাইটে দেখা যাবে । এ বছরে মোট জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ লক্ষ ২৫ হাজার ৭৫ ছিল ৷ যা গতবারের থেকে ৬.৫ শতাংশ বেশি ৷ পরীক্ষা পরিচালনার জন্য মোট ৪৪৫ পর্যবেক্ষক নিয়োগ করেছে বোর্ড ৷ মোট ৩৩৯ টি কেন্দ্রে পরীক্ষা নেওয়া হয় ৷ রাজ্যে ৩৩৪, ত্রিপুরায় ৪, অসমে ১ ৷ উল্লেখ্য, এবছরে বেশ কড়াকড়ির সঙ্গে জয়েন্ট পরীক্ষা সংগঠিত হয়। পরীক্ষা কেন্দ্রের নিরাপত্তা ব্যবস্থা বেশ আঁটোসাঁটো ছিল। পরীক্ষার্থীদের বোর্ডের পক্ষ থেকে ঘড়ি ও লেখার পেন দেওয়া হয়েছিল। মোবাইল ফোন ব্যবহারের অনুমতি হলের মধ্যে শিক্ষকদের ছিল না  ছিল জয়েন্ট এন্টান্স বোর্ডের সদস্য, ভ্রাম্যমাণ পর্যবেক্ষক ও সেন্টার ইনচার্জদের।    

  • ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় বিরল প্রজাতির তক্ষক উদ্বার,ধৃত ২

    ডেস্ক, মালদা, ২২শে মেঃ বিরল প্রজাতির চারটি তক্ষক সহ দুইজনকে আটক করল বি এস এফ।  ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় ওই তক্ষক গুলি বাংলাদেশে পাচারের চেষ্টা করছিল অভিযুক্তরা। জানা যায় ,মালদা জেলার হবিবপুর থানার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকা থেকে সন্দেহভাজন দুই যুবককে আটক করে বিএসএফ। ধৃতদের তল্লাশি চালিয়ে তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় বিরল প্রজাতির চারটি তক্ষক। বাজারমূল্য প্রায় কোটি টাকা। কি উদ্দেশ্যে পাচারকারীরা পাচারের চেষ্টা করছিল তা তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।  বিএসএফ উদ্ধার হওয়া তক্ষক ধৃতদের বনদফতরের হাতে তুলে দেয়। ধৃতদের নাম,হারান বিস্বাস(২৮) ও শিবা বিস্বাস(২৫)। বাড়ি হবিবপুর থানার নন্দক এলাকায়। ধৃতদের জেলা আদালতে তুলা হয়।

  • মালদায় পথ দুর্ঘটনায় গৃহশিক্ষকের মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা

    ডেস্ক, মালদা, ২২শে মেঃ পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় এক সাইকেল আরোহীর মৃত্যু। সাইকেল আরোহীর মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভালুকা পুলিশ ফাঁড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ পরিজনদের। ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার ভালুকা এলাকায়, মালদা চাঁচল রাজ্য সড়কে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতর নাম,হোসেন আলী(৫৫)।  পেশায় তিনি ছিলেন, গৃহশিক্ষক। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ভোর পাঁচটা নাগাদ, হরিশ্চন্দ্রপুর ২ নং ব্লকের বেগুনবাড়ি গ্রাম থেকে ভালুকায় যাচ্ছিলেন টিউশনি পড়াতে।  এমন সময় হঠাৎ করে একটি পিকআপ ভ্যান তাকে ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার।  পরিজনদের অভিযোগ, পরিবারের লোক না আসতেই মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ থানায় নিয়ে যায়। পুলিশের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হয়ে পরিবারের লোকেরা এবং স্থানীয়রা পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখায়। পুলিশ ফাঁড়ির ভিতরে ঢুকে বিক্ষোভ দেখায়। উত্তেজনা সৃষ্টি হয় এলাকায়।  জানা গিয়েছে ঘাতক পিকআপ ভ্যানটি কে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তর জন্য মর্গে পাঠায়। তবে কিভাবে দুর্ঘটনাটি ঘটলো তা তদন্ত শুরু করেছে ভালুকা ফাঁড়ির পুলিশ।

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবস্থা আগামীদিনে হিটলারের মতো হবে-সুজন চক্রবর্তী

