You are here: Homeরাজ্যহাওরা-হুগলিItems filtered by date: Sunday, 07 January 2018

ডেস্ক , ৭ জানুয়ারি  : অনূর্ধ ১৫-এর স্কুল ইন্ডিয়া কাপে বাংলা দলে জায়গা পেয়েছে কালিয়াচকের মোথাবাড়ির শামিম আখতার। শামিম মোথাবাড়ি হাইস্কুলের ক্লাস টেনের ছাত্র। বাড়ি কালিয়াচক ২ ব্লকের মোথাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের কুড়িয়াটার গ্রামে। তার পিতা পাশায় লরি চালক। বাড়িতে তার আরও দুই বোন রয়েছে। লরি চালিয়ে যা উপার্জন হয় তা দিয়ে কোন রক্মে সংসার চলে। 

ছোটো বেলা থেকেই তার  ক্রিকেট খেলার খুব ঝোক ।  তার স্কুলের শিক্ষক কুণাল সাহা তার এই ক্রিকেট খালার আগ্রহ দেখে তাকে কোচিং করাতে শুরু করেন। তখন শামিম ক্লাস সেভেনে পড়ে।  শামিমের উৎসাহ দেখে  তাকে কোচিং দিতে  শুরু করেন। তার অদম্য অধ্যাবসায়ের ফলে  অনূর্ধ ১৫-এর স্কুল  ইন্ডিয়া কাপে বাংলা দলে নির্বাচিত হয় । আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে উত্তরাখন্ডের  দেরাদুনে বসছে  শুরু হচ্ছে  খেলা। সেখানে  ভারতের  ১১টি রাজ্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে।আরও জানা যায যে  , স্পোর্টস অথারিটি অফ ইন্ডিয়া  ও স্কুল স্পোর্টস প্রোমোশন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গত ২৮ থেকে ৩১ ডিসেম্বর হুগলিতে আন্তঃজেলা ক্রিকেট প্রতিযোগিতা হয়। সেই প্রতিযোগিতায় মোথাবাড়ি হাইস্কুলের ৭জন  ছাত্র অংশ নিয়েছিল। শামিম ওই খেলায় অংশগ্রহণ করে । সেখানে  সাই-এর নির্বাচকদের নজরে পড়ে সে।  এরপর বাংলা দলের ১৬ জনের  ঘোষিত দল  শামিম স্থান পায় ।

তার গোটা পরিবারে দারিদ্রের ছাপ স্পষ্ট তবুও তার  জেদের কাছে হার মেনেছে দারিদ্র। দু’বেলা ঠিকমত খেতে  না পেলেও মনের জোর আর কঠোর অধ্যাবসায়ে  তার এই সাফল্য। তার এই  সাফল্যে শুধু মোথাবাড়ি নয়, খুশির হাওয়া মালদা জেলার ক্রীড়া মহলেও।

তার এই বাংলা দলের সুযোগ পাওয়ার জন্য তাকে শুভেচ্ছা জানান মোথবাড়ির বিধায়ক সাবিনা ইয়াসমিন। শনিবার তিনি মোথাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের কুড়িয়াটার গ্রামে শামিমের বাড়ীতে গিয়ে তার দারিদ্রতার খবর পেয়ে তিনি একটি দামী খেলার ব্যাট ও খেলার সরঞ্জাম ও আর্থিক সাহায্য তুলে দেন।এবং ভবিষ্যতে আরও সাহায্য দ্দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। পাশাপাশি মোথাবাড়ি স্কুলের ত্রফ থেকে তাকে পুরুস্কৃত করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

 

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক , ৭ জানুয়ারি  : ইংরেজবাজার পৌরসভার নিজস্ব ময়লা ফেলার জায়গা এমাসেই  চালু হতে চলেছে । ইতিমধ্যে সেখানে কাজ শুরু হয়ে প্রায় শেষের পথে। পৌরসভার চেয়ারম্যান নীহাররঞ্জন ঘোষ  একথা জানিয়েছেন ।
নিজস্ব কোনও ডাম্পিং গ্রাউন্ড না থাকায়  ইংরেজবাজার পৌরসভার ময়লা ফেলা নিয়ে বিরাট সমস্যা ছিল।  বর্তমানে মালদা শহরে প্রতিদিন যে আবর্জনা তৈরি হয় তা ফেলার জন্য পৌরসভার সাফাইকর্মীদের জায়গা খুজে বেড়াতে হয়।। আগে মালদা শহরের চন্দন পার্কে অস্থায়ী ডাম্পিং গ্রাউন্ড তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু, সেখানকার বাসিন্দাদের প্রতিরোধে সেখানে আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে হয় পৌরসভাকে। পরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে আবর্জনা ফেলার চেষ্টা করা হয়। স্থানীয়দের তরফে বাধা আসে সেখানেও। বর্তমানে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় ও ইংরেজবাজার নিয়ন্ত্রিত বাজার সমিতির মধ্যবর্তী জায়গায় শহরের আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। কিন্তু সেখানেও প্রতিবাদ উঠেছে । পৌরসভার সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট না থাকায় সেই অস্থায়ী জায়গায় আবর্জনার পাহাড় তৈরি হয়েছে। নীহারবাবু চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়ার পরই এই সমস্যা সমাধানে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছিলেন । তাঁর সেই উদ্যোগ অবশেষে সফল হতে চলেছে। 

ইংরেজবাজার পৌর কর্তৃপক্ষ  ব্লকের খাসিমারি এলাকায় নিজস্ব ডাম্পিং গ্রাউন্ড তৈরি করছে । ৬.২৮ একর জমির উপর সেই ডাম্পিং গ্রাউন্ড নির্মাণ করা হচ্ছে। মালদা  থেকে মহদিপুর যাওয়ার মূল রাস্তা থেকে প্রায় হাফ কিলোমিটার  ভিতরে সেই জমি। আশপাশে কোনও জনবসতি নেই। প্রথমে সমস্যা দেখা দিয়েছিল মূল রাস্তা থেকে ডাম্পিং গ্রাউন্ডে যাওয়ার জন্য পৌরসভার নিজস্ব কোনও রাস্তা না থাকায়। যদিও পরবর্তীতে স্থানীয় এক জমি মালিক পৌরসভাকে রাস্তা নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় জমি বিক্রি করেন। অর্থাৎ বর্তমানে সম্পূর্ণ নিজস্ব জমিতে ডাম্পিং গ্রাউন্ড তৈরি করছে পৌরসভা।

নীহারবাবু বলেন, এই ডাম্পিং গ্রাউন্ড নির্মাণের জন্য রাজ্য সরকার ১১ কোটি ৩৭ লাখ টাকা বরাদ্দ করেছে। প্রাথমিক কিছু সমস্যা কাটিয়ে এই ডাম্পিং গ্রাউন্ড নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। মূল রাস্তা থেকে ডাম্পিং গ্রাউন্ড পর্যন্ত তাঁরা একটি কংক্রিটের রাস্তা তৈরি করছেন। তার কাজ শুরু হয়ে গেছে। রাস্তাটির কাজ শেষ হলেই তাঁরা এই ডাম্পিং গ্রাউন্ডে শহরের আবর্জনা ফেলা শুরু করবেন। ইতিমধ্যে একটি সংস্থার সঙ্গে সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট নিয়ে তাঁদের কথাবর্তা পাকা হয়ে গেছে। তার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি পৌরসভা থেকেই সরবরাহ করা হবে। রাস্তার কাজ শেষ হলেই সেইসব যন্ত্রপাতি নিয়ে আসা হবে। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে অস্থায়ী ডাম্পিং গ্রাউন্ড থেকে যাবতীয় আবর্জনা নিয়ে আসা হবে এখানে। চলতি মাস থেকেই তাঁরা সেই কাজ শুরু করে দিচ্ছে। এর ফলে শহরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হতে চলেছে ।

