You are here: Homeদেশসারা দেশItems filtered by date: Sunday, 01 October 2017

ডেস্ক, ১ অক্টোবর ঃ একটা সময়ে মধ্য  কলকাতার কংগ্রেসের নামজাদা নেতা প্রদীপ ঘোষ কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে নাম লিখিয়েছিলেন। কিন্তু তার অভিযোগ তাকে গুরুত্বই দেওয়া হয়নি। এবার তাই মুকুল রায়ের শিবিরে যোগ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করে দিলেন প্রদীপ ঘোষ। সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের পুজো বন্ধ নিয়ে বিতর্কের মাঝে উঠে এল সেই সারসত্যটা। রাজ্য রাজনীতিতে ফের গুরুত্ব ফিরে পেতে এখন মুকুলেই ভরসা রাখছেন তিনি। মুকুল রায় দল গড়লে,  সেই দলে তিনি গুরুত্ব পাবেন বলেই বিশ্বাস করেন অনুগামীরা।

 রাজনৈতিক মহলের অনুমান  মুকুল রায়ের তৃণমূল ত্যাগ তাঁর কাছে আশার আলো হয়ে দেখা দেয় ।তার  রাজনৈতিক গুরুত্ব বাড়াতে তিনি মুকুল রায়ের সঙ্গে রয়েছেন বলে, অনুমান । শনিবার সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের পুজো বন্ধ নিয়ে বিতর্কের সময়ই এই তথ্য সামনে আসে । অনুগামীরা জানান, 'দাদা, মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ বলেই তাঁর পুজো বন্ধ করার একটা ঘৃণ্য চক্রান্ত হয়েছে। কলকাতা পুলিশ ও রাজ্যের শাসক দল এই কাজ করেছে পরিকল্পনা করে।' উল্লেখ্য, নবমীর রাতে শর্ট সার্কিটের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তারই জেরে বন্ধ করে দেওয়া মধ্য কলকাতার অন্যতম সেরা এই পুজোর দর্শন। ব্যারিকেড বসিয়ে পুলিশের তরফে দর্শনার্থীদের বের করে দেওয়া হয়। তখনই প্রকৃত কারণ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বচসা শুরু হয় উদ্যোক্তাদের। উদ্যোক্তাদের অন্ধকারে রেখে এসব করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। প্রদীপ ঘোষ অনুগামীদের দাবি, সম্প্রতি দাদা মুকুল রায়ের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছিলেন। তারই মাশুল দিতে হয়েছে পুজো কমিটিকে। ইতিমধ্যে প্রদীপ ঘোষ  জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি মুকুল রায়ের সঙ্গেই থাকবেন। এদিনের ঘটনার জেরে প্রদীপ ঘোষের শিবির বদলের চিত্র যেমন সামনে এসে পড়ল, তেমনি অনেক বিদ্রোহী নেতা যে মুকুল রায়ের সঙ্গে থাকবেন, সেই ইঙ্গিতও মেলে। কংগ্রেসত্যাগী অনেক নেতা বিজেপি বা তৃণমূলে গিয়ে গুরুত্ব হারিয়ে ফেলেছেন। তাঁরা যে এবার মুকুল রায়ের সাথে থেকে  রাজ্য রাজনীতির মূল স্রোতে ফেরার চেষ্টা করবেন, তা একপ্রকার নিশ্চিত। শুধু রাজ্যের বিভিন্ন জেলার আনাচে-কানাচেই নয়, খাস কলকাতাতেও মুকুলপন্থী লোকের অভাব হবে না, তা স্পষ্ট।

Published in Kolkata

ডেস্ক, ১ অক্টোবর ঃ পঞ্চম তথা শেষ একদিনের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে সহজেই সাত উইকেটে হারিয়ে  নাগপুরের ম্যাচে জিতে ৪-১ সিরিজ শেষ করল  ভারত।এই জয়ের পিছনে ছিল রোহিত শর্মার দুরন্ত  শতরান। পাশাপাশি আইসিসি-র ক্রমতালিকায় ফের এক নম্বর স্থান পুনরুদ্ধার করে নিল তারা।  

এদিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। উমেশ যাদব ও মহম্মদ শামি বিগত ম্যাচে দলে সুযোগ  পেয়ে কাজে লাগাতে পারেননি ।  অধিনায়ক বিরাট কোহলি আজ তাই এই সিরিজের উইনিং বোলিং কম্বিনেশনের পেস জুটিকে ফিরিয়ে আনেন। ভুবনেশ্বর কুমার ও জসপ্রীত বুমরাহ ভারতীয় বোলিং ব্রিগেডের দায়িত্ব সামলান। ওয়ার্নার অর্ধশতরান করলেও এদিন অ্যারন ফিঞ্চকে বেশি বাড়তে দেননি ভারতীয় বোলাররা। অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ বড় কিছু করতে পারেননি। পার্টটাইম বোলার কেদার যাদব তার উইকেটটি তুলে নেন। হেড ও স্টোনিস ৪২ ও ৪৬ রান করেন। তবে এদিন নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৪২ রান করে তারা। ভারতের হয়ে সফলতম বোলার অক্ষর প্যাটেল ৩ উইকেট নেন। এদিকে রান তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই দারুণ স্বচ্ছন্দ্য ছিল ভারতীয় দল। ওপেনিং জুটিতে ওঠে ১২৪ রান। রাহানে ৬১ করে আউট হন। তবে দুরন্ত ফর্মে থাকা রোহিত শর্মা কোনও ভুল করেননি। ১০৯ বলে ১২৫ রান করেন তিনি। তাঁর এদিনের ইনিংস ৫ টি ছয় ও ১১টি চার দিয়ে সাজানো ছিল। আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে একদিনের ম্যাচে নিজের ১৪তম শতরান সেরে নিলেন তিনি।