    Newsbazar,ডেস্ক, ২২শে মে  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবস্থা আগামীদিনে হিটলারের মতো হবে বলে হুশিয়ারী দিলেন বিধানসভার বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। । বারাকপুরের ছাত্র যুব উৎসবে যোগ দিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে এই ভাষায় আক্রমন করলেন  সিপিএম নেতা ও বিধায়ক  সুজন চক্রবর্তী। তিনি বলেন, 'হিটলার চেয়েছিলেন ১০০ শতাংশ আসনে জিততে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাই  চাইছেন।  তবে তার  পরিণতিটা  মাথায় রাখা উচিত। এসএফআই-এর ডাকেব্যারাকপুরে  ছাত্র যুব উৎসবে যোগ দিতে গিয়ে তিনি  বলেন, 'রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন কর্ণাটক যাচ্ছেন বিরোধী জোট গড়তে। খুব ভালো কথা।  কিন্তু বাংলায় কী চলছে, সাম্প্রতিক নির্বাচনে কী হয়েছে, সে কথা কি মুখ্যমন্ত্রী বলবেন কর্ণাটকে গিয়ে?' এখানে বিরোধীশূন্য পঞ্চায়েত গড়ার জন্য বিরোধীদের ঘর বাড়ি জালিয়ে দেওয়া হয়েছে, নমিনেশান ফাইল করতে দেওয়া হয়নি। এমনকি মহিলা প্রাথীদের পুরুষ দিয়ে প্রকাশ্য রাজপথে লাঞ্ছিত ও শ্লীলতাহানি করা  হয়েছে। এতে গোটা দেশের কাছে বাংলার মুখ ধূলায় লুটিয়েছে ।    সুজনের কথায়, 'কর্ণাটকে অনেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীই আমন্ত্রিত। তাঁদের সামনে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী আপনি কি মুখ খুলতে পারবেন, গণতন্ত্র নিয়ে। বলতে পারবেন, যে আমার রাজ্যেও গণতন্ত্রের জয় হয়েছে।' সুজন বলেন, 'রাজনীতিতে এখন লুম্পেনদের রাজত্ব চলছে। লুম্পেনদের মাথায় রয়েছে  শাসকদলের হাত রয়েছে। সেইসঙ্গে আছে পুলিশের বরাভয়।'    

  • পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপির জয়ী প্রার্থীদের ঘরে ফেরানোর আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি।

    Newsbazar,ডেস্ক, ২২শে মে  রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফল বেরিয়ে যাবার পড়েও  বিজেপি জয়ী প্রার্থী সহ কর্মীদের নিজের ঘড়বাড়ী ছেড়ে কোথায়ও পার্টী অফিশে আবার অনেককে  ভিনরাজ্যে আশ্রয় নিতে হয়েছে! প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে এই অভিযোগ  জানিয়েছেন বিজেপির প্রায় দুই শতাধিক কর্মীর পরিবার। তার নিজেদের বসতবাটিতে ফিরে যেতে চান । তৃণমূল কংগ্রেস ও পুলিশের শাসানির জেরে তাঁদের ঘরছাড়া হতে হয়েছে বলে অভিযোগ। অধিকাংশ ঘরছাড়ারা মালদহের বাসিন্দা। পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর বিজেপি এই জেলায় প্রধান বিরোধী শক্তি হয়ে উঠতেই তাদের উপর আক্রমণ নেমে আসে বলে অভিযোগ। সেই কারণেই ঘর ছাড়তে বাধ্য হন তাঁরা। প্রাণ বাঁচাতে অনেকে মালদা জেলা পার্টী অফিসে আবার অনেকে  ঝাড়খণ্ডের মাড়োয়ারি ধর্মশালায় আশ্রয় নিয়েছেন। এই অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন ঘরছাড়ারা। অভিযোগ, পঞ্চায়েত ভোটে জয়ের পর সার্টিফিকেট নিতে যাওয়ার সময় থেকেই বাধা আসে শাসক দলের স্থানীয় নেতৃত্বের। ফলে  অনেক জয়ী প্রার্থীদের সার্টিফিকেট নেওয়া হয়নি । বাধ্য হয়ে প্রাণের ভয়ে তারা পালিয়ে আসেন সার্টিফিকেট না নিয়েই। তারপর থেকে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ। তৃণমূলকে সমর্থন না করলে, তাদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়। হুমকি দেওয়া হয় মারধরের। সেই কারণেই ভিটেমাটি ছেড়ে তারা নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে বেরিয়ে পড়েন। আতঙ্কে তারা এখনই বাড়ি ফিরতে চাইছেন না। প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁদের কাতর আবেদন যাতে তারা বাড়ী ফিরতে পারেন তার ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য ।  

  • মালদায় কর্তব্যরত অবস্থায় এক বিএসএফ জওয়ানের আত্মহত্যা।

    ডেস্ক, ২১ মেঃ মালদা, ২১ মে :মালদা থানার নারায়নপুরে ৪৪ নম্বর ব্যাটেলিয়নের এক বিএসএফ  জওয়ানের কর্তব্যরত অবস্থায় আত্মহত্যার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল নারায়ণপুরে।  মৃত বিএসএফ জওয়ানের নাম শংকর ছেত্রী (৩৪)। গতরাতে নিজের সার্ভিস রাইফেল চালিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে জানা গেছে ।  ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।  সূত্রে জানা যায় , শংকরবাবুর বাড়ি নেপালে। তাঁর পরিবার ও আত্মীয়রাও নেপালে থাকেন। তিনি সিকিমে তার এক আত্মীয়-র বাড়ীতে থাকতেন। সেখানে থেকে পড়াশুনা করেন  এবং  সীমান্তরক্ষী বাহিনীর চাকরিতে যোগ দেন । তিনি বাড়িতে ছুটি কাটিয়ে  কিছুদিন আগে আবার  কাজে যোগ দেন। গতকাল নারায়ণপুরে ৪৪ নম্বর ব্যাটেলিয়নের ক্যাম্পাসেই তাঁর ডিউটি ছিল। ডিউটি চলাকালীন  রাইফেলের নল চিবুকে ঠেকিয়ে গুলি চালান। গুলি মাথা ফুঁড়ে বেরিয়ে যায়। তড়িঘড়ি তাঁকে মালদা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরাও তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। কী কারণে শংকরবাবু আত্মঘাতী হলেন, তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে মালদা থানার পুলিশ।

