���������������

  • আট থেকে আশি, বসন্ত উৎসবে রেঙ্গে গেলো মালদার অলি গলি

    সুমিত ঘোষ : একটি নৃত্য প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার আয়োজন করা হলো বসন্ত উৎসবের। এই মর্মে এদিন সকালে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছিল গোটা মালদা শহর জুড়ে। আট থেকে আশি, হলুদ এবং লাল পড়া শাড়ি পড়ে প্রভাতফেরিতে পা মেলান মহিলারা। প্রভাত ফেরীতে পা মেলান জেলা পরিষদের মেন্টর কৃষ্ণেন্দু নারায়ন চৌধুরী এবং বিশিষ্ট শিল্পী তপন পন্ডিত। জানা যায় পরে এই প্রভাতফেরি গিয়ে শেষ হয় শুভঙ্কর শিশু উদ্যানে। সেখানে বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উদযাপন করা হয় বসন্ত উৎসব। একে অপরের গালে রং বাহারি রঙ মাখিয়ে এবং আলিঙ্গন করে বসন্ত উৎসবে শামিল সকলে।

  • মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকএ ব্যাপক রক্তের সংকট ।

    মালদা,২০ মার্চঃ  নির্বাচন ঘোষনার পর কোন রাজনৈতিক দল রক্তদান শিবির  করতে পারে না তার জন্য মালদা মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক রক্তের সংকটে ভুগছে।বুধবার মালদা শহরের ফোয়ারা মোড় এলাকায় ডিস্ট্রিক ভলান্টারী ব্লাড ডোনার এসোসিয়েশন ও মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে যৌথ উদ্যোগে ব্লাড ডোনেশন ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। এই দিনের অনুষ্ঠান আয়োজক মালদা ডিস্ট্রিক ভলান্টারী ব্লাড ডোনার এসোসিয়েশনের সম্পাদক উত্তম কুমার ঝা সংবাদমাধ্যমকে জানান বর্তমান মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক শূন্য। যেখানে আমাদের প্রত্যেক মাসে বেসরকারি নার্সিং হোম ও হাসপাতাল মিলিয়ে রক্তের চাহিদা থাকে ২৩০০০ ইউনিট।নির্বাচন ঘোষণ পর কোন রাজনৈতিক দল রক্তদান শিবির করতে পারেবে না। শুধু পারে একমাত্র ভলেন্টিয়ারি  অর্গানাইজেশনরা আমরা মালদা ডিস্ট্রিক ভলান্টারী ব্লাড ডোনার এসোসিয়েশন ও মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে যৌথ উদ্যোগে বুধবার ব্লাড ডোনেশন ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছে। এই দিন প্রায় শতাধিক মানুষ রক্তদান করেছেন এই শিবিরে। আশা করা যায় সামনের দোল উৎসবে হাসপাতালে ব্লাড ব্যাংকের রক্তশূন্যতা থেকে কিছুটা রেহাই পাওয়া যাবে।হক জাফর ইমাম। মালদা। নির্বাচন ঘোষণ পর কোন রাজনৈতিক দল রক্তদান শিবির করতে পারে না তার জন্য মালদা মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক রক্তের সংকটে ভুগছে।বুধবার মালদা শহরের ফোয়ারা মোড় এলাকায় ডিস্ট্রিক ভলান্টারী ব্লাড ডোনার এসোসিয়েশন ও মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে যৌথ উদ্যোগে ব্লাড ডোনেশন ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। এই দিনের অনুষ্ঠান আয়োজক মালদা ডিস্ট্রিক ভলান্টারী ব্লাড ডোনার এসোসিয়েশনের সম্পাদক উত্তম কুমার ঝা সংবাদমাধ্যমকে জানান বর্তমান মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক শূন্য। যেখানে আমাদের প্রত্যেক মাসে বেসরকারি নার্সিং হোম ও হাসপাতাল মিলিয়ে রক্তের চাহিদা থাকে ২৩০০০ ইউনিট।নির্বাচন ঘোষণ পর কোন রাজনৈতিক দল রক্তদান শিবির করতে পারেবে না। শুধু পারে একমাত্র ভলেন্টিয়ারি  অর্গানাইজেশনরা আমরা মালদা ডিস্ট্রিক ভলান্টারী ব্লাড ডোনার এসোসিয়েশন ও মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে যৌথ উদ্যোগে বুধবার ব্লাড ডোনেশন ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছে। এই দিন প্রায় শতাধিক মানুষ রক্তদান করেছেন এই শিবিরে। আশা করা যায় সামনের দোল উৎসবে হাসপাতালে ব্লাড ব্যাংকের রক্তশূন্যতা থেকে কিছুটা রেহাই পাওয়া যাবে।রক্তের সংকটে ভুগছে মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক।