এরপর বিরাট কোহলি ৩৯ রানে আউট হয়ে গেলেও কোনও অসুবিধা হয়নি। ৪২.৫ ওভারে ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে যায় টিম ইন্ডিয়া। সিরিজের ফয়সলা  আগেই  হয়ে গিয়েছিল, এদিন ৪-১ সিরিজ জিতে ফের ক্রমতালিকার এক নম্বর জায়গা ফিরে পাওয়ায় দারুণ খুশি দল।

 

Published in Cricket

ডেস্ক, ১লা অক্টোবরঃ চোখের জলে আজ মা তোর বিদায় বেলা'- পুজোর শেষে বিজয়া দশমীর পরে মায়ের সপরিবারে ঘরে ফেরার পালা। সিঁদুর খেলা শেষ  হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তোড়জোড় শুরু হয়ে যায় প্রতিমা নিরঞ্জনের। মায়ের প্রতিমা বিসর্জনের সাথে সাথে  বিষাদের সুর বদলে যায় বিজয়ার শুভেচ্ছা ও ভালবাসায়। অশুভ শক্তিকে পরাজিত  করে শুভ শক্তির জয়ের বার্তা দিয়ে যান মা। মা দুর্গার এই বার্তা  নিয়েই হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে মানুষ মেতে ওঠেন শুভেচ্ছা বিনিময়ে।

প্রতি বছর ন্যায় এবারও  মালদা জেলায়  বিজয় দশমীর দিন রাতভর প্রতিমা বিসর্জন করা হল শহরের মহানন্দা নদীর মিশন ঘাটে। সুষ্ঠুভাবে সম্পুর্ণ হল জেলার প্রতিমা নিরঞ্জন পর্ব। মালদা জেলার অধিকাংশ ছোটো ছোটো ক্লাব ও বাড়ির প্রতিমাগুলি শোভাযাত্রা সহকারে মহানন্দা নদীর মিশন ঘাটে নিয়ে আনা হয়। প্রশাসনের দেওয়া হিসাব অনুযাযী শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত প্রায় ৫০টি প্রতিমা নিরঞ্জন হয়। পাশাপাশি বিজয় দশমীর পরের দিন অর্থাৎ রবিবারও দিনভর প্রতিমা বিসর্জন হল শহরের একাধিক ক্লাবের।

  তবে ত্রদিন মহরম থাকায় বেলা ১২ টা পর্যন্ত প্রতিমা নিরঞ্জন করার অনুমতি দেওয়া হয় জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ত্রদিকে দেখা যায়  প্রতিমা বিসর্জন ঘিরে শহরের রামকৃষ্ণ মিশন ঘাটে ইংরেজবাজার পুরসভা এবং পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে যাবতীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল।  আরও দেখা গেছে যে ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যান তথা বিধায়ক শ্রী নীহার রঞ্জন ঘোষের নেতৃত্বে  বেশ কিছু কমিশনার গোটা নিরঞ্জন পর্ব তদারকি করেন এবং এই নিরঞ্জন পর্ব  সুষ্ঠুভাবে সম্পুর্ণ করার ক্ষেত্রে তারা উল্লেকযোগ্য ভূমিকা নেন।

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক : পূজোয় মামার বাড়িতে ঘুরতে  এসে মহানন্দায় ডুবে  মৃত্যু হল দুই বোনের। মৃতরা হল লক্ষ্মী মণ্ডল , বয়স ১৫ ও তার বোন  কাজল মণ্ডল বয়স ১০। ঘটনায় শোকের ছায়া মালদহের পুরাতন মালদার  খুনি বাথান গ্রামে।

ঘটনার বিবরণে যানা যায় যে উক্ত দুই বোনের বাড়ী  কালিয়াচক ২ নম্বর ব্লকের মোথাবাড়িতে। অষ্টমীর দিন দুই বোন পুরাতন মালদার মহিষবাথানের খুনিবাথান এলাকায় মামাবাড়ি বেড়াতে আসে। মামা দুলাল মণ্ডল পেশায় শ্রমিক। অষ্টমী ও নবমীতে তারা সবার সঙ্গে ঠাকুর দেখতে বেরোয়। দশমীর দিন সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ তারা মহানন্দায় স্নান করতে যায়। সেখানেই তলিয়ে যায় কাজল। তাকে বাঁচাতে গিয়ে তলিয়ে যায় লক্ষ্মীও। এরপর গ্রামবাসীরাই প্রথমে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। মালদা থানার পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এসে দেহর খোঁজে তল্লাশি চালায়। কিন্তু, গতরাত পর্যন্তও দেহ পাওয়া যায়নি।