  • রাজীব গান্ধির ২৮ তম মৃত্যু বার্ষিকিপালন।

    ডেস্ক, ২১সে মেঃ সোমবার সারা রাজ্যের সাথে সাথে মালদা জেলাতেও মহাসাড়ম্বরে পালিত হল, প্রয়াত প্রধান মন্ত্রী রাজীব রত্ন গান্ধীর ২৮ তম মৃত্যু বার্ষিকি। পুরাতন মালদা শহর কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ত্রদিন এই দিনটি যথাযথ মর্যাদার সহিত পালন করা হয়। রাজীব রত্ন গান্ধী ছিলেন ভারতের সপ্তম প্রধানমন্ত্রী। তিনি ইন্দিরা নেহেরু ও ফিরোজ গান্ধীর পুত্র। ১৯৮৪ সালের ৩১ শে অক্টোবর মায়ের মৃত্যুর দিন মাত্র চল্লিশ বছর বয়সে তিনি দেশের কনিষ্ঠতম প্রধানমন্ত্রী রুপে কার্যভার গ্রহণ করেন। ১৯৯১ সালের ২১ শে মে মারা যান তিনি। সোমবা ছিল তার ২৮ তম মৃত্যু বার্ষিকি। ত্রদিন এই দিনটি যথাযথ মর্যাদার সহিত পালিত করা হয়। তার মৃত্যু বার্ষিকীকে সামনে রেখে পুরাতন মালদা শহর কমিটি এবং রাজীব গান্ধী পুর মার্কেটের ব্যবসায়ীদের যৌথ উদ্যোগে রাজীব গান্ধীর মূর্তিতে মাল্যদান করা হয়। উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস বিধায়ক ভূপেন্দ্রনাথ হালদার। পাশাপাশি পুরাতন মালদা শহর কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মঙ্গলবাড়ির দলীয় কার্যালয়ে ত্রদিন পালিত করা হয় প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব রত্ন গান্ধীর ২৬ তম মৃত্যু বার্ষিকী। এখানেও উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস বিধায়ক ভূপেন্দ্রনাথ হালদার সহ পুরাতন মালদহ ব্লক কংগ্রেসের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।      

  • আদিবাসী সংগঠনের ডাকা ভারত বনধে মিশ্র সাড়া,রেল অবরোধ,চূড়ান্ত হয়রানি শিকার যাত্রীরা।

    ডেস্ক, ২১শে মেঃ ১০ দফা কেন্দ্রীয় দাবির পাশাপাশি আরও  তিন দফা দাবিতে ঝাড়খন্ড দিশম পার্টি সহ বেশ কিছু আদিবাসী সংগঠনের ডাকা ভারত বনধে  মিশ্র সাড়া।  উত্তর দিনাজপুরের কানকি থেকে দক্ষিণ পুরুলিয়ার বিভিন্ন  স্টেশনে রেল অবরোধ।  আদ্রা রেল ডিভিশনে মধুকুন্ডার কাছে আদিবাসিদের রেল অবরোধ করে বিক্ষোভ। আটকে রয়েছে বিভিন্ন দূরপাল্লার ট্রেন। চূড়ান্ত হয়রানি শিকার যাত্রীরা। মালদা জেলাতেও এর প্রভাব পড়েছে । ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ সহ ওল্ড মালদা রেল স্টেশনে রেল  অবরোধ করেও সকাল থেকে বিক্ষোভ দেখায় আদিবাসিরা। সাঁওতালি ভাষার প্রয়োগ, আদিবাসী উত্পীড়ন আইনের সংশোধনের বিরোধিতা এবং ইভিএম বাতিল করে ব্যালটে  ভোট করার দাবি সহ দশ দফা দাবির ভিত্তিতে সোমবার ১২ ঘণ্টা ভারত বনধের ডাক দেয় আদিবাসি দিশম পার্টি সহ বেশ কিছু আদিবাসী সংগঠন।  পুরুলিয়ার কাঁটাডি ,ইন্দ্রবিল সহ বিভিন্ন স্টেশনে রেল অবরোধ করেছেন আদিবাসী সংগঠনের সদস্যরা।  এর ফলে সাউথ বিহার এক্সপ্রেস, আসানসোল হলদিয়া এক্সপ্রেস সহ বেশ কয়েকটি ট্রেন দাঁড়িয়ে রয়েছে। অবরোধ হয়েছে  বর্ধমানের জৌগ্রাম স্টেশনে। বনধের জেরে বাতিল করা হয়েছে বেশ কয়েকটি ট্রেন। অন্যান্য জেলার পাশাপাশি মালদা জেলাতেই সকাল থেকে বনধ্‌ সফল করতে রাস্তায় দেখা যায় আদিবাসিদের। প্রথমেই তারা পুরাতন মালদার আট মাইলে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন ঝাড়খন্ড দিশম পার্টির রাজ্য সহ-সম্পাদক মহন হাঁসদা। পাশাপাশি ওল্ড মালদা রেল স্টেশনও অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় আদিবাসিরা। ফলে বিভিন্ন স্টেশনে আটকে পরে একাধিক দুরপাল্লার ট্রেন। অন্যদিকে, দক্ষিন দিনাজপুর বুনিয়াদপুরে ঝাড়খন্ড দিশম পার্টির সদস্যরা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান। যার জেরে বন্ধ ছিল বালুরঘাট মালদা ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়ক। কলকাতাগামী বালুরঘাট চিতপুর তেভাগা এক্সপ্রেস আটকে রয়েছে একলাখী স্টেশনে।  

