You are here: HomeবিদেশItems filtered by date: Wednesday, 07 February 2018

ডেস্ক, ৭ই ফেব্রুয়ারীঃ রাজ্য সরকার কিভাবে ডিএ  নির্ধারণ করে তা জানতে চাইল হাইকোর্ট। এর আগের শুনানিতে রাজ্যের কর্মীদের ডিএ কতটা  বকেয়া তার তালিকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট। মামলার পরবর্তী শুনানি পরের মঙ্গলবার।

মঙ্গলবার ডিএ নিয়ে শুনানি ছিল হাইকোর্টে। আজ আদালতে আবার জমে উঠেছে ডিএ নিয়ে সওয়াল।  সেখানে মামলাকারী রাজ্য অর্থ দপ্তরের কর্মী সন্তোষবাবুর  অন্যতম আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, রাজ্য সরকারিকর্মীরা চুক্তিভিত্তিক কর্মী নন, তাঁরা স্থায়ী কর্মী। সংবিধানের ৩০৯ নম্বর ধারায় সরকারিকর্মীদের নিয়োগ এবং শর্ত নিয়ে সংসদ ও বিধানসভাগুলি নীতি নির্বারণ করতে পারে মন্তব্য করেন তিনি। সওয়ালে তাঁর দাবি, সরকারিকর্মীরা বছরে দুবার ডিএ পাওয়ার দাবি করতেই পারেন।

আইনজীবী বিকাশ ভট্টাচার্যের সওয়ালের প্রেক্ষিতে বিচারপতিরা  রাজ্য সরকারের কাছে ৫টি প্রশ্নের জবাব দিতে আদেশ দেন। প্রশ্নগুলির মধ্যে রয়েছে, ১)সরকার কিভাবে  ডিএ নির্ধারণের করে  ২)ডিএ-র হিসেব কী ভাবে  করা হয়  ৩) কত শতাংশ হারে, এবং কতদিন পর পর ডিএ দেওয়া হয় ৪)কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের সঙ্গে  রাজ্যের  কর্মীদের ডিএ-র প্রাপ্তিতে ফারাক কতটা ৫) ডিএ দেওয়া নিয়ে ক্যাবিনেট কিংবা প্রশাসন কোনও সিদ্ধান্ত নিয়েছে কিনা ?

দীর্ঘ সওয়ালের পর  বিচারপতি দেবাশীষ করগুপ্ত ও শেখর রবি শরাফ উপরোক্ত পাঁচটি প্রশ্নের জবাব দিতে নির্দেশ দেন শুধু তাই নয় বিচারপতি দেবাশীষ করগুপ্ত আরও বলেন “২০১৮-র ডিএ নিশ্চই ২০২৮শে দেওয়া যায় না”  এর আগের শুনানিতে অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত ডিএ দিতে দেরির কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন। এখন প্রশ্নগুলির উত্তরে রাজ্য সরকার কী জানায় সেটাই এখন দেখার।

Published in State

ডেস্ক, ৭ই ফেব্রুয়ারীঃ  বিভিন্ন ধরনের  সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান তথা সার্কাস, নৃত্য, থিয়েটার, নাটক, নৃত্যনাট্য, কনসার্ট, সঙ্গীতানুষ্ঠান, স্বীকৃত ক্রীড়ানুষ্ঠান প্রভৃতির ক্ষেত্রে অনুষ্ঠানে প্রবেশের টিকিটের জন্য প্রাথমিক পর্যায়ের জিএসটি সংক্রান্ত  ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা ২৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে জনপ্রতি ৫০০ টাকা করা হয়েছে। পরিষদের বৈঠকে তারামণ্ডলে প্রবেশের জন্য টিকিটের ক্ষেত্রেও প্রাথমিক ছাড়ের সীমা বাড়িয়ে ৫০০ টাকা করা হয়েছে। এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি গত ২০১৮-র ২৫ জানুয়ারি জারী করা হয়েছে। এই পদক্ষেপের ফলে দেশে সাংস্কৃতিক এবং ক্রীড়ানুষ্ঠান আয়োজনের সুবিধা হবে ও তা উৎসাহিত হবে।

পাশাপাশি বিভিন্ন  ধরনের বিনোদনমূলক পার্কের সদর্থক সামাজিক প্রভাবের কথা বিবেচনা করে এবং শিশু ও পরিবারের জন্য সক্রিয় বিনোদনের দিকটির কথা বিবেচনা করে বিভিন্ন মহল থেকে এক্ষেত্রে জিএসটি-র হার কমানোর অনুরোধ এসেছিল। এর ফলে  থিম পার্ক, ওয়াটার পার্ক, জয় রাইড, মেরি-গো-রাউন্ড,গো-কার্টিং এবং ব্যালের মতো অনুষ্ঠানে প্রবেশের জন্য জিএসটি ২৮ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১৮ শতাংশ করা হয়েছে।  

