ম�রশিদাবাদ -নদীয়া

  • কুতুবপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস পালন।

    Newsbazar24:১২- ই জুন বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষ্যে মুর্শিদাবাদ চক্রের কুতুবপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই দিবসটি গুরুত্ব সহকারে পালন করা হল। স্লোগান, ফেস্টুন, ফ্ল্যাগ প্রভৃতি নিয়ে এলাকা প্রদর্শন করে ছাত্রছাত্রীরা। এলায় বেশ সাড়া পড়ে অনেক অভিভাবক অভিভাবিকা এই শোভাযাত্রায় পা মেলান। ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন করি, শিশু শিক্ষা নিশ্চিত করি’ স্লোগান উচ্চারিত হয় এই দিবসে। প্রধান শিক্ষক মাহামুদাল হাসান বলেন, লক্ষ লক্ষ শিশু শ্রম দিচ্ছে চায়ের দোকান, ইটভাটা, গ্যারেজ, কারখানা, ওয়ার্কশপ প্রভৃতি জায়গায়। অর্থনৈতিল অস্বচ্ছলতা ও দারিদ্র্যের জন্য বেড়ে চলেছে এই শিশুশ্রমিক। শিশুসংসদের মন্ত্রী ও বিভিন্ন দপ্তরের সদস্য-সদস্যারা খুব গুরূত্ব দিয়ে আজকের এই দিন টিকে সচেতনতার কর্মে নিয়োজিত করে। শিশুসংসদের প্রধানমন্ত্রী ঈশিতা বিশ্বাস বলে, বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবসে শিশুরা চায়ের দোকান, ইট ভাটায় যাতে কাজ না করে পড়াশুনা না করে সেদিকে লক্ষ্য রেখে প্রচার চালাতে হবে। কোথাও এমন দেখলে ১০৯৮ এ কল করতে হবে।"

  • মুর্শিদাবাদে কংগ্রেসের ইফতার পার্টিতে অনুপস্থিত জেলা সভাপতি, জোর গুঞ্জন তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন?

    Newsbazar, ডেস্ক, ১৩ জুনঃ মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ইফতার পার্টি।  সেই পার্টিতে অনুপস্থিত জেলা কংগ্রেস সভাপতি। উপস্থিত ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে  জেলা কংগ্রেস সভাপতি আবু তাহের খান অনুপস্থিত কেন ?  জল্পনা বাড়ছে  আবু তাহের খান কি কংগ্রেস ছেড়ে তৃনমূলে  যাচ্ছেন ? মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসের তরফে সম্প্রতি আয়োজন করা হয়েছিল একটি ইফতার পার্টির। সেই ইফতার পার্টিতেই অনুপস্থিত কংগ্রেসের জেলা সভাপতি আবু তাহের। এই ইফতার পার্টিতে ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী, সাংসদ অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়-সহ অন্যান্যরা। এ ব্যাপারে  প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীরবাবু জানান , জেলা সভাপতির পক্ষ থেকে ডাকা  ইফতার পার্টিতে আবু তাহের  কেন এলেন না জানি না। পঞ্চায়েত নির্বাচনের  ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই মুর্শিদাবাদের রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছিল যে   তিন কংগ্রেস বিধায়ক দল ছেড়ে তৃনমূলে যেতে পারেন । শুভেন্দু অধিকারী চ্যালে়ঞ্জ ছুড়েছিলেন মুর্শিদাবাদে কংগ্রেসকে একেবারে নিশ্চিহ্ন করে দেবেন । অধীর চৌধুরীর দিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে তিনি বলেছিলেন , অধীরবাবুর পাশে কেউ থাকবে না। কংগ্রেস বলেই কেউ থাকবে না মুর্শিদাবাদ জেলায়। এর আগেও বহু কংগ্রেস বিধায়ক, পঞ্চায়েত সদস্য, কাউন্সিলররা দল ছেড়েছেন। এবার পালা  ফারাক্কা ও নয়দার বিধায়কের। এদিকে আবদুল মান্নান এই দলবদলের ব্যাপারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি  দিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে কথা দিয়েছিলেন তিনি আর কংগ্রেস ভাঙাবেন না। এরপর তৃণমূলে পা বাড়িয়ে থাকা কংগ্রেস বিধায়করা কী করেন সেটাই এখন  দেখার।  