  আজ সকালে দুই বোনের দেহ উদ্ধার হয়। দেহদুটিকে মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ দুটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে।  

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ঃ  খোঁজ মিলল গোপন সুড়ঙ্গের।জম্মুর আর্নিয়া সেক্টরে ১৪ ফুট লম্বা সুড়ঙ্গটি নজরে আসে BSF-এর। সীমান্তের ওপার থেকে জঙ্গিদের ঢোকাতেই সুড়ঙ্গটি খোঁড়া হয়েছিল দাবি BSF কর্তৃপক্ষের। গত সাত মাসে সীমান্তে এই নিয়ে দ্বিতীয় সুড়ঙ্গের হদিশ মিলল। BSF- এর দাবি, উত্‍সবের মরশুমে বড়সড় হামলা চালানোর জন্যই এই সুড়ঙ্গ খোঁজা হয়েছিল। ২-৩ দিন আগেই সুড়ঙ্গটি খোঁড়ার কাজ শুরু হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে।সীমান্ত BSF-র কড়া নজরদারি। তাই, মাটির তলা দিয়ে সুড়ঙ্গ খুঁড়ে জঙ্গি ঢোকানোর নয়া কৌশল পাকিস্তানের।

ডেস্ক ১ অক্টোবর ২০১৭ ঃ মালদহের চাঁচল মহকুমার পাহাড়পুরের ঐতিহ্যবাহী চণ্ডীমণ্ডপের  মৃন্ময়ী দেবীপ্রতিমাকে আজকে মহানন্দা নদীর সতীঘাটে  চিরাচরিত রীতি অনুযায়ী গোধুলীলগ্নে নিরঞ্জন করা হল। দেবী মায়ের এই নিরঞ্জন পর্বে প্রচুর মানুষের সমাগম হয় ।পাহাড়পুরে সতীঘাটের অপর পাড় থেকে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষজন দেবীর এই বিদায় পর্বে আলো দেখান। সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল আলোকধারা বহন করে চলেছে এই রীতি ।  চাঁচল রাজপরিবারের স্মৃতি বিজড়িত ওই পুজো ৩০০ বছরেরও বেশি প্রাচীন ।চাঁচলের রাজা শরৎচন্দ্র রায়চৌধুরির পিতামহ রামচন্দ্র রায়চৌধুরি পুজোর প্রতিষ্ঠাতা । তাঁর পূর্বপুরুষেরা পার্শ্ববর্তী হরিশ্চন্দ্রপুর অঞ্চলের সেখসাতন গ্রাম থেকে নীলকুঠির দেওয়ান হিসেবে নিযুক্ত হয়ে এখানে এসেছিলেন । জনশ্রুতি রয়েছে , রামচন্দ্র রায়চৌধুরি পাহাড়পুরের সতীঘাটে সিংহবাহিনীর মূর্তি পেয়েছিলেন । স্বপ্নে দেবীমাতার আদেশ পেয়ে পুজো শুরু করেন । বর্তমানে ওই পুজো ট্রাস্ট বোর্ড এর আর্থিক অনুদানে ও স্থানীয় মানুষের সহযোগিতায় আয়োজিত হয়। দশমীর পুজোর পর সিংহবাহিনী দেবী মাতাকে রীতি অনুযায়ী এইদিনই চাঁচল রাজ ঠাকুর বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ।

Published in Malda-Dinajpur-2

ফটো গ্যালারী

Market Data

সম্পাদকের কথা

ফ্যান ছবিতে দেখা যাবে ১৭ বছরের শাহরুখকে

ফ্যান ছবিতে দেখ...

ডেস্ক: ছবির নাম যখন ফ্যান, আর অভিনয়ে যখন...

ধর্মীয় মৌলবাদীদের হামলায় খুন লেখক অভিজিৎ রায়

ধর্মীয় মৌলবাদীদ...

ঢাকা: একুশের বইমেলা থেকে ফেরার পথে ঢাকা ...

উদাসী হাওয়ায় গা ভাসিয়ে বলতেই পারেন, ""হোলি হ্যায়''!!!

উদাসী হাওয়ায় গা...

শান্তিনিকেতনে বসন্ত উত্সবের সূচনা হয় প্র...

বিবাহ বন্ধনে আবব্ধ হতে চলেছেন খ্যাতনামা অফ-স্পিনার হরভজন সিংহ

বিবাহ বন্ধনে আব...

কার্ত্তিক চন্দ্র পাল : ভারতের খ্যাতনামা ...

আপগ্রেড করুন

« October 2017 »
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
            1
2 3 4 5 6 7 8
9 10 11 12 13 14 15
16 17 18 19 20 21 22
23 24 25 26 27 28 29
30 31          

MC News

Contact Us

Email: This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.

Face Book: /newsbazar24 

Helpline No- 09434219594/9126173604