  • পূর্ব ভারতের কলকাতায় চিকিৎসা জগতে অভাবনীয় সাফল্য, প্রথম হার্ট প্রতিস্থাপন

    Newsbazar ডেস্ক,২১ শে মেঃ পূর্ব ভারতের কলকাতায় চিকিৎসা জগতে অভাবনীয় সাফল্য।  কলকাতা প্রথম হার্ট প্রতিস্থাপনে ইতিহাস গড়ল। বেঙ্গালুরুর বরুণ ডিকার হৃদযন্ত্র সফলভাবে প্রতিস্থাপিত করা হল   ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা দিলচাঁদ সিংহের শরীরে কলকাতার ফর্টিস হাসপাতালে। এই হৃদযন্ত্র  প্রতিস্থাপিনের জন্য ৩০জনের চিকিৎসকের টিম গঠন করা  হয়েছিল। প্রায় ২ ঘন্টা ধরে চলে এই অপারেশান। হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে অস্ত্রোপচার সফল। চিকিৎসা বিজ্ঞানে ব্যাপক সাফল্য পেল কলকাতা। বেঙ্গালুরুতে  গাড়ি দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হয়ে কোমায় চলে গিয়েছিল বছর আঠারোর তরুণ বরুণ ডিকা। ১৯ মে স্পর্শ হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে 'ব্রেন ডেথ' ঘোষণা করেন। হাসপাতালের পক্ষ থেকে  যোগাযোগ করা হয় চেন্নাইয়ের ফর্টিস হাসপাতালের সঙ্গে। সেখানে  হ তখন গ্রহিতা না থাকায় যোগাযোগ করা হয় কলকাতা ফর্টিসের সঙ্গে। কলকাতা ফর্টিসে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা  ৩৯ বছরের  দিলচাঁদ ২০১৬ সালে ই এম বাইপাস সংলগ্ন এই হাসপাতালে হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের জন্য নাম নথিভুক্ত করেছিলেন।  ইতিমধ্যে যোগাযোগ করা হয় পশ্চিমবঙ্গ সরকার ও জাতীয় অঙ্গ প্রতিস্থাপন সংগঠনের সাথে। দুই তরফে সবুজ সঙ্কেত পাওয়ার পর  বরুণ ডিকে-র শরীর থেকে সোমবার সকাল ৭টায় হৃদপিণ্ড বার করে নেওয়া হয়।  বেঙ্গালুরু থেকে হৃদপিণ্ড একটি বিশেষ ক্যাসকেডে করে চার্টার্ড বিমানে নিয়ে আসা হয় একদল চিকিৎসকের তত্বাবধানে কলকাতায় । সোমবার সকাল ১০.৪০টা নাগাদ কলকাতা বিমানবন্দরে পৌঁছয় বেঙ্গালুরু থেকে আসা বিমানটি।  কলকাতার ইএম বাইপাস হাসপাতালে ভর্তি দিলচাঁদ সিংহ-কেও অস্ত্রোপচারের জন্যও তৈরি রাখা হয়েছিল। বিমানবন্দর থেকে বিশেষ অ্যাম্বুল্যান্সে হৃদযন্ত্র গ্রীন করিডোর তৈরি করে  রওনা দেয়। বিধাননগর কমিশনারেট ও কলকাতা পুলিশের যৌথ উদ্যোগে তৈরি হয় গ্রিন করিডর। বাইপাস ধরে মাত্র ১৯ মিনিটে পৌঁছয় আনন্দপুরের ফর্টিস হাসপাতালে।   হার্ট পৌছানো  মাত্রই দিলচাঁদের হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের কাজ দ্রুত শুরু করে দেন চিকিত্সকরা। চিকিত্সক তাপস রায়চৌধুরী ও কে এম বন্দনার নেতৃত্বে ৩০ জনের চিকিত্সকের দল দিলচাঁদের হার্ট প্রতিস্থাপন করে। প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে চলে অপারেশন। সেই সময়টুকু  বিভিন্ন অঙ্গের ক্রিয়াপ্রক্রিয়া কৃত্রিমভাবে চালিত করা হয়েছে। আপাতত দিলচাঁদকে পর্যবেক্ষণেই রাখছেন চিকিত্সকরা। এই ধরনের অপারেশনের পর পর্যবেক্ষণ সময়টিই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন চিকিত্সকরা।