  • নদিয়া জেলা জুড়ে বেহাল ডাক পরিষেবা : আন্দোলনে ডাক কর্মীরা

    অভিজিৎ লুইস সরকার : ডাক কর্মীদের লাগাতার কর্মবিরতির জেরে লাটে উঠেছে নদীয়ার ডাক পরিষেবা । জেলার বেশির ভাগ পোস্ট অফিসের কাজ বন্ধ। গত ২২শে মে থেকে অনশন চলছে ডাক কর্মীদের। খবরে প্রকাশ, ডাক কর্মীদের বিভিন্ন ইউনিয়ন মিলিত ভাবে কৃষ্ণগর পোস্ট অফিস সুপারিনটেনডেন্ট অফিসের সামনে ধর্নায় বসে । ৪টি দাবি নিয়ে অনির্দিষ্ট কালের ধারনাই বসেছে G.D.A । সংগঠনের এক নেতার কথায়, থেকে বলাহয় ,তাদের চারটে দাবী যদি না মানা হয় তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত এই ধর্মঘট লাগাতার চলবে। দাবিগুলো হল, ১)ডাক বিভাগে (G.D.S) কর্মীদের জন্য কমলেশ চন্দ্র কমিটির সুপারিশ লাগু করে শূণ্য পদে লোক নিয়োগ করতে হবে। ২)কমলেশ চন্দ্র কমিটির ইতিবাচক সুপারিশ কার্যকরী করতে হবে।৩) মাসে ৭হাজার টাকায় সংসার চলেনা -উপোযুক্ত মাইনে দিতে হবে।৪) আওবিলম্বে শূণ্য পদে লোক নিয়োগ করতে হবে। উল্লেখ্য, এই অনশনের বিষয়ে ডাক বিভাগের কোনো আধিকারিকের মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

  • আবার সন্মানের মুকুট পেলো নদীয়া জেলা পরিষদ

    অভিজিৎ লুইস সরকার , newsbazar24: ভারতের ৬১১টি জেলার মধ্যে আবার ও প্রথম স্থানের শিরোপা পেলো নদীয়া জেলা পরিষদ।এর আগেও সবার জন্য শৌচাগারে প্রথম স্থানে ছিলো এই জেলা পরিষদ। খবরে প্রকাশ, ভারত বর্ষ গ্রামীন গৃহ প্রকল্পে বর্তমানে প্রথম স্থানে আছে নদীয়া জেলা পরিষদ। ,২০০১৬-১৭এবং২০১৭-১৮ দুটি আর্থিক বছরের এখন পর্যন্ত ৪৮৫২০ টি বাড়ি বানিয়ে দেওয়া হয়েছে গ্রামীন এলাকায়।এক কথায় গৃহ নির্মাণ প্রকল্পে সফলতার হার ৯৮.৫৬ শতাংশ । এছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকারএর বিভিন্ন প্রকল্পে অনুমোদনের হার সহ আধার সংযুক্ত করনের কাজেও জেলাপরিষদ দেশের মধ্যে এগিয়ে। উল্লেখ্য, দরিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী ২৭৬১৫ জন কে এলপিজি গ্যাস কানেকশন সহ ১৪৩৭৯ পরিবার কে বিদ্যুৎ সংযোগ দেবার কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন করেছে নদিয়া জেলা পরিষদ। এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে সফল কাজের খতিয়ান তুলে ধরেন নদীয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি বাণী কুমার রায় । তিনি এর জন্য টিম নদীয়া কে ধন্যবাদ জানান।তাদের ছাড়া এই সাফল্য সম্ভব না বলেও তিনি মত প্রকাশ করেন।

  • মুর্শিদাবাদে বোমা বাঁধতে গিয়ে মৃত ১

    news bazar24:মুর্শিদাবাদের বড়ঞা থানা এলাকায় বোমা বাঁধতে গিয়ে মৃত্যু হল একজনের৷মৃতের নাম ফিরোজ শেখ৷ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলেও সূত্রের খবর৷পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার রাতে বড়ঞা থানার বৈদ্যনাথপুর মালেয়ান্দিতে আচমকাই ভয়াবহ শব্দ হয়৷ দেখা যায় সেই বিকট শব্দ বোমা ফাটার৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রচুর বোমা তৈরির মালমশলা উদ্ধার করেছে৷ বোমা বাঁধতে গিয়েই এই বিস্ফোরণ হয়৷ বোমা ফেটে মৃত্যু হয় ফিরোজ শেখ নামে এক ব্যক্তির৷ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে । বৈদ্যনাথপুর মালেয়ান্দিতে কে বা কারা এই বোমা তৈরি করছিল তা এখনও জানা যায়নি৷ কী উদ্দেশে এই বোমা বাধা হচ্ছিল তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷তবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত আহতদের কোনও খবর মেলেনি৷ পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে তদন্তে পাঠিয়েছে৷ কিছুদিন আগে মুর্শিদাবাদের রেজিনগর থানার তেঘরি নাজিরপুরেও একইরকম ভাবে বোমা বাঁধতে গিয়ে বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় এক ব্যক্তির৷ আহত হন তিনজন৷