  • রাহুল গান্ধীর সভাস্থলে জোরদার নিরাপত্তা ব্যাবস্থা, বসানো হল একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা।

    মালদা, ২০ মার্চ:  ২০১৯ লোকসভার নির্বাচনী প্রচার সমাবেশে যোগ দিতে  মালদায় কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী সভাস্থলে নিরাপত্তার নজরদারির জন্য একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা। আগামী ২৩শে মার্চ মালদার চাঁচলের কলমবাগান ময়দানে আসছেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী। সভাস্থলের নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখতে বুধবার দিল্লি থেকে এস পি জি – র টিম চাঁচলের কলমবাগান মাঠে আসে। এদিন সমাবেশ প্রাঙ্গণ পরিদর্শন সহ নিরাপত্তার বিষয়টিগুলিও খতিয়ে দেখেন এস পি জি -র টিম। ওই টিমের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিনিধিরা কথা বলেন দমকলের আধিকারিক ও জেলা পুলিশের কর্তাদের সঙ্গেও । পুলিশ ও প্রশাসন সূত্র থেকে জানা গেছে , রাহুল গান্ধীর জেলা সফরে নিরাপত্তার যেন কোন ফাঁক না থাকে সেদিকে বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে । সভাস্থল ঘিরেও কড়া নজরদারি থাকবে । কন্ট্রোল রুম করা হচ্ছে । বসানো হচ্ছে একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরাও । উল্লেখ্য, এদিন ওই ময়দানে উত্তর মালদহের কংগ্রেসের প্রার্থী ঈশা খান সহ কংগ্রেসের বিশিষ্ট নেতৃত্বও উপস্থিত ছিলেন । ঈশা খান বলেন , ” সভাস্থলের নিরাপত্তার বিষয়গুলো খতিয়ে দেখতে এসপিজি-র টিম আজকে এই মাঠ পরিদর্শন করেছেন । ” তিনি আরোও বলেন , ” মালদার মাটি কংগ্রেসের মাটি , মালদার মাটি বরকত গনি খান সাহেবের মাটি , প্রিয়দার মাটি। জোট হোক , আর না হোক , কংগ্রেস আপন শক্তিতেই মালদায় উত্তর ও দক্ষিণ দুই কেন্দ্রেই জিতবে । আমাদের নিজেদের শক্তির উপরে ভরসা আছে ।

  • মালদায় লোকসংগীতের কদরে মোহর ও স্বপ্নউড়ান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে ।

    মালদা, ২০ মার্চ:  মোহর ও স্বপ্নউড়ান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে  মালদা দূর্গাকিংকর সদনে লোকসংগীত সন্ধ্যা আয়োজন করা হয়। এই দিনের লোকসংগীত সন্ধ্যায় উপস্থিত ছিলেন বিখ্যাত লোকগীতিকার অভিজিৎ বসু ও তীর্থ বিশ্বাস।এই দিনের অনুষ্ঠানে মোহর ও স্বপ্নউড়ান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার পক্ষ থেকে বিশিষ্ট সমাজ সেবক হিসাবে ভারতীয় রেডক্রস সমিতি মালদা শাখার সম্পাদক ডাক্তার ডি.সরকাররের হাতে একটি মোমেন্টো তুলে দেওয়া হয়  এছাড়াও বিখ্যাত লোকগীতিকার অভিজিৎ বসু ও তীর্থ বিশ্বাসের হাতেও একটি করে মোমেন্টো তুলে দেওয়া হয়। এই দিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডাক্তার ডি বোস, দেবশ্রী সরকার বোস, মালদা গ্লো নার্সিংহোমের সি ই ও সুমিত  সরকার  প্রমূখ। এই দিনের লোকসংগীত সন্ধ্যা অনুষ্ঠানের শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে স্বপ্নউড়ান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্য সুমিত সরকার সংবাদমাধ্যমকে বলেন আমরা লক্ষ্য করে দেখেছি লোকসংগীতের প্রতি আকর্ষণ দিনের পর দিন কমে চলেছে আমাদের লক্ষ্য সাধারণ মানুষের পাশে থেকে তাদের জন্য কাজ করা তার সাথে লোকসংগীতের ওপর মানুষের চাহিদা বাড়ানো।

  • মালদা কলেজ ছাত্র সংসদের উদ্যোগে বুধবার বসন্ত উৎসবে সামিল মালদা উত্তরের তৃণমূল প্রার্থী মৌসম বেনাজির নুর।