  জিএস টি পরিষদ আশা  করে , রাজ্য সরকারগুলি স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা (পঞ্চায়েত/পুরসভা/জেলা পরিষদ) কর্তৃক বিনোদন করের হার বৃদ্ধি করবে না। কারণ, সেক্ষেত্রে এই ধরনের বিনোদনমূলক পার্কের ওপর করের বোঝা বৃদ্ধি পাবে। এর ফলে, শিশু এবং তাদের পরিবারগুলি বিনোদন পার্কের ওপর জিএসটি ছাড়ের সুবিধা পাবে বলে আশা করা যায়।

ডেস্ক,৭ ফেব্রয়ারী : গাজোল দেওতলা অঞ্চলের তরিকুলাহ সরকার হাইস্কুল উচ্চমাধ্যমিকের ৩৫ তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় বিশাল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ।এ অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক ,নৃতপ্রতিযোগিতা ,কবিতা পাঠ ,আদিবাসী নৃত্য প্রতিযোগিতা ,বিভিন্ন ধরনে গান অনুষ্ঠিত হয় ।অনুষ্ঠানে আলোচনা সভা ও পুরুস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয় ।উপস্থিত ছিলেন গাজোলের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি প্রভাত পোদ্দার ,গাজোল হাসপাতালের রোগী কল্যান সমিতির সভাপতি রনিজত বিশ্বাস ,গাজোলের প্রাক্তন বিধায়ক সুুশীল চন্দ্র রায় ,মালদা জেলা পরিষদের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ দিলরুবা ইয়াসমিন ,বিশিষ্ট সমাজ সেবী ফরহাত হোসেন ,এ বিদ্যালয়ের টি আই সি সহ এ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্র ছাত্রী বৃন্দ ।বিদালয়ের টি আই সি বলেন এ বিদ্যালয়ের ৩৫ তম প্রতিষ্ঠা দিবস ও এ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয় বিশাল উৎসাহের মধ্য দিয়ে ।এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান অনেক ভাল ,পরিবেশ রয়েছে খুব ভাল ।এ বিদ্যালয়ে প্রচুর ছাত্র ছাত্রী রয়েছে ।এ বিদ্যালয়ের কিছু সমস্যা রয়েছে সে গুলো তুলে ধরা হয় ।সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন আমাদের রনিজত বিশ্বাস ও গাজোল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি প্রভাত পোদ্দার ।তারা বলেন মুখ্য মন্ত্রী শিক্ষা নিয়ে রাজ্যে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন ।ছাত্র ছাত্রীদের জন্য অনেক গুলো উন্নয়ন মুলক প্রকল্প চালু করেছেন ,শিক্ষা শ্রী ,কন্যা শ্রী ,যুবর্শী প্রমুখ। এ বিদ্যালয়ের কিছু সমস্যা রয়েছে সে গুলো উধ্বতন কতৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করা হবে ।

Published in Malda-Dinajpur-2

  ডেস্ক, ৭ই ফেব্রুয়ারীঃ বিভিন্ন দাবি দাওয়া নিয়ে মহামাদিয়া হাই মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের হাতে একটি ডেপুটেশন পেশ করলো কালিয়াচক এক নম্বর ব্লক তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। এই মর্মে ত্রদিন স্কুল চত্বরে মোয়াতেন করা হয়েছিলো বিশাল পুলিশ বাহিনী।

জানা যায়, ত্রদিন মহামাদিয়া হাই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মেহেবুর রহমানের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে এই ডেপুটেশন পত্র পেশ করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কর্মীরা। মোট ১২ দফা দাবি গুলির মধ্যে অন্যতম ছিলো, মিড,ডে,মিলে দুর্নীতি, সবুজ সাথী প্রকল্পে দুর্নীতি সহ একাধিক। জানা যায়, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতি তৌসিক আহমেদের নেতৃত্বে ত্রদিন এই ডেপুটেশন পত্র পেশ করেন কর্মীরা।


Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক, ৭ই ফেব্রুয়ারীঃ  বেআইনিভাবে টোটো পার্কিং এবং জাতীয় সড়কে টোটো চালানোর অভিযোগে পাঁচটি টোটো আটক  করলো কালিয়াচক থানার পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে চার জনকে। বুধবার ধৃতদের মালদা জেলা আদালতে তোলা হয়।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে কালিয়াচক থানার পুলিশ চৌড়ঙ্গী মোর এলাকায়  হানা দেয়। সেখানে হানা দিয়ে পুলিশ বেআইনিভাবে টোটো পার্কিং এবং জাতীয় সড়কে টোটো চালানোর অভিযোগে পাঁচটি টোটো আটক করে। গ্রেফতার করা হয় জামাল সেখ, সুুন্দর ঘোষ, জইফুল সেখ এবং ফারুক সেখ নামে চার টোটো চালককে। পুলিশ জানিয়েছে, চোড়ঙ্গী মোড় এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে বেআইনিভাবে টোটোগুলি পার্কিং করা হয়েছিলো। তাতে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছিলো। বার বার তাদের সেই কথা জানানো হয়েছিলো। কিন্ত লাভ হয়নি। তাই এই পদক্ষেপ।