  • শান্তিপুরে বিজেপি কর্মী খুন:ভোট মিটলেও অশান্ত শান্তিপুর

    ডেস্ক :এবার খুন হলেন এক বিজেপি কর্মী। বিজেপি কর্মীর নাম বিপ্লব শিকদার। বুধবার রাত ১১ টা নাগাদ শান্তিপুর থানার হরিপুর পঞ্চায়েতের মেলের মাঠ এলাকায় গুলি করে খুন করা হয় সক্রিয় বিজেপি কর্মী বিপ্লব শিকদারকে (৪৫), অভিযোগের তীর শান্তিপুরের তৃণমূল আশ্রিত বাহিনীর দিকে। জানা গেছে হরিপুর পঞ্চায়েতের গ্রাম সংসদ আসনে তৃণমূল প্রার্থী সাধনা সরকারের হার মেনে নিতে পারেননি সাধনার স্বামী সুবল সরকার। গতকাল রাতে সদলবলে সশস্ত্র অবস্থায় বিজেপি র সক্রিয় কর্মী বিপ্লব শিকদারের বাড়ি ঢুকে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। একটি গুলি সরাসরি বুকে লাগে তার। শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় তাকে। এই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত অমল হালদার ও স্থানীয় দুষ্কৃতী রথীন দেবনাথকে গ্রেফতার করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ। অভিযুক্ত দুইজনই শান্তিপুরের বিধায়ক অরিন্দম ঘনিষ্ঠ বলে জানা গেছে। নির্বাচন থেকেই বিধায়ক বাহিনীর একের পর এক হামলায় রক্তাক্ত হচ্ছে শান্তিপুর। ক্ষোভে ফুঁসছে এলাকার সাধারণ মানুষ। আজ এই খুনের ঘটনার প্রতিবাদে শান্তিপুরে রাস্তা অবরোধ করে বিজেপি কর্মীরা।

  • নদীয়ার বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিকদের ওপর হামলার উস্কানি, জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ সকল সাংবাদিক :

    অভিজিৎ লুইস সরকার : পঞ্চায়েত ভোটের আগের থেকে শুরু করে ভোটের শেষ অবিধি জেলার বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিক, বিশেষ করে যে সকল সাংবাদিক শাসক দলের বিপক্ষে সংবাদ পরিবেশন করেছে,তাদের দেখে নেওয়ার হুমকী দেওয়া শুরু করেছে শাসক দলের কিছু নেতা।এরই প্রতিবাদে আজ নদিয়ার জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানালো সাংবাদিকরা। উলেখ্য, ভোটের দিন শান্তিপুরে তৃনমূলের বাইক বাহিনীর সদস্যদের বাইক পোড়ানো এবং এক তৃনমূল ছাত্র নেতার গণপ্রহারে মৃত্যুর ঘটনার সংবাদ করা নিয়ে শান্তিপুরের বিধায়ক ও বিধায়ক ঘনিষ্ঠ কুমারেশ চক্রবর্তী এক জনসভায় সাংবাদিকদের হাতের আঙুল কেটে নেওয়ার হুমকী দেন।এই বক্তব্যের অডিও ও ভিডিও রেকডিং নিয়ে সকল সাংবাদিকদের নিরাপত্তার স্বার্থে আজ সকল সাংবাদিকরা জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান। আগামীতে জেলার বিভিন্ন স্থানে মৌন মিছিল করার কথাও তাদের জানানো হয়। প্রশাসন অবিলম্বে বিষয় দেখার আস্বাস দিয়েছেন। অভিযোগ জানানো হচ্ছে শিক্ষামন্ত্রী ও জেলার পরিদর্শক পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছেও।

  • নদীয়ার ধুবলিয়ায় আগুনে ভস্মীভূত ট্রাক

    অভিজিৎ লুইস সরকার,:শর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগে ভস্মীভুত হয়ে গেল পাট বোঝাই লড়ি।34 নম্বর জাতীয় সড়কে ঘটে যাওয়া এই ঘটনায় সোমবার দুপুরে চাঞ্চল্য ছড়ালো নদিয়ার ধুবুলিয়ায়।সূত্রের খবর,সোমবার দুপুরে একটি পাট বোঝাই লড়ি বহরমপুরের দিক থেকে কলকাতার দিকে যাচ্ছিল।পথে ধুবুলিয়ায় কাছে 34 নম্বর জাতীয় সড়কে চলন্ত লড়িতে হঠাৎই আগুন লেগে যায়।ঘটনায় পাট ও লড়ি দুটোই সম্পুর্ন ভস্মীভূত হয়ে গেছে।পরে কৃষ্ণনগর থেকে দমকল গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফটো : ফাইল চিত্রnbsp;

  • আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠলো করিমপুর, জ্বলছে বাস

    নিউজ বাজার 24:&ভোট গননার পর অশান্ত হয়ে উঠল নদিয়ার করিমপুর।সুত্রের খবর এখানকার কানাইখালীতে বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় বাহিনী।ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী।রনক্ষেত্র নদিয়ার করিমপুরের বিভিন্ন এলাকা।এমুহুর্তে ঘর ছেড়ে পালিয়েছে অনেক গ্রামবাসী এমনটাই খবর মেলেছে।;