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক , ৭ জানুয়ারি : মালদা জেলাবাসীর কাছে সুখবর মালদায় তৈরি হতে চলেছে  ইকোপার্ক।একটি নয় দুই দুইটি, একটির কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। দ্বিতীয়টির  কাজও আরও তাড়াতাড়ি শুরু হবে। জেলাশাসক কৌশিক ভট্টাচার্য জানিয়ছেন  মালদা শহরেই তৈরি হচ্ছে ওই দুটি ।
মালদা শহরে একমাত্র শুভঙ্কর শিশু উদ্যান ছাড়া  শহরবাসীর মনোরঞ্জনের আর  কোনও ব্যবস্থা নেই।  মালদা স্টেশনের পাশে রেলওয়ে পার্কটিও এখন বন্ধ । এখন জঙ্গলে ভরে গেছে আর দুষ্কৃতীদের আড্ডাস্থলে পরিণত হয়েছে সেটি।

ইতিমধ্যে ইংরেজবাজার নিয়ন্ত্রিত বাজার সমিতির সামনে থাকা একটি জলাভুমি সংস্কার করে একটি ইকো পার্ক তৈরির কাজ শুরু হয়েছে বলে জেলাশাসক জানান।ইংরেজবাজার  নিয়ন্ত্রিত বাজার সমিতিই সেই কাজ করছে।  আর একটি ইকো পার্ক তৈরি হবে  জেলা কৃষি ফার্মের অধীনে থাকা জমিতে। তিনি বলেন, কলকাতার ইকো পার্কের মত এখানেও  মনোরঞ্জনের জন্য বিভিন্ন  ব্যবস্থা  থাকবে।
ইংরেজবাজার পৌরসভা  দ্বিতীয় পার্কটির দায়িত্ব নিতে চায় বলে পৌরসভার চেয়ারম্যান নীহাররঞ্জন ঘোষ জানান । নীহারবাবু জানিয়েছেন পিপিপি  মডেলে সেই পার্ককে সাজিয়ে তোলার ব্যাবস্থা করা  হবে। তিনি আরও বলেন যে  শহরের বাসিন্দাদের মনোরঞ্জনের জন্য  শহরের এক প্রান্তে যদি  ইকো পার্ক তৈরি হয়  তা শহরবাসী সানন্দচিত্তে গ্রহণ করবে বলে তিনি আশাবাদী। 

Published in Malda-Dinajpur-2

ফটো গ্যালারী

Market Data

সম্পাদকের কথা

ফ্যান ছবিতে দেখা যাবে ১৭ বছরের শাহরুখকে

ফ্যান ছবিতে দেখ...

ডেস্ক: ছবির নাম যখন ফ্যান, আর অভিনয়ে যখন...

ধর্মীয় মৌলবাদীদের হামলায় খুন লেখক অভিজিৎ রায়

ধর্মীয় মৌলবাদীদ...

ঢাকা: একুশের বইমেলা থেকে ফেরার পথে ঢাকা ...

উদাসী হাওয়ায় গা ভাসিয়ে বলতেই পারেন, ""হোলি হ্যায়''!!!

উদাসী হাওয়ায় গা...

শান্তিনিকেতনে বসন্ত উত্সবের সূচনা হয় প্র...

বিবাহ বন্ধনে আবব্ধ হতে চলেছেন খ্যাতনামা অফ-স্পিনার হরভজন সিংহ

বিবাহ বন্ধনে আব...

কার্ত্তিক চন্দ্র পাল : ভারতের খ্যাতনামা ...

আপগ্রেড করুন

« January 2018 »
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
1 2 3 4 5 6 7
8 9 10 11 12 13 14
15 16 17 18 19 20 21
22 23 24 25 26 27 28
29 30 31        

MC News

Contact Us

Email: This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.

Face Book: /newsbazar24 

Helpline No- 09434219594/9126173604