  • নদীয়ার ধুবলিয়ায় আগুনে ভস্মীভূত ট্রাক

    অভিজিৎ লুইস সরকার,:শর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগে ভস্মীভুত হয়ে গেল পাট বোঝাই লড়ি।34 নম্বর জাতীয় সড়কে ঘটে যাওয়া এই ঘটনায় সোমবার দুপুরে চাঞ্চল্য ছড়ালো নদিয়ার ধুবুলিয়ায়।সূত্রের খবর,সোমবার দুপুরে একটি পাট বোঝাই লড়ি বহরমপুরের দিক থেকে কলকাতার দিকে যাচ্ছিল।পথে ধুবুলিয়ায় কাছে 34 নম্বর জাতীয় সড়কে চলন্ত লড়িতে হঠাৎই আগুন লেগে যায়।ঘটনায় পাট ও লড়ি দুটোই সম্পুর্ন ভস্মীভূত হয়ে গেছে।পরে কৃষ্ণনগর থেকে দমকল গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফটো : ফাইল চিত্রnbsp;

  • পঞ্চায়েত নির্বাচনে রায়গঞ্জে মহকুমাশাসক নিগ্রহের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২ শিক্ষক।

    ডেস্ক,২০মেঃ পঞ্চায়েত নির্বাচনে রায়গঞ্জে প্রিসাইডিং অফিসার খুনের ঘটনায় গোটা রাজ্য জুড়ে  চাঞ্চল্য ছড়ায় ।ঘটনার জেরে  ভোট কর্মীরা বিক্ষোভ শুরু করেন রাস্তা অবরোধ করে । অবরোধ তুলতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়েন রায় গঞ্জের মহকুমাশাসক টি এন শেরপা। তাকে শারীরিক ভাবে নিগৃহিত করা হয়। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৬ জনের বিরুদ্বে এফআইআর দায়ের করা হয়। আর সেই  ঘটনার জেরে শনিবার রাতে গ্রেফতার হন মনোজ ভৌমিক, প্রদীপ কুমার সিনহা নামে দুই শিক্ষক। জামিন অযোগ্য ধারা তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু হয়েছে। আজ তাঁদের আদালতে তোলা হলে চার দিনের পুলিশ হেপাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ওই ঘটনা জড়িত বাকি শিক্ষকদের চিহ্নিত করার কাজ শুরু হয়েছে। ১৪ মে পঞ্চায়েত নির্বাচনে র জন্য ভোটের ডিউটি করতে গিয়েছিলেন শিক্ষক তথা ভোটকর্মী রাজকুমার রায়। ইটাহারের সোনারপুরের একটি বুথে। ভোটের পরের দিন রায়গঞ্জের সোনাডাঙি রেল লাইনের ধারে রহস্যজনকভাবে দেখতে পাওয়া যায় রাজকুমার রায়ের ছিন্নভিন্ন মৃতদেহ। উঠতে থাকেএকাধিক প্রশ্ন। প্রশাসন জানায়, দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে রাজকুমার রায়ের। ক্ষোভে ফুঁস ওঠেন তাঁর সহযোগী ভোটকর্মীরা। এরপরই পরিস্থিতি সামলাতে বিক্ষুব্ধ ভোটকর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে যান মহকুমাশাসক , সেই সময়ে তাঁরে জুতো ছুরে মারধর করা হয়। এই ঘটনার জেরে গ্রেফতার করা হয়েছে ২ শিক্ষককে। ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাঁদের চিহ্নিত করা হয়।  এই ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। পুলিশসূত্রে জানা গেছে, মহকুমাশাসকের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। এদিকে, বিক্ষুব্ধদের ভোট কর্মী হিসাব মানতে নারাজ সরকার। বিক্ষোভকারীরা সিপিএম ঘনিষ্ঠ শিক্ষকসংগঠন এবিটিএর সদস্য বলে জানায় শাসকদল। এখন প্রশ্ন উঠেছে  বেছে বেছে একটি বিশেষ সংগঠনের সদস্যদের বিরুদ্বে এফআইআর করা হল কেন? ওখানে দলমত নির্বিশেষে সকল সংগঠনের সদস্যরা ছিলেন এমনকি শাসক অনুগত সংগঠনের সদস্যরাও ছিলেন। এমনকি ঐ শিক্ষকের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে গোটা রাজ্য জুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছিল এবং এখনও উঠছে।        

  • মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় দুষ্কৃতীদের হাতে বেধড়ক মারধরের শিকার হলেন প্রৌঢ়।

    news bazar24:মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় দুষ্কৃতীদের হাতে বেধড়ক মারধরের শিকার হলেন প্রৌঢ়। এই ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছেন ওই ব্যক্তি। আহত আরও দুজন। ঘটনাটি ঘটেছে কসবার কলুপাড়ায়। পাড়ার রিকশা স্ট্যান্ডে রোজ মদ-গাঁজার আসর বসে। পথচলতি মানুষদের লক্ষ্য করে উড়ে আসে কটূক্তি। বহুদিন ধরেই এ ঘটনা সহ্য করছিলেন এলাকার মানুষ। এর প্রতিবাদ করেছিলেন দিলীপবাবু।রংয়ের কাজ সেরে ফিরছিলেন দিলীপবাবু। অভিযোগ, কলুপাড়া রিকশা স্ট্যান্ডের কাছে পৌঁছতেই তাঁর উপর চড়াও হয় অভিযুক্ত মিঠু দে ও তার শাগরেদরা। দিলীপবাবুর মাথায় আধলা ইট দিয়ে আঘাত করা হয়। হামলার পরই এলাকা ছাড়ে মিঠু ও শাগরেদরা।এরপরই আমজনতার রোষ গিয়ে আছড়ে পড়ে মদের ঠেকের ওপর। ভাঙচুর করে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় ঠেক। শেষপর্যন্ত নড়চড়ে বসে পুলিস। গ্রেফতার করা হয় মূল অভিযুক্ত মিঠু দে-কে।

  • রাতের অন্ধকারে গৃহস্থের ঘরে ঢুকে তাণ্ডব চালাল দাঁতাল

    news bazar24:রাতের অন্ধকারে খাবারের খোঁজে গৃহস্থের ঘরে ঢুকে তাণ্ডব চালাল দাঁতাল। ঘরে মজুত ধান, চাল খাওয়ার সঙ্গেই আসববাবপত্রও ভাঙচুর করে দাঁতালটি। হাতির তাণ্ডবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ২টি শ্রমিক আবাস। ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুলির মালবাজার মহকুমার নাগেশ্বরী চা বাগানের ২২ নম্বর লাইনে। এই ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।শনিবার গভীর রাতে প্রায় ২টো নাগাদ সংলগ্ন জঙ্গল থেকে একটি দাঁতাল ঢুকে পড়ে বাগানের ২২ নম্বর সেকশনে। শ্রমিক আবাসের ঘরে সেইসময় স্ত্রী ও দুই শিশুপুত্রের সঙ্গে গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন ছিলেন কৃষ্ণনাথ ভূমিজ। কৃষ্ণনাথ জানিয়েছেন, হাতিটি ঘর ভাঙা শুরু করতেই আওয়াজে ঘুম ভেঙে যায় তাঁর। কোনওরকমে স্ত্রী-পুত্রদের নিয়ে পালিয়ে প্রাণে বাঁচেন তিনি।প্রায় ঘণ্টাখানেকের উপর তাণ্ডব চালায় দাঁতালটি। ঘরে মজুত ধান, চাল খেয়ে সাবাড় করে। ইতিমধ্যেই এলাকায় অন্য চা-শ্রমিকরা জড় হয়ে যান। তাঁদের চিত্কারে শেষে আবার জঙ্গলেই ঢুকে যায় দাঁতাটি।

  • পুরাতন মালদা ব্লক কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মালদা থানা ঘেরাও।

    ডেস্ক , ২০ মে : পুরাতন মালদা ব্লক কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আজ মালদা থানা ঘেরাওএর কর্মসূচী নেওয়া হয়েছিল। সাম্প্রতিক পঞ্চায়েত নির্বাচনকে  কেন্দ্র করে তৃণমূলের সন্ত্রাস ও পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে মালদার  বিধায়ক ভূপেন্দ্রনাথ হালদারের নেতৃত্বে মালদা থানা ঘেরাও করেছিল কংগ্রেস। বিধায়ক ভূপেন্দ্রনাথ হালদার বলেন, “আজ প্রায় বেশ কয়েকমাস অতিবাহিত  পুরাতন মালদার  মহিষবাথানি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় সন্ত্রাসের রাজত্ব শুরু করে তৃণমূলআশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এনিয়ে তাঁরা বারেবারে  মালদা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত পুলিশ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে  কোনও ব্যবস্থা নেয়নি  । তিনি বলেন, “ভোটের আগে আমাদের দলের  গ্রাম পঞ্চায়েতের  প্রার্থী আসিরুদ্দিন ও দলীয় নেতা কামিরুদ্দিনকে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার করে  ৩০৭ ও ৩৭৯ ধারায় মামলা রুজু করে জেলে ঢোকানো হয়েছে। এখনও তাঁরা জেলবন্দী। তবুও আসিরুদ্দিনকে হারাতে পারেনি তৃণমূল। গ্রামবাসীরা লক্ষ  করেছেন ভোটের দিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত তৃণমূল এলাকায় তাণ্ডব চালিয়েছে। আমরা প্রশাসন ও কমিশনের সর্বস্তরে ফোন করেছি। কিন্তু, কোনও কাজ হয়নি। ভোটের দিন তৃণমূলের হার্মাদদের ভয়ে মানুষ ভোট দিতে যেতে পারেনি। যারা ভোট দিতে গিয়েছিল, তারা বাড়ি ফিরতে পারেনি। ভোটের রাতেও তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা স্থানীয় বাসিন্দাদের বাড়িতে হামলা চালায়।”   এই মধ্যে গতকাল ওই এলাকার বিজয়ী জেলা পরিষদ সদস্যা  সরলা মুর্মু মহিষবাথানিতে বিজয় মিছিল করেন। তাঁর নেতৃত্বে ফের এলাকায় তাণ্ডব চলে বলে তিনি  অভিযোগ করেন। এ ছাড়াও আমাদের  প্রার্থীর দাদার দোকান ভাঙচুর করা হয়।  আগে পুলিশকে জানানো সত্ত্বেও পুলিশ কোন ব্যাবস্থা নেয় নি  বলে জানিয়েছেন ভূপেন্দ্রনাথ হালদার। গতকাল  ঘটনা্র সময় তিনি  একাধিকবার তিনি মালদা থানার  আইসি-র সঙ্গে যোগাযোগ করেন। যাচ্ছি, যাব বলে  পুলিশ এলাকায় যায়নি। তৃণমূল কর্মীরা এখনও ওই এলাকার এক কংগ্রেস কর্মীর বাড়ি ঘেরাও করে রেখেছে বলে অভিযোগ। এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নিলে আন্দোলন চলবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।  

  • গণনায় কারচুপি ও জালিয়াতির অভিযোগে জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও এর ডাক বিজেপি

    ডেস্ক, ১৯ মে : ভারতীয় জনতা পার্টির দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা কমিটিপঞ্চায়েত  ভোটের গণনায় কারচুপি ও জালিয়াতি ও গণনা কেন্দ্রে গুণ্ডামির অভিযোগ তুলে সরব। আজ এ ব্যপারে জেলাশাসকের কাছে অভিযোগ জানানো হয়। আগামী বুধবার জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও, ও  বিক্ষোভ কর্মসূচীর ডাক দিয়েছেন তারা।  দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার  ত্রিস্তর পঞ্চায়েত,  বহু আসনে বিরোধীরা প্রার্থী দিতে পারেননি এর ফলে লড়াই হয়নি। বাকি আসনে ভোট হয়েছে। ভোটের দিন ব্যাপক সন্ত্রাস   ছাপ্পা ভোট। ব্যালট লুট করে আগুন লাগানো, জলে ফেলে ও ভেঙে দেওয়ার ঘটনা সামনে  এসেছে। বিরোধীরা শাসকদলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ তোলে। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি গণনার দিনও।  জেলার বিভিন্ন গণনাকেন্দ্র থেকে ব্যালট পেপার নিয়ে পালাতে চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা। সন্ধের পর পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদের ভোট গণনার সময় বালুরঘাট কলেজে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। বিজেপির অভিযোগ, দুষ্কৃতীরা গুলি চালিয়ে বিরোধী দলের এজেন্ট ও কর্মীদের ভয় দেখিয়ে  গননা কেন্দ্রের বাইরে বের করে দেয়     তাদের আরও অভিযোগ, কারচুপি করে পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদের সব আসনে তৃণমূল জিতেছে। তার জন্যই ঘেরাও আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়েছে। এবিষয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপি সভাপতি শুভেন্দু সরকার বলেন, “তৃণমূল সাংসদের  নেতৃত্বে পুলিশ আধিকারিকদের সাহায্যে গণনাকেন্দ্রে ঢোকে দুষ্কৃতীরা। তারা আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে দাপাদাপি করে গণনাকেন্দ্রে ঢুকে ব্যালটে জালিয়াতি করে। তারা আমাদের -র পাওয়া ভোট বাতিল করতে থাকে। এইভাবে তারা জেলা পরিষদ এবং পঞ্চায়েত সমিতি আসনগুলি দখল করে। নাহলে অন্ততপক্ষে জেলা পরিষদের ৬টি আসন আমরা পেতাম।  আমরা এ ব্যপারে  জেলাশাসকের কাছে অভিযোগ জানিয়েছি। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছি। বুধবার জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখানো হবে।”  