  • ঘাসফুলের দাপটে কার্যত নিশ্চিহ্ন অধীরের দল

    News bazar24: মুর্শিদাবাদের মুকুটহীন সম্রাট ছিলেন অধীর চৌধুরী। সেই অধীরগড়েই আজ দূরবীন দিয়ে খুঁজতে হচ্ছে কংগ্রেসকে। ঘাসফুলের দাপটে কার্যত নিশ্চিহ্ন অধীরের দল। গ্রামপঞ্চায়েতে এখনও পর্যন্ত মাত্র ২টি আসন পেয়েছে কংগ্রেস। সেখানে তৃণমূলের ঝুলিতে ৩০৫৯টি আসন। মালদহে আবার বিজেপির চেয়ে পিছিয়ে পড়েছে কংগ্রেস।ওই জেলায় তৃণমূল পেয়েছে ৩৩৯টি আসন। কংগ্রেসের আসন সংখ্যা ১০০। ১৪৬টি আসন পেয়ে দুনম্বরে উঠে এসেছে বিজেপি।বছর দুই আগেই অধীরগড়ে অভিযান চালিয়েছিলেন জেলার তৃণমূল পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। তারপর জেলাপরিষদ থেকে পুরসভা- সবই চলে যায় তৃণমূলের দখলে। কংগ্রেস ছেড়ে একে একে তৃণমূলে নাম লেখান অধীর ঘনিষ্ঠরা। পঞ্চায়েত নির্বাচনের এই ফল অধীরের জন্য অশনিসংকেতও বয়ে আনছে। ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে বহরম কি ধরে রাখতে পারবেন অধীর চৌধুরী? বর্তমান পরিস্থিতিতে অতিবড় অধীর সমর্থকও প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির জয়ের আশা দেখছেন না বলে মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

  • নদীয়ার চাপরায় বাজ পড়ে মৃত ৪,এলাকায় শোকের ছায়া

    অভিজিৎ সরকার : নদিয়ার চাপড়া থানার সীমানগর বাজ পড়ে মৃত চার। মৃতদের সকলের বাড়ি সীমানগর। মৃতেরা হল কালাচাঁদ সেখ(৬০), কামাল সেখ (৫০), নাজিজুল সেখ(৩০) আজিজুল সেখ(২৫)।জানা গিয়েছে, নাজিজুল সেখ ও আজিজুল সেখ দুই ভাই। মৃতের পরিবারগুলিতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তারা সকলেই সীমানগর বিএসএফ ক্যাম্পের পিছনের মাঠের একটি পাটক্ষেতে লেবারের কাজে গিয়েছিল। সকাল ১১ .২০ নাগাদ বৃষ্টি শুরু হলে মাঠের পাশে স্যলো মেসিন রাখা ঘরে আশ্রয় নেয়। সেখানে বাজ পড়লে ঘটনা স্থলেই মৃত্যু হয় চার জনের। বিএসএফ ক্যাম্পের জওয়ানরা তাদের উদ্ধার করে চাপড়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসক সকলকে মৃত বলে ঘোষনা করা হয়।- ফটো , কৃষ্ণেন্দু বিশ্বাস

  • ,ঠাকুরমার প্রেমীকের গুলিতে নিহত 4 বছরের নাতি

    অভিজিৎ সরকার :ঠাকুমার প্রেমিকের গুলিতে নিহতো ৪ বছরের শিশু কন্যা।নদীয়ার বগুলার গেরাপতাই ঠাকুমা চারুলতা পোদ্দারের দাবি দীর্ঘদিন (আনুমানিক ৩০ বছর ) ধরেই তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে প্রতিবেশী জ্যোতিন্দ্রনাথ রায় (৫৩) নামে এক ব্যক্তির সাথে । মঙ্গলবার রাত দশটা নাগাদ মদ্যপ অবস্থায় চারুলতার ঘরে ঢোকেন জ্যোতিন্দ্রনাথ। সে সময় চারুলতার ঘরে ছিল তাঁর ৪ বছরের নাতনি ঈশিতা পোদ্দার ৪। অভিযোগ, আচমকা কোনও কারণ ছাড়াই শিশুর কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করে দেন জ্যোতিন্দ্রনাথ। বগুলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে শিশুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। প্রতিবেশীদের মধ্যে থেকে প্রশ্নঃ উঠতে শোনা গেছে যতীন্দ্রর কাছে বন্দুক এলো কোথা থেকে আরো বলে যে তাহলে কি এমন কিছু গোপন ঘটনা যেনে ফেলেছিলো চারুলতা ও তার পরিবার, না কি সম্পর্কের টানা পরনের মাঝে পরে বলি হতে হলো ৪ বছরের শিশু কন্যাকে ?বুধবার ভোরে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে হাঁসখালি থানার পুলিশ।

  • পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাংলার মাথা হেঁট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী- অধীর চৌধুরী

    ডেস্ক, ১৫ইমেঃ পঞ্চায়েত ভোট  সংঘর্ষে  আহত কংগ্রেস নেতা, কর্মী ও সমর্থকদের দেখতে  মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  যান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী।সেখানে  সন্ত্রাস  নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ব্যর্থ । তাঁর প্রশাসন ঠুটো জগ্ননাথ এবং  ব্যর্থ রাজ্যে সুষ্ঠু নির্বাচন করতে। এখন ব্যর্থতা ঢাকতে তিনি আগের নির্বাচনের সঙ্গে তুলনা করছেন এবারের ভোট সন্ত্রাসের পক্ষে সওয়াল করছেন। অধীর চৌধুরী বলেন,  আমরা যেটা আশঙ্কা করেছিলাম, তা-ই হয়েছে। পঞ্চায়েত ভোট রক্তাক্ত হয়েছে। এই ভোট কে়ড়ে নিয়েছে তাজা প্রাণ। আর রাজ্যে ভোটের নামে প্রহসন হয়েছে। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন  নির্বাচনে লাগাতার খুন, জখম, ভোট লুঠ, সন্ত্রাস, মারামারি হয়েছে , তৃণমূল কংগ্রেস ও পুলিশ একযোগে আক্রমণ চালিয়েছে। পুলিশের ভূমিকা  ছিল শাসক দলকে রক্ষা করা। তাই পঞ্চায়েত নির্বাচন রক্তাক্ত হল এবার। রাজ্যের এই ভোটচিত্রে বাংলার মানুষ হিসেবে আমাদের মাথা নত হয়ে  যাচ্ছে। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী সারা দেশে  বাংলার মাথা হেঁট করেছেন। তার জন্য  তিনি ধিক্কার জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তিনি প্রশ্ন ছুড়ে দেন, এই খুন, রক্তপাত, সন্ত্রাসের কি কোনও প্রয়োজন ছিল। কোন দলের কত জনের মৃত্যু হল সেটা বড় কথা নয়, ভোট করতে গিয়ে মানুষ মারা গেল এটাই লজ্জা। মানুষের প্রাণ চলে গেল এটাই আক্ষেপের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত করতে আমরা হাইকোর্টে গিয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের আবেদন মাঠে মারা গিয়েছে। আদালতও দেখেছে, বোমা-বারুদ সহ সন্ত্রাসের মধ্যে  ভোট হয়েছে। মানুষের প্রাণ গিয়েছে। আর পুলিশ-প্রশাসন সম্পূর্ণ ব্যর্থ তা রুখতে। এই সন্ত্রাসের ভোটের পর নবান্নে রাজ্য পুলিশের ডিজির মন্তব্য আমাদের ব্যথিত করেছে ।  ডিজি নবান্ন-র শেখানো বুলি আউড়ে নিজেকে শাসক দলের ক্রীতদাসে পরিণত করেছেন।    

  • রক্তাক্ত গ্রাম বাংলা -রাজনৈতিক লড়াইয়ের মাঝে প্রাণ গেলো ১১ জনের ।নদীয়ায় মারা যায় ৩ জন ।

    অভিজিৎ লুইস সরকার,নিউজ বাজার 24: ১ -প্রতিবাদের নজির বিহীন ঘটনা ঘটবো নদীয়া শান্তিপুরে বাবলা সরদার পড়ায়, এখানে বাইকবাহিনীর তাণ্ডব রুখে দিলেন এলাকাবাসী। এখানে ভোট চলাকালীন ৫০ থেকে ৬০জনের বাইকবাহিনী এলাকায় ঢুকে শূন্যে গুলি ছোঁড়ে বলে অভিযোগ। এলাকার মানুষ রুখে দাঁড়ালে পালিয়ে যায় তাঁরা। এদের মধ্যে দু’জনকে ধরে ফেলে পুলিশের হাতে তুলে দেন স্থানীয়রা। দুষ্কৃতীদের ১২টি মোটর বাইকে আগুন ধরিয়ে দেন এলাকাবাসী।সঞ্জিত প্রামানিক(এম এ প্রথম বর্ষের ছাত্র) নামে ১জনকে পিটিয়ে মেরে দেয় এলাকার মানুষ। 2-নাকাশিপাড়ায় গুলিবিদ্ধ হয়ে এক তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। মৃতের নাম ভোলা শেখ দফাদার। বাড়ীর লোকের অভিযোগ তীর নির্দল এর দিকে। ৩- তেহট্ট বুথ দখলকে কেন্দ্রকরে যে গন্ডগোল শুরুহয় তারই মাঝে পরে মারা যায় কৃষ্ণপ্রদ সরকার ৫৪ ।নদীয়ার যে তিনজন মারা তারা সবায় তৃণমূল কর্মী বলে জানা গেছে। পাশাপাশি বিজেপির অভিযোগ নদীয়ার বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বুথ দখল ,ছাপ্পা ভোট এবং একাধিক বিজেপি কর্মীদের মারধোর করা হয়েছে ।একাধিক বার প্রশাসন কে জানানো সত্ত্বেও তারা কোনো রূপ ব্যবস্থা নেয় নি।পাশাপাশি সাধারণ মানুষ এই পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়ছে নদীয়ার বিভিন্ন যায় গায়।প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তার ও প্রমাণ পাওয়া গেলো।

  • নদীয়ার ভক্তিনগরে বিজেপি প্রার্থী সহ তার দুই ভাইকে কোপানোর অভিযোগ

    News bazar24: বিজেপির এক গ্রাম পঞ্চায়েত প্রার্থী ও তার দুই ভাইকে কোপানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত  দুষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার ধুবুলিয়া থানার ভক্তনগরে। আক্রান্ত ওই বিজেপি প্রার্থীর নাম দিলীপ দেউরি।  আক্রান্ত হয়েছেন তার দুই ভাই সনৎ দেউরি ও অনুকূল বাড়ুই। এদিন রাতে তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ। ধুবুলিয়া থানার পুলিশ তাদের উদ্ধার করে শক্তিনগর হাসপাতালে পাঠায়। জেডপি ২৭ মন্ডলের বিজেপি সভাপতি নারায়ন দেবনাথ বলেন, ” তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিরা আমাদের প্রার্থী দিলীপ দেউরি ও তার দুই ভাইকে কুপিয়ে খুনের চেষ্টা করে। আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ জানাবো। থানাতেও অভিযোগ জানানো হবে। তার প্রস্তুতি নিচ্ছি।” তৃণমূল তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সম্পূর্নভাবে অস্বীকার করেছে। তৃণমূলের অভিযোগ এটা বিজেপির গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের ফল।  দিলীপ দেউরি এবারে ৮৫/৯৭ নং বুথের বিজেপির প্রার্থী। তিনি ধুবুলিয়া -১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সিপিএমের প্রাক্তন প্রধান ছিলেন। সম্প্রতি তিনি সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

  • ভোটের আগের দিন নদীয়া জেলা হাসপাতালে রুগীদের ছুটির ধুম।

    অভিজিৎ লুইস সরকার : নদীয়ার শক্তিগড় জেলা হাসপাতাল হঠাৎ করে রুগী শূন্য। যে হাসপাতালে শয্যা পাওয়া নিয়ে রোজ রুগীদের দৌড়াদৌড়ি করতে হয় সেই হাসপাতাল আজ সন্ধ্যার পর মূলত গড়ের মাঠ। সূত্রে জানা যায় হঠাৎ করেই হাসপাতালের অনেক ওয়ার্ড থেকে রুগীদের ছুটি নেবার ধুম পরে যায়। জোড় করে মুচলেকা দিয়ে রুগীদের বাড়ি যাওয়া নিয়ে কার্যত চিন্তিত হাসপাতাল কর্মীরা। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিৎসিক জানান, বেশিরভাগ রুগীই ভীষণ ভাবে অসুস্থ। এরা ছুটি নিয়ে গেলেও দু একদিনের মধ্যে রোগ বাড়িয়ে আবার হাসপাতালে আসবে। তবে কি কারণে এই ছুটির ধুম সে বিষয়ে তিনি মুখ খুলতে চান নি। এদিকে জেলার এক শ্রেণীর মানুষের অভিমত হয়ত কাল ভোট দেবার জন্য, বিশেষ কোনো রাজনৈতিক দলের চাপেই হোক বা লোভেই হোক ,পঞ্চায়েত ভোট দেবার জন্য যে ছুটি সেই বিষয়ে সন্দেহ নেই। সেই যায় হোক না কেন চাপেই হোক বা লোভেই, নদীয়া জেলার মানুষ ভোট সম্পকে যে সচেতন তা পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে হাসপাতালের চিত্র দেখে।

  • কৃষ্ণনগরে আরামবাগ চিকেনের মাংস বাজেয়াপ্ত করলো পৌরসভা

    অভিজিৎ সরকার :আজ কৃষ্ণনগরে বিভিন্ন হোটেল ও মাংসের দোকানে অভিযান চালায় কৃষ্ণনগর পৌরসভার ফুড ইন্সপেক্টর সহ সংশিলিষ্ট কর্মীরা ।শহরের বিভিন্ন হোটেল রেস্তোঁরা থেকে মাংস মাছ ও পনিরের নমুনা সংগ্রহ করে। উল্লেখ্য,আরামবাগ চিকেনের আউটলেট নিয়ে অভিযোগ ওঠে ,আরামবাগের পরিষ্কার করা গোটা ফ্রোজেন মুরগি প্যাকেট মাত্র ৬২ টাকা। যার উপর কোনো ,প্যাকেজিং তারিখ নেই। কবে প্যাকেট হয়েছে ,কতো দিন এই অবস্থায় রাখা যাবে ?প্যাকেট এর গায়ে কোন তথ্য নেই।কৃষ্ণগরের আরামবাগ আউটলেটের কতৃপক্ষকে জিজ্ঞাস করলে কোনো সদউত্তর পাওয়া যায়নি।নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং বাকি প্যাকেট গুলোকে নিয়ে যায় কৃষ্ণগর পৌরসভা।

  • নাদিয়ার কবি ও শিল্পী গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে রবিপ্রণাম অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলো।