    মালদা, ২০ মার্চ:  মালদা কলেজের বসন্ত উৎসবে ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে আবির , রঙ খেলে নাচে-গানে খোশমেজাজে সময় কাটালেন মালদা উত্তর কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ পদপ্রার্থী মৌসম বেনাজির নুর।যদিও তিনি এবারের লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল দলের প্রার্থী পদে দাঁড়িয়েছেন কিন্তু আজ কোন নির্বাচনের প্রচার নয়। বুধবার দিনটা পুরোপুরি মালদা কলেজের ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে দোল উৎসবে পালন করে অনেকটা সময় কাটালেন মৌসম নুর। তিনি বলেন,  আমি শিক্ষা কেন্দ্রের রাজনীতি করতে আসি নি।  কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা আমাকে বসন্ত উৎসবে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন।  ওদের আমন্ত্রণ পেয়ে আমি এসেছি। এদিন দোল উৎসব পালনের সময় কলেজ লাইফের কথা মনে পড়ে গেল।  একটা সময় আমিও এভাবে কলেজে বসন্ত উৎসব করেছি। বন্ধু-বান্ধবদের নিয়ে নাচ-গান এবং সংস্কৃতি চর্চাই মাতোয়ারা থাকতাম।  এদিন আমাকে সেই বাল্যকালের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছে। বুধবার মালদা কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্যোগে বসন্ত উৎসব পালিত হয়।  এই কলেজেই মঞ্চ করে সংস্কৃতি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয় এই বসন্ত উৎসব । সেখানেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল তৃণমূল সাংসদ মৌসুম নূরকে।  মৌসম নুর আসতেই কলেজ পড়ুয়া নতুন ভোটাররা ঘিরে ধরেন সংসদকেকে। দুই গালে রঙ মাখিয়ে এবং ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেন মৌসম নূরকে। ছাত্র-ছাত্রীদের এই বাঁধ ভাঙ্গা অভিনন্দনের উচ্ছ্বাস আর ধরে রাখতে পারেন নি সাংসদ মৌসম বেনাজির নুর। একটা সময় কলেজের ছাত্রীদের সঙ্গে আবির মেখে হাতে হাত মিলিয়ে রবীন্দ্র সংগীতের তালে তালে নৃত্য করেন সাংসদ মৌসম বেনাজির নুর। এরপর মোবাইলে সেলফি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন কলেজ পড়ুয়ারা।  রঙিন সাজে সজ্জিত কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেদের মধ্যেই আবির,  রঙ নিয়ে বসন্ত উৎসব পালন করেন। এদিন সংসদ মৌসুম বেনাজির নূর বলেন,  এবারে আমি উত্তর মালদা লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল দলের প্রার্থী হয়েছি।  কিন্তু মালদা কলেজ দক্ষিণ মালদা লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত । তাই আমি এখানে কোন রকম রাজনীতি এবং ভোট প্রচার করতে আসি নি।  শুধু ছাত্র-ছাত্রীদের আমন্ত্রণ পেয়ে বসন্ত উৎসবে সামিল হয়েছি। কোন রাজনৈতিক বার্তা আমি এই শিক্ষা কেন্দ্রে থেকে দিতে চাই না।  বসন্ত উৎসবে শামিল হয়ে আনন্দ উপভোগ করেছি।মৌসুম বেনাজির নূর আরও বলেন,  এদিনের উৎসবে আমার ছোটবেলার কলেজ লাইফের কথা মনে করিয়ে দিয়েছে।  রাজনীতির বাইরে আমি সবার অনুরোধে এই উৎসবে শামিল হতে পেরেছি । এতে খুব ভালো লাগছে।  পড়ুয়ারাও আমার সঙ্গে এদিন রং খেলেছে । তবে শুক্রবার পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন জায়গায় দোল উৎসব পালন হবে । বিভিন্ন জায়গায় আমি বসন্ত উৎসবের অনুষ্ঠানে যাওয়ার চেষ্টা করব।  পাশাপাশি পরিবারের সঙ্গেও সময় কাটাব । এই দুই দিনের জন্য কোন রাজনৈতিক কর্মসূচি আমি রাখিনি।