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক, ৭ই ফেব্রুয়ারীঃ মনসা দেবীর বাহন এক বিষধর সাপ যে  মানুষের কোন ক্ষতি করে না । বরং ফনা  তুলে আর্শিবাদ করে । তাই মনসা দেবীর সাথে তার বাহন এই বিষধর সাপের পূজা অর্চনা শুরু করেছেন স্থানীয়রাও। সাপটিকে ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।  

মালদহের পুরাতন মালদা ব্লকের সাহাপুরের নিত্যানন্দপুরের বাসিন্দা মমতা কর্মকার। এই অসাধ্য সাধন করেছেন তিনিই। তার মনসা মন্দিরে রয়েছে এই বিষধর সাপটি। তার এই অসাধ্য সাধনে, তিনি নিজে হাতে এই বিষধর সাপটিকে দুধ খাইয়ে দেন। শুধু তাই নয়, কখন গলায় প্যাচান, আবার কখনও কোলে তুলে নেন এই বিষধর সাপটিকে তিনি। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেলো, এই সাপটি স্থানীয়দের কোন ক্ষতি করেনি। তাই মন্দিরে মায়ের সাথেই থাকে সাপটি। সকাল সন্ধ্যা চলে পূজা অর্চনা।

ত্রদিকে জানা যায়, এই খবর পাওয়ার পর বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বন দপ্তরের কর্মীরা। তারা সাপটিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করে। কিন্ত রুখে দাড়ায় মমতা দেবী এবং স্থানীয়। ফলে খালি হাতে ফিরতে হয় বন দপ্তরের কর্মীদের।

Published in Malda-Dinajpur-2

ডেস্ক, ৭ই ফেব্রুয়ারীঃ পুরাতন  মালদা থানার নারায়নপুর ৩৪নম্বর জাতীয় সড়কে লড়ির ধাক্কায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক ব্যাক্তির। মৃত ব্যাক্তির নাম বিমল মন্ডল। ঘটনায় লড়ির চালক খালাশির গ্রেফতারের দাবিতে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ গ্রামবাসীদের। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে মালদা থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।              

   জানা গিয়েছে পেশায় লড়ি চালক বিমল বাবু মঙ্গলবার দুপুরবেলা ছেলের জন্য খাওয়ার নিয়ে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে বাইকে করে নারায়নপুরে যাচ্ছিলেন। পথে গাজল থেকে মালদাগামী লড়িটি সামনাসামনি ধাক্কা মারে বাইক আরোহীকে। ঘটনায় বিমল বাবু লড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। স্থানীয় গ্রামবাসীরা ঘটনা দেখতে পেয়ে ছুটে আসতেই চালক খালাশী পালিয়ে যায়। লড়িটিকে গ্রামবাসীরা আটক করেছে। চালক ও খালাশির গ্রেফতারের দাবিতে ৩৪নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ শুরু করে গ্রামবাসীরা। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে মালদা থানার পুলিশ আসলে পুলিশি আস্বাসে অবরোধ তুলে নেয় গ্রামবাসীরা। 

স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে জানা যায় , ৩৪নম্বর জাতীয় সড়কে বেপরোয়া যানবাহন চলার ফলে দিনের পর দিন এই ধরনের ঘটনা ঘটছে এই রাস্থায়। আর প্রায়ই ঘটছে মৃত্যুর মত ভয়াবহ ঘটনা। আর প্রশাসন নির্বিকার। বার বার গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রনের কথা ঢাকঢোল পিটিয়ে প্রচার  করা হলেও  যেমনকার তেমনি থেকে যায়। তাদের দাবী এই এলাকায় অবিলম্বে  ট্রাফিক বসিয়ে  যানবাহন নিয়ন্ত্রন করাহোক।

পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। চালক খালাশির খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশী।


Published in Malda-Dinajpur-2

ফটো গ্যালারী

Market Data

সম্পাদকের কথা

ফ্যান ছবিতে দেখা যাবে ১৭ বছরের শাহরুখকে

ফ্যান ছবিতে দেখ...

ডেস্ক: ছবির নাম যখন ফ্যান, আর অভিনয়ে যখন...

ধর্মীয় মৌলবাদীদের হামলায় খুন লেখক অভিজিৎ রায়

ধর্মীয় মৌলবাদীদ...

ঢাকা: একুশের বইমেলা থেকে ফেরার পথে ঢাকা ...

উদাসী হাওয়ায় গা ভাসিয়ে বলতেই পারেন, ""হোলি হ্যায়''!!!

উদাসী হাওয়ায় গা...

শান্তিনিকেতনে বসন্ত উত্সবের সূচনা হয় প্র...

বিবাহ বন্ধনে আবব্ধ হতে চলেছেন খ্যাতনামা অফ-স্পিনার হরভজন সিংহ

বিবাহ বন্ধনে আব...

কার্ত্তিক চন্দ্র পাল : ভারতের খ্যাতনামা ...

আপগ্রেড করুন

« February 2018 »
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
      1 2 3 4
5 6 7 8 9 10 11
12 13 14 15 16 17 18
19 20 21 22 23 24 25
26 27 28        

MC News

Contact Us

Email: This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.

Face Book: /newsbazar24 

Helpline No- 09434219594/9126173604