    "তোমারেই যেন ভালোবসিয়েছি শত রূপে শতবার জনমে জনমে যুগে যুগে অনিবার।চিরকাল ধরে মুগ্ধ হৃদয় গাঁথিয়াছে গীতহার- কত রূপ ধরে পরছে গলায়,নিয়েছে সে উপহার জনমে জনমে যুগে যুগে অনিবার।।"আজ নাদিয়ার কবি ও শিল্পী গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে রবিপ্রণাম অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলো। কৃষ্ণনগর প্রধান ডাকঘর মোড়ে এই অনুষ্ঠানে কবিগুরুর মূর্তিতে মাল্যদান করেন বিশিষ্ট কবি প্রতিমা অধিকারী ।

  • কৃষ্ণনগর সান্যাল মার্কেটে অগ্নীকান্ডে ভস্মীভূত দোকান

    নিউজ বাজার24:কৃষ্ণনগর সান্যাল মার্কেটে ভয়াবহ অগ্নি কাণ্ডে একটি দোকান পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়।ঘটনা সূত্রে প্রকাশ, এদিন হঠাৎ ই আগুন দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। খবর দেওয়া হয় দমকলে। দমকলের দুটি ইঞ্জিন প্রায় ঘন্টা দুয়েক চেষ্টা করে আগুন কে নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে আগুন নিভাতে গিয়ে বেশ কয়েকজন স্থানীয় মানুষ আহত হন। বলা বাহুল্য,এই দোকান গুলো বেশিরভাগই কসমেটিকস এর দোকান। কসমেটিকস মানেই দাহ্য বস্তু। কমবেশি ৮২ টি দোকান এই বাজারে থাকলেও আগুন নিয়ন্ত্রণের কোন ব্যবস্থায় পৌরসভা এখন পর্যন্ত করতে পারেনি। যার ফল স্বরূপ আজ এই দুর্ঘটনা। স্থানীয় মানুষের মধ্য থেকে প্রশ্ন উঠেছে , এই দুর্ঘটনায় প্রচুর মানুষের জীবন হানী হতে পারতো। আগুন ছড়াতে পারতো বাজার সংলগ্ন বাড়িগুলোতে। অগ্নী নির্বাপণের যথাযথ ব্যবস্থা না করে এই বাজার চালু হলো কি ভাবে? পৌরসভার পুরপতিকে এই বিষয়ে জানতে চাইলে উনি প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান ।

  • কৃষ্ণনগরে বাস উল্টে মৃত ১,আহত ৪০

    অভিজিত সরকার :নদীয়ার কৃষ্ণনগর 34 নম্বর জাতীয় সড়কের উপর একটি বাস পাল্টি হবার ঘটনা ঘটে। ঘটনা স্থলেই এক জনের মৃত্যু হয় ও আহত হয় 40 জনের কাছাকাছি ।আহত দের কৃষ্ণ নগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ।মৃতের নাম রেখা ঘোষ (,42)l পুলিশ বাসটিকে আটক করেছে। ঘটনা সূত্রে প্রকাশ এদিন কৃষ্ণনগর থেকে বহরমপুর যাবার সময় আচানক 34 নম্বর জাতীয় সড়কের উপর হেমন্ত হিমঘরের সামনে বাসটি উল্টে যায়। সাথে সাথেই স্থানীয় লোকজন উদ্ধারকাজে নেমে পড়ে। আহতদের হাসপাতালে পাঠায়। বলাবাহুল্য 34 নম্বর জাতীয় সড়কের উপর প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটতে থাকায় ক্ষিপ্ত সাধারন মানুষ। যান নিয়ন্ত্রণের দাবি ওঠে সাধারণ মানুষের পক্ষে ।

  • নদীয়ায় ঝরে ব্যাপক ক্ষতি। গৃহহীন অসংখ্য মানুষ

    নিউজ বাজার 24 :আবহাওয়া দপ্তরের ইঙ্গিত মত ঝড় তার শক্তি দেখালো নদীয়া জেলা জুড়ে । আজ ভোর রাতে হটাৎ মেঘের গর্জনে সাথে সাথে তীব্র গতিতে ঝড় সব কিছু তছনছ করে দেয় । 20 মিনিটের ঝড়ে তোলপাড় করে দেয় নাদিয়া বিভিন্ন এলাকা ।প্রশাসনীক সূত্রে জানা যায়, এই বৈশাখী ঝড় বেশ বড় অঙ্কের ক্ষতি হয়েছে । নষ্ট হয়েছে চাষের ফসল ।প্রচুর কাঁচা বাড়ী ভেঙে যাওয়ায় গৃহ হীন প্রচুর মানুষ ।এদিকে গাছ ও গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়ায় ,34 নম্বর জাতীয় সড়ক সহ নাদিয়ার বিভিন্ন রাস্তায় যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাই। ঝড় এর দাপটে নাদিয়ার হাঁসখালিতে ও প্রচুর ক্ষতি হয় বেশ কিছু মানুষ গৃহহীন হয়ে পরেছে । নদিয়ার বেশির ভাগ জায়গায় বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়ায় খবর লেখা অবধি বিদ্যুৎ হীন হয়ে আছে ।/p>