  • মালদায় নার্সিং হোমের গাফিলতিতে যুবতীর মৃত্যুর অভিযোগ ঘিরে উত্তেজনা

    ডেস্ক , ১৯শে মে : মালদা শহরের এক নার্সিং হোমের বিরুদ্বে চিকিৎসার গাফিলতিতে যুবতীর  মৃত্যুর অভিযোগ এবং সেইখবর করতে গিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে আক্রান্ত  সংবাদমাধ্যম। মৃতার পরিবারের পক্ষ থেকে নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এব্যাপারে নার্সিং হোমের তরফে প্রতিক্রিয়া জানাতে অস্বীকার করা হয়েছে।  ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল । জানা গেছে মৃতার নাম দেবপ্রিয়া দাস।  বাড়ি মালদা শহরের বিনয় সরকার রোডে। তিনি সামান্য মানসিক ভারসাম্যহীন। তার পরিবার সূত্রে জানা যায়  তাঁরা মেয়েকে এম আর আই(MRI)  করার জন্য ঐ নার্সিং হোমে নিয়ে গিয়েছিলেন। সকাল ৮টা  নাগাদ তাঁকে MRI করার জন্য ঘরে নিয়ে যাওয়া হয়,  বাড়ির লোকজনকে বাহিরে অপেক্ষা করতে বলা হয়।বেশ কিছুক্ষন পর তাঁরা মেয়েকে দেখতে চাইলে বলা হয়, কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন দেবপ্রিয়া। তাঁকে আইসিইউ তে রাখা হয়েছে। ঘণ্টা চারেকের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু সন্ধে হয়ে গেলেও মেয়ের সঙ্গে তাঁদের দেখা করতে দেওয়া হয়নি। তাঁরা জোর করে ভিতরে উঁকি দিয়ে দেখেন, দেবপ্রিয়ার মুখ থেকে রক্ত বেরোচ্ছে।  তিনি মারা গেছেন। পরিবারের অভিযোগ, চিকিৎসার গাফিলতিতেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। তা নিয়ে তাঁরা নিশ্চিত। তাঁরা এই ঘটনায় ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। দেবপ্রিয়ার মৃতদেহ ময়নাতদন্ত করার দাবী করেন। এদিকে এই খবর ছড়াতেই আত্মীয়স্বজন ও এলাকার লোকজন নার্সিং হোমে  বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।  খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায় । সেই খবর পেয়ে সংবাদমাধ্যম সেখানে গেলে হাসপাতালের কর্মীরা সাংবাদিকদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন এমনকি হুমকিও দেন। সবাইকে এক রকম ঘাড় ধাক্কা দিয়ে হাসপাতাল থেকে বের করে দেওয়া হয়।

  • গাজোলে দুর্ঘটনা লড়ি ও ড্রাম্পারে সংঘর্ষে মৃত্যু এক আহত এক

    Newsbazar, ডেস্ক,১৯শে মেঃ  গাজোলে লড়ি ও ড্রাম্পারের সংঘর্ষে মৃত লরির   ড্রাইভার  ও আহত খালাসী ।ঘটনাটি ঘটে  গাজোল -মালদা ৩৪নং জাতীয় সড়কের আলমপুর এলাকায় রাত ১২টা নাগাদ।জানা যায় দাড়িয়ে থাকা একটি ড্রাম্পারকে সজোড়ে ধাক্কা দেয় একটি পাথর বোঝাই  লড়ি তার ফলে দুর্ঘটনাটি ঘটে  ।স্থানীয় এলাকা বাসী আহত ড্রাইভার ও খালাসীকে উদ্ধার করে গাজোল হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে ড্রাইভার মারা যায় ,খালাসীর চিকিৎসা চলছে বলে জানা যায় ।জানা যায় মৃত ড্রাইভারের নাম সারিকুল শেখ (৩১) তার বাড়ি পাকুর জেলার জনড্রাইপুর এলাকার বাসীন্দা বলে জানা যায় ।জানা যায় তার পরিবারে ২টি স্ত্রী ৫টা ছেলে মেয়ে রয়েছে ।জানা যায় আহত খালাসীর নাম আনুকুল শেখ (২৮) তার বাড়ি ধুলিয়ান এলাকায় ।জানা যায়  পাথর বুঝাই লড়িটি  মালদার দিক থেকে বালুরঘাটে যাচ্ছিল গাজোলের আলমপুরে ৩৪নং জাতীয় সড়কের পাশ্বে দাড়িয়ে থাকা একটি ড্রাম্পার গাড়িকে সজোরে ধাকা দিলে দুর্ঘটনাটি ঘটে ।শব্দ পেয়ে স্থানীয়  এলাকা বাসী ছুটে আসে ।আহতদের উদ্ধার করে তারা গাজোল হাসপাতালে নিয়ে আসলে ড্রাইভারকে মৃতবলে ঘষনা করে ডাক্তার বাবুরা ।আজ মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায় ।

  • ৭২ ঘন্টা ধরে নিখোঁজ ছেলে, পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ: অবরোধে বামনগোলা রাজ্য সড়ক

    News bazar24 :তিনদিন ধরে নিখোঁজ ছেলে। ছেলের হদিশ না পেয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলে মালদা নালাগোলা রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের সঙ্গে নিয়ে পরিবারের। আজ মালদার সাহাপুর শিবমন্দির এলাকায় অবরোধ হয়। পরিবারের সদস্যরা বলেন, রিজু ঘোষ(১৬)। সে স্থানীয় বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণীতে পড়াশোনা করে। পাশাপাশি বাবার ব্যবসায় সাহায্যে করে। গত বুধবার রাত্রিবেলা রিজু ছানা বিক্রি করতে মালদার ইংরেজবাজার থানার অতুল চন্দ্র মার্কেটে আসে। এরপর রাত গড়িয়ে গেলেও তার কোন খোঁজ পায়নি পরিবারের সদস্য। এরপর তারা থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয় বলে পরিবারের অভিযোগ। পরেরদিন অভিযোগ নেওয়া হয়। কিন্তুু ছেলের কোন হদিশ এখনো পর্যন্ত পুলিশ দিতে পারেনি। বার বার থানায় গেলেও তাদেরকে বের করে দেওয়া হয়। এরপর তারা বাধ্য হয়ে পথ অবরোধ করে। ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ গেলেও অবরোধ চলছে।