  • গ্রামের হাতুড়ে চিকিৎসকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।

    মালদা, ২০ মার্চ:  গ্রামের হাতুড়ে ডাক্তারের গলায় তার পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে   খুন করার অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, মঙ্গলবার বিকেলে মালদা হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পশ্চিম বাঁধ এলাকায়।  আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পরিবারের লোকেরা প্রথমে স্থানীয় গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে স্থানান্তর করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে। কিছুক্ষণ চিকিৎসা চলার পর তার মৃত্যু হয়। পরিবারের লোকেরা অবশ্য কে বা কারা ওই হাতুড়ে চিকিৎসক কে খুন করেছে তা বলতে পারেনি।  পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতের পরিবারের লোকেরা।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত হাতুড়ে চিকিৎসকের নাম জয়নাল আলী(৩০)। বাড়ি মালদা চাঁচল থানার মোবারক পুর এলাকায়। জানা গিয়েছে, বাড়ি থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে তাকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। মালদা হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পশ্চিম বাঁধের ধারে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। তার মোটরবাইকটিও সেখান থেকে উদ্ধার করা হয়। মৃতর পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে ওষুধ বিক্রি করতে অন্য গ্রামে যাওয়ার জন্য বেরিয়েছিল জয়নাল। কেউ বা কারা তাকে রাস্তায় একলা পেয়ে খুন করার চেষ্টা করে। তার গলায় ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত তারা তারা বলতে পারেননি। পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। তবে ঠিক কি কারণে খুনের ঘটনা ঘটলো, তা কিনারা করতে তদন্ত শুরু করেছে মালদা হরিশচন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

  • লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে মার্ক্সবাদী কমিউনিস্ট পার্টির মালদা জেলা কমিটির উদ্যোগে কর্মী সভা।

    মালদা, ১৯ মার্চঃ মালদা জেলা মার্ক্সবাদী কমিউনিস্ট পার্টির পক্ষ থেকে মালদা জেলায় দুটি কর্মী সভার আয়োজন করা হয়েছিল প্রথমটি হয় সামসিতে এবং দ্বিতীয়টি হয় পুরাতন মালদার মঙ্গলবাড়ির  একটি বেসরকারি প্রেক্ষাগৃহে। আজকের এই মালদা সদর মহকুমা  কর্মীসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য সিপিএমের সাধারন সম্পাদক কমরেড সূর্যকান্ত মিশ্র এছাড়া উপস্থিত ছিলেন মালদা জেলা সিপিএমের জেলা  সম্পাদক অম্বর মিত্র, বামফ্রন্ট নেতা বিশ্বনাথ ঘোষ সহ অন্যান্য জেলা বাম নেতৃত্ব। আজকের এই কর্মীসভায় সদর মহকুমার অন্তর্গত বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন বাম কর্মীরা আজকের এই কর্মীসভায় অংশগ্রহণ করে এবং এই কর্মীসভায় মূল আলোচ্য বিষয় ছিল বর্তমান পরিস্থিতি এবং বামফ্রন্টের কি কর্তব্য রয়েছে । যদিও আজকের এই কর্মীসভায় সাংবাদিকদের প্রবেশ নিষেধ ছিল তবুও কর্মী সভা শুরু হওয়ার আগে মালদা জেলার বামফ্রন্টের জেলা সম্পাদক অম্বর মিত্রকে এই কর্মী সভার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান যে কর্মীদের নিয়ে দলের বিভিন্ন আভ্যন্তরীণ আলোচনা এবং তাদের ভূমিকা কি থাকবে জনসংযোগ কিভাবে বাড়ানো যাবে  নিচের স্তরে তা নিয়ে আজকের আলোচ্য বিষয়। আজকের কর্মীসভায় মূল স্লোগান ছিল "বিজেপি হটাও দেশ বাঁচাও "এবং "তৃণমূল হটাও বাংলা বাঁচাও "  সবশেষে জোটের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি প্রশ্ন উত্তর এড়িয়ে যান।

  • উত্তর মালদা কেন্দ্রের জাতীয় কংগ্রেসের প্রার্থী ঘোষিত হওয়ার সাথে সাথেই দেওয়াল লিখনের মাধ্যমে প্রচার শুরু

    মালদা, ১৯ মার্চ : মঙ্গলবার পুরাতন মালদার মঙ্গলবাড়ী অঞ্চলের কংগ্রেস কর্মীরা উত্তর মালদা কেন্দ্রের জাতীয় কংগ্রেসের প্রার্থী ইশা খান চৌধুরীর সমর্থনে দেওয়াল লিখনের মাধ্যমে  প্রচার শুরু করে দিল ময়না ।এই দেওয়াল লিখনে হাতে তুলে নিয়ে দেখা গেল মঙ্গলবাড়ী অঞ্চলের প্রধান সাহেবা সুরাইয়া বিবি ও মালদা জেলা ছাত্র পরিষদের সভাপতি মান্তু ঘোষ সহ অন্যান্য কংগ্রেস নেতৃত্ব ।আজকে এই দেওয়াল লিখনে কংগ্রেস কর্মীদের মন উৎফুল্ল দেখা গেল এবং তাদের দাবি যে , তাদের প্রার্থী গনি পরিবারের ও আবু হাসেম খান চৌধুরীর ছেলে ইশা খান চৌধুরী ,উত্তর মালদা কেন্দ্রে জয়ী হবেই। তাদের বক্তব্য যে মালদার মানুষ বেইমান দের কে ভোট দেবে না কারণ মৌসম নূর নাকি নিজেই  বলেছে মালদায় আর গণি মীত নেই, তাই কংগ্রেস কর্মীরা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় যে মালদায় গণি মীত আছে কিনা এই ভোটেই প্রমাণ হয়ে যাবে কারণ মৌসম নূর আর কোনদিনও উত্তর মালদার সাংসদ হতে পারবে না।

  • মোবাইলে চার্জ করতে গিয়ে বৈদ্যুতিক শখ লেগে মৃত্যু যুবকের।

    মালদা, ১৯ মার্চ : মোবাইলে চার্জ করতে গিয়ে  বৈদ্যুতিক শখ লেগে মৃত্যু হল  এক যুবককের। মঙ্গলবার সকালে বৈষ্ণবনগর থানার কুম্ভিরা পঞ্চায়েতের জোত চাঁইপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে মৃতের পরিবারে। পুলিশ ও পরিবার সুত্রে জানা গিয়েছে মৃত যুবককের নাম বুলেট মন্ডল(২৬)। বেসরকারি ব্যাঙ্কের কর্মী ছিলেন। মঙ্গলবার সকালে বাড়িতে ফোন চার্জ দেওয়ার  সময় ইলেকট্রিক শখ লাগে। মাটিতে উল্টে পড়লে পরিবারের লোকেরা তাকে   উদ্ধার করে স্থানীয় বেদরাবাদ গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে আসে পরিবারে

  • ভারতীয় রেডক্রস সমিতি মালদা শাখার উদ্যোগে দুস্থ অনাথ কন্যা সন্তানদের স্বাস্থ্য শিবির।

    মালদা, ১৯ মার্চ : মঙ্গলবার দুপুরে ভারতীয় রেডক্রস সমিতি মালদা শাখার উদ্যোগে দুস্থ অনাথ কন্যা সন্তানদের স্বাস্থ্য শিবির আয়োজন করা হয় মালদা শহরের মালদা গ্লো নার্সিংহোমে। এই দিনের স্বাস্থ্য শিবিরে জাকিয়া মহাদুল উলুম এতিমখানা ওয়েলফেয়ার এডুকেশন সোসাইটি প্রায় ৭৩ টি দুস্থ অনাথ কন্যা সন্তানদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও ওষুধ প্রদান করা হয়। এই দিনে স্বাস্থ্য শিবিরে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় রেডক্রস সমিতি মালদা শাখার সম্পাদক ডঃ ডি সরকার,ডঃ দেবশ্রী সরকার বোস,মালদা গ্লো নার্সিংহোমের এইচ আর সুমিত সরকার, জাকিয়া মহাদুল উলুম এতিমখানা ওয়েলফেয়ার এডুকেশন সোসাইটির শিক্ষক আব্দুল কালাম আজাদ প্রমূখ। অনুষ্ঠান শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ডাক্তার ডি বোস জানান আমরা প্রতি বছর ভারতীয় রেডক্রস সমিতির মাধ্যমে বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে থাকি আজ সেটারই একটি অঙ্গ। বর্ণ ভুলে গিয়ে অসহায় দুস্থ কন্যা সন্তানদের পাশে থাকতে পেরে নিজেকে গর্ববোধ মনে হচ্ছে নিজেকে। এর আগে শীতের সময় আমাদের সংস্থা থেকে শীতের কম্বল দুস্থ কন্যা সন্তানদের বিতরণ করা হয়েছিল আজ তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। আজ থেকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুর বাগিচা পুরের জাকিয়া মহাদুল উলুম এতিমখানা ওয়েলফেয়ার এডুকেশন সোসাইটি দুস্থ কন্যা সন্তানদের চিকিৎসার ভার ভারতীয় রেডক্রস সমিতি মালদা জেলা শাখার তরফ থেকে নেওয়া হলো। চিকিৎসা পরিষেবা পেয়ে জাকিয়া মহাদুল উলুম এতিমখানা ওয়েলফেয়ার এডুকেশন সোসাইটির শিক্ষক আব্দুল কালাম আজাদ ভারতীয় রেডক্রস সমিতির মালদা শাখা সম্পাদক ডাক্তার ডি সরকারকে ধন্যবাদ  জানিয়েছেন।