  • খাদ্যে বিষক্রিয়ায় মুর্শিদাবাদএ এক আশ্রমে মৃত ১ , অসুস্থ আরও ৭জন।

    Newsbazar, ৫ মে : খাদ্যে বিষক্রিয়ায় মুর্শিদাবাদএ এক জনের মৃত্যু, ঘটনাটি ঘটেছে  নবগ্রাম থানার চানক এলাকার বেসরকারি আশ্রমে।  মৃতের নাম প্রতিমা মাড্ডি (১৭)।সে ঐ আশ্রমের  আবাসিক ছিল।  ঐ আশ্রমে আরও আরও ৭জন অসুস্থ হয়ে পড়েছে । তাদের নবগ্রাম ব্লক হাসপাতাল ও জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনায় খাদ্যের নমুনা সংগ্রহ করে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুর্শিদাবাদ জেলাশাসক পি উলগানাথন।  চানকের ওই আশ্রমে আদিবাসী ছেলে-মেয়েরা। আবাসিক হিসাবে থেকে পড়াশোনা করে।সেখানেই খাদ্যে  বিষক্রিয়া ঘটেছে বলে অভিযোগ।  মাংস জাতীয় কিছু খাওয়ানো হয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিরুপম বিশ্বাস ঘটনাস্থান থেকে খাদ্যের নমুনা সংগ্রহ করে এনেছেন। জেলাশাসক পি উলগানাথন জানান, অসুস্থ পড়ুয়াদের হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এখনও পর্যন্ত সাতজনকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।  

  • নদীয়ার চাপরায় বাস উল্টে মৃত ১ , আহত 22

    News bazar24 : নদিয়ার চাপড়া থানার অধীনস্ত ,ছোট আন্দুলিয়া তে বাস উল্টে নিহত বাসের কন্ডাক্টর সহ আহত বেশ কয়েকজন যাত্রী। মৃত বাস কন্ট্রাক্টরের নাম সাইফুল সেখ( 32) ! ঘটনা সূত্রে প্রকাশ, আজ সকাল আট টা নাগাদ কৃষ্ণনগর করিমপুর রাজ্য সড়কের উপর ঘটনাটি ঘটে ,অভিশপ্ত বাসটি কৃষ্ণনগর থেকে করিমপুরে দিকে যাচ্ছিলো, হঠাৎ নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বাসটি রাস্তার উপর পাল্টি খেয়ে যায়। ঘটনার পরই স্থানীয়রা আহতদের চাপড়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে কন্ট্রাক্টর কে মৃত বলে ঘোষণা করে এবং গুরুতর জখম বারো জন যাত্রীকে কৃষ্ণনগর জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়।

  • নদীয়ার চাপরাই বাজ পড়ে মৃত এক

    অভিজিত সরকার,news bazarer:আজ বিকেলে বাজ পড়ে মৃত্যু হল এক চাষীর । মৃতের নাম প্রেম চাঁদ মন্ডল(45) ।নদীয়া র চাপরা থানার অন্তর্গত হাতিসলাই গ্রামের ঘটনা। ঘটনা সূত্রে প্রকাশ, আজ বিকেলে জমি থেকে চাষের কাজ করে ফেরার সময় হঠাৎ তাঁর উপর বাজ পরে। স্থানীয় লোকেরা সাথে সাথে চাপরা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে। উল্লেখ্য দুদিন আগে বাজ ও কালবৈশাখীর কবলে রাজ্যে 12 জনের মৃত্যু হয়।

  • মুর্শিদাবাদ জেলায় আবার আক্রান্ত সিপিএম বিধায়ক সহ জেলা পরিষদ প্রার্থী

    ডেস্ক, ১ মে :  মুর্শিদাবাদ জেলায় পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে আবার গণ্ডগোল। এবার  হামলার মুখে সিপিএম এর বিধায়ক ও জেলা পরিষদের ২৪ নম্বর আসনের  সিপিএম  প্রার্থী ইলা পান্ডে।  তার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বিধায়ক মহসিন আলিকেও মারধর করে হেনস্থা করা  হয় বলে অভিযোগ। ভগবানগোলা থানা এই ঘটনার অভিযোগ না নেওয়ায় এসডিপিও-র কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন বিধায়ক।   সূত্রে জানা যায় , আজ সকালে মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদের ২৪ নম্বর আসনের  সিপিএম  প্রার্থী ইলা পান্ডের বাড়িতে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ভাঙচুর চালায়। এর পর এলাকার বিধায়ক মহসিন আলি এই ঘটনার অভিযোগ জানাতে ইলা পান্ডেকে নিয়ে থানায় যান । অভিযোগ জানিয়ে বাড়ি ফেরার পর তৃণমূল আশ্রিত দুষ্ক়ৃতীরা  প্রথমে মহসিন আলির উপর চড়াও হয় তারপর তার বাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয় বলে অভিযোগ । তাঁর গাড়িতেও ভাঙচুর চালানো হয়।