সারা ভারত

  • কেরলের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্যকে ৫০০ কোটি টাকা এবং মৃতদের ও গুরুতর আহতদের আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

    Newsbazar 24, ডেস্ক, ১৮ই আগস্টঃ কেরলের ভয়াবহ বন্যা  পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৫০০ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার সকালে কোচিতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নকে একথা জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গে আপতকালীন পরিস্থিতিতে মৃতদের পরিবারকে ২০০,০০০ টাকা এবং গুরুতর আহতদের ৫০,০০০ টাকা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন তিনি। শনিবার সকালেই তিরুঅনন্তপুরম থেকে কোচিতে চলে আসেন নরেন্দ্র মোদী। সেখান থেকে প্রথমে আকাশপথে বন্যা পরিদর্শনের কথা থাকলেও তা বাতিল করে তিনি বৈঠকে বসেন। যাতে উপস্থিত ছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন, রাজ্যপাল সাথাশিবম এবং রাজ্যের অন্যান্য মন্ত্রী থেকে শুরু করে তিন বাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ আধিকারীকরা। এই বৈঠকেই ৫০০ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্যের ঘোষণার পরই আকাশপথে বন্যা পরিদর্শনে বের হন তিনি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন এবং রাজ্যপাল। পরে প্রধানমন্ত্রী জানান পরিস্থিতি মোকাবিলায় এনডিআরএফ, বিএসএফ, সিআইএসএফ, রাফ নামানো হয়েছে। এরা সকলেই নানাভাবে উদ্ধারকাজে এবং দুর্গত এলাকায় যোগাযোগ স্থাপনের জন্য কাজ করছেন। এমনকী কেরলের একটা অংশে বায়ু সেনা ও নৌসেনা, কোস্ট গার্ডও কাজ করে চলেছে। বিভিন্ন স্থানে যে সব মানুষ গুরুতর অবস্থায় জলবন্দি হয়ে আছে তাদের আগে নিরাপদ স্থানে সরানোটাই লক্ষ্য বলেও জানান নরেন্দ্র মোদী। কেরলের বন্যা পরিস্থিতিতে আর্থিক সাহায্যের সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধারকারী দলকেও পাঠিয়েছে ওড়িশা। যার মধ্যে রয়েছেন ২২৫জন দমকল কর্মী, ৭৫টি লাইফ সেভিং পাওয়ার বোটের সঙ্গে ১৫ জন সুপারভাইজার। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার তরফেও কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২ কোটি টাকা দান করা হয়েছে। তামিলনাড়ুর ইরোডে থেকে শুক্রবার বিকেলে কেরলের বন্যা বিধ্বস্ত এলাকায় ২.৮ লক্ষ পানীয় জল পাঠানো হয়।  

  • পঞ্চভূতে বিলীন হলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী

    Newsbazar24:শুক্রবার বিকেল ৫.০০টায় দিল্লির স্মৃতি স্থল শ্মশানে গান স্যালুটে তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানান তিন বাহিনীর সদস্যরা। সেই সময় সেখানে হাজির ছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী-সহ মন্ত্রিসভার সমস্ত সদস্য। ছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী-সহ দেহের তাবড় নেতা।মুখাগ্নি করলেন মেয়ে নমিতা ভট্টাচার্য।

  • কেরলের বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ এখনও পর্যন্ত বন্যায় মৃত ১৬৪ জন ।

    Newsbazar.24,ডেস্ক, ১৭ আগস্টঃ কেরলের বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারন করেছে। এখনও পর্যন্ত বন্যায় মারা গিয়েছেন ১৬৪ জন ।  রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, পম্পা, পেরিয়ার চালাকুডি নদীগুলি থেকে এখনও দুকূল ছাপিয়ে জল ঢুকছে। আল্লাপ্পুঝা, এর্নাকুলাম, পথনমথিত্তা এবং ত্রিশুর - এই চার জেলার পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ বলে জানান তিনি। বর্তমানে রাজ্যে  মোট ১৫৬৮ টি রিলিফ ক্যাম্প চলছে । সেখানে আশ্রয় নিয়েছেন প্রায় ২ লক্ষ ২৩ হাজার গৃহহীন মানুষ। কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন ফুড প্যাকেট দেওয়া হছে । কিন্তু বন্যাক্রান্ত মানুষগুলোর জন্য তা যথেষ্ঠ নয় বলেই জানিয়েছে রাজ্য।     বিজয়ন জানিয়েছেন, পথনমাথিত্তার বিভিন্ন এলাকায় এখনও বেশ কিছু মানুষ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছেন। নৌকোয় করে তাদের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার কাজ কঠিন হচ্ছে। তাই জেলা-প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই মানুষদের হেলিকপ্টারে করে তুলে রিলিফ ক্যাম্পে নিয়ে আসার। জানা গিয়েছে ওই এলাকার অধিকাংশ বাড়িরই একতলা চলে গিয়েছে জলের তলায়। কেউ কেউ ছাদে, কেউ বা বাড়ির দোতলায় আশ্রয় নিয়েছেন। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে হেলিকপ্টারের সাহায্যে তাঁদের উদ্ধারের কাজ শুরু হয়েছে। গোটা রাজ্যে সেনাবাহিনীর  ১৪ টি  দল , নৌসেনাবাহিনীর ১৩ টি দল  ও উপকূলরক্ষা বাহিনীর ২৮ টি  দলও কাজ করছে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে। ত্রিশুরে, ১০টি ওয়ায়ান্দে, ৪টি চেঙ্গান্নুরে, ১২টি আলওয়ে-তে  ও আরও ৩টি দল নিযুক্ত আছে পথনমথিত্তায়।  উপকূলরক্ষা বাহিনীর  দুটি হেলিকপ্টার ও ৩টি  নৌসেনার হেলিকপ্টার উদ্ধারের ও ত্রাণের কাজে নিযুক্ত রয়েছে । বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর ৩৯ টি দল কাজ করছে কেরালায়। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন আরও ১৬ দল চেয়েছেন কেন্দ্রের কাছে। কেরলের মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, ইদ্দুকি ও ওয়ায়ান্দ জেলাদুটি রাজ্যের বাকি অংশ থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। তাদের সঙ্গে যোগাযোগ ফেরানোর কাজ চলছে। বৃষ্টি এই দুই জেলায় অনেকটাই ধরে এসেছে বলে দ্রুত জল নামার আশা করেছেন বিজয়ন। কেরালার মুখ্যমন্ত্রীরাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে আবেদন জানিয়ে বলেছেন   ভয় পাওয়ার কিছু  নেই , রাজ্য ও  কেন্দ্রের যাবতীয় মেশিনারিকে উদ্ধার ও ত্রাণের কাজে লাগানো হয়েছে ।  প্রত্যেকের কাছে সাহায্য ও অবশ্যই পৌঁছবে। পাশাপাশি রাজ্যবাসীকে শান্ত থাকতে ও উদ্ধারকারীদের নির্দেশ মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।    

  • আল বিদা : অপেক্ষা আর কিছুক্ষণের। তার পরই পঞ্চভূতে বিলীন হবেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী।

    Newsbazar24:আর কিছুক্ষণের অপেক্ষা। তার পরই পঞ্চভূতে বিলীন হবেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী। দিল্লিতে বিজেপির নবনির্মিত সদর দফতরে সাধারণের শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছিল সদর দরজা। সেখান থেকে বেলা ঠিক ২টোয় শুরু হয় শেষ যাত্রা। উদ্দেশ্য দিল্লির স্মৃতি স্থল। সেখানেই সম্পন্ন হবে অটলজির শেষকৃত্য। শেষ যাত্রায় সামিল হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ ও সেনার তিন বাহিনীর প্রতিনিধিরা। বিকেল ৪টেয় স্মৃতি স্থলে শেষকৃত্য সম্পন্ন হওয়ার কথা অটল বিহারী বাজপেয়ীর। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে রাস্তার দু'ধারে অপেক্ষা করছেন লক্ষ লক্ষ মানুষ।পায়ে হেঁটে দিল্লির দরবার। পায়ে হেঁটে প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ বিভিন্ন রাজ্যের সব ধর্মের মানুষ। পায়ে পায়ে এগিয়ে চলছেন সব দলের নেতা নেত্রীরা। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫.০৫ মিনিটে দিল্লির এইমসে প্রয়াত হন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী। তাঁর দেহ নিয়ে আসা হয় দিল্লির বাসভবনে। রাতে সেখানেই ছিল প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর দেহ। শুক্রবার সকালে সেখানেও ছিল সাধারণের জন্য শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের ব্যবস্থা।

  • প্রয়াত অটল বিহারী বাজপেয়ী,শোকপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী

    UNA: এইমসে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন ভারতের প্রাক্তন প্রধান মন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী । বিকেল ৫টা বেজে ৫ মিনিটে প্রয়াত হয়েছেন অটল বিহারী বাজপেয়ী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিলেন অটল বিহারী বাজপেয়ী। ৯ সপ্তাহ ধরে এইমস-এ চিকিত্সাধীন ছিলেন তিনি। মঙ্গলবার থেকে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়। ফুসফুস ও অন্ত্রে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে।

  • বাজপেয়ী ভেন্টিলেশনে ,তাঁকে দেখতে আড়াইটের বিমানে দিল্লি যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

    পৃথা রায় চৌধূরী: অটল বিহারী বাজপেয়ীকে দেখতে এদিন দুপুর আড়াইটের বিমানে দিল্লি যাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। এইমসের তরফে জানানো হয়েছে, তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। গত ৯ সপ্তাহ ধরে এইমস-এ ভর্তি রয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী। গত ২৪ ঘণ্টায় তাঁর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়। বুধবার সন্ধ্যায় এইমস-এর তরফে একটি মেডিক্যাল বুলেটিন প্রকাশ করে জানানো হয়, বাজপেয়ীকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। তাঁর অবস্থা সঙ্কটজনক। অগ্রজ শারীরিক পরিস্থিতির অবনতির খবর শুনেই এইমস-এ ছুটে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রায় মিনিট ৪০ হাসপাতালে থাকেন তিনি। বাজপেয়ীর শারীরিক পরিস্থিতির বিশদে খোঁজখবর নেন। রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়ালও বাজপেয়ীর খোঁজ নিতে এইমস-এ যান।

  • সমুদ্রসৈকতে জয়ললিতার পাশেই সমাধিস্থ হলেন করুণানিধি

    News bazar24:চেন্নাইয়ের মেরিনা সমুদ্রসৈকতে জয়ললিতার পাশেই সমাধিস্থ হলেন করুণানিধি। তাঁর একপাশে রাজনৈতিক গুরু আন্নাদুরাই, অন্যপাশে জয়ললিতা। বুধবার সূর্য ওঠা থেকে শুরু করে দিনভর তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে শেষ শ্রদ্ধা জানান লাখো মানুষ। মেরিনা সমুদ্র সৈকতে করুণার কফিন যখন নেমে গেল মাটির নীচে তখন সূর্য অস্তাচলে। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তিন বাহিনীর শেষ অভিবাদনে চিরঘুমের দেশে পাড়ি দিলেন কলাইগনার। তামিলনাড়ুর পাঁচ বারের মুখ্যমন্ত্রীকে ভালবেসে কলাইগনার ও আন্না বলে ডাকতেন সমর্থকরা। বুধবার কাকভোরে চেন্নাইয়ের গোপালাপুরমের বাড়ি থেকে রাজাজি হলে নিয়ে যাওয়া হয় করুণানিধির দেহ। দিনভর সেখানে প্রয়াত নেতাকে শ্রদ্ধা জানান অগণিত মানুষ। এদিন সকাল থেকে দেশের সবকটি রাজনৈতিক দলের নেতানেত্রীরা ছুটে গিয়েছেন চেন্নাইয়ে। তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে শেষ শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাজাজি হলে করুণানিধির কফিনে ফুল দিয়ে মাথা ঠেকিয়ে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী। এরপর কানিমোঝি ও স্ট্যালিনের সঙ্গে কথা বলেন।করুণানিধিকে শেষ শ্রদ্ধা জানান রাহুল গান্ধী, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবগৌড়া, অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু, তামিল সুপারস্টার রজনীকান্ত, কমল হাসান প্রমুখ। এরাজ্য থেকে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

  • শিশুকাল থেকে খেলাধুলাকে আবশ্যিক করার জন্য পড়ার সিলেবাস কমানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র।

    Newsbazar24, ডেস্ক, ৭ আগস্টঃ পিতা মাতারা তাদের শিশুদের ছোট থেকেই পুথিগত শিক্ষায় যতটা উদ্যোগী হন ততটা কিন্তু তাদের খেলাধুলার  ক্ষেত্রে উদ্যোগী  হতে দেখা যায় না। একজন শিশুর মস্তিস্কের সম্পূর্ণ বিকাশের জন্য খেলাধুলা আবশ্যক হওয়া দরকার এটা পিতামাতাকে বুঝতে হবে। কিন্তু আমাদের আক্ষেপের বিষয়   পিতামাতার অধিকাংশেরই চিন্তার প্রধান কেন্দ্রে থাকে পড়াশুনা। শিশুকাল  থেকেই যাতে খেলাধূলোয় বাচ্চাদের আরও বেশি করে উসাহিত করা যায়, সেই জন্য এক  যুগান্তরকারী সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। খেলাধূলোকে প্রাধান্য দিতে সিলেবাস কমানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। ২০১৯-এর মধ্যেই খেলাধূলোকে প্রাধান্য দিতে সিলেবাস প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ মতো কমানো হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। নতুন এই পরিকল্পনার বিষয়ে ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠৌর বলেন, 'ক্রীড়াক্ষেত্রে যে জাগয়া আমরা রয়েছি সেখানে খেলাধূলো আর শিক্ষার অংশ নয়, খেলাধূলোও একটা শিক্ষা। খেলাধূলোর ক্লাস যাতে আরও বাড়ানো এবং আবশ্যিক হয়, সেই কারণেই এবার থেকে সিলেবাস কমানো হবে পঞ্চাশ শতাংশ।' কয়েক বছরের মধ্যেই ২০টি ক্রীড়া স্কুলও গড়া হবে বলে জানা গিয়েছে।  

  • তামিল রাজনীতির প্রবাদ প্রতিম নেতা বরিষ্ঠ রাজনীতিবিদ এম করুণানিধি প্রয়াত

    Newsbazar24, ৭ই আগস্টঃ দেশের বরিষ্ঠ রাজনীতিকদের মধ্যে অন্যতম এম করুণানিধি চেন্নাইয়ের কাবেরী হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল  ৯৪ বছর।  গত দুদিন ধরেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শত চেষ্টা করেও তাঁর অবস্থার উন্নতি ফেরাতে পারেনি। বয়সজনিত  কারণে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছিল না । মূত্রনালীতে সংক্রমণের কারণে করুণানিধিকে ২৬ জুলাই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এবার আর তার ঘরে ফেরা হল না। আজ  সন্ধ্যে ৬টা ৪০ মিনিটের পরপরই হাসপাতালের তরফে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে প্রয়াণের খবর জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে করুণানিধি প্রয়াত হয়েছেন। বিগত ৫০ বছর ধরে একটানা ডিএমকে দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন এম করুণানিধি। ১৯৬৯ থেকে ২০১১ সালের মধ্যে পাঁচবার মুখ্যমন্ত্রিত্ব করেছেন তামিলনাড়ুর। অত্যন্ত অল্প বয়স থেকেই সামাজিক আন্দোলনে যুক্ত হয়েছিলেন এই প্রবাদপ্রতীম তামিল নেতা। দ্রাবিড় আন্দোলনের প্রথম ছাত্র সংগঠনটি গড়ে উঠেছিল তাঁর হাত ধরেই। তবে শুধু রাজনীতি নয়, শিল্প সংস্কৃতি জগতেও ছিল তাঁর ছিল অসামান্য অবদান । কর্মজীবন শুরু করেছিলেন তামিল চলচ্চিত্র্র চিত্রনাট্যকার হিসেবে। পরবর্তীকালে সিনেমাকেই হাতিয়ার করেন তামিলদের  আন্দোলনকে তুলে ধরতে। পাশাপাশি তামিল সাহিত্য জগতেও তাঁর অবদান রয়েছে। বেশ কিছু ছোট ও বড় গল্প রচনার সঙ্গে রয়েছে তাঁর আত্মজীবনী এদিন করুণানিধির মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই সারা দেশ থেকে শোকবার্তা আসতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী,লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন, সহ বিভিন্ন দলের নেতারা করুণানিধির প্রতি শোকবার্তা জানিয়েছেন।তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই পলানিস্বামী শোকবার্তা জানালেন।করুণানিধির শেষ যাত্রায় উপস্থিত থাকার জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চেন্নাই রওনা হলেন।

  • কাশ্মীরে জঙ্গী অনুপ্রবেশ ব্যর্থ করতে গিয়ে শহিদ হলেন ৪ সেনা খতম ২ জঙ্গী।

     Newsbazar24, ৭ই আগস্টঃ উত্তর কাশ্মীরের গুরেজে একদল জঙ্গীর অনুপ্রবেশ ব্যর্থ করতে  গিয়ে শহিদ হলেন এক মেজর-সহ আরও তিন সেনা জওয়ান। সংঘর্ষে দুই জঙ্গিও মারা গিয়েছে। সেনার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে শেষ পর্যন্ত তারা অনুপ্রবেশ ব্যর্থ করতে সফল হয়েছে। সেনাবাহিনী  সূত্রে জানা গিয়েছে পাকিস্থান থেকে ৬ থেকে ৮ জন জঙ্গির একটি দল কাশ্মীরের বান্দিপোর জেলার গুরেজে বর্ডার  টপকে ভেতরে ঢুকে পড়েছিল। ভারতীয় জওয়ানরা তাদের দেখতে পেয়ে গুলি করলে, জঙ্গিরাও পাল্টা জবাব দিতে শুরু করে। শুরু হয় তীব্র গুলির লড়াই।  সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা যায় জঙ্গীদের বিরুদ্বে অভিযান এখনও চলছে। সেনাদের সাথে মুখোমুখি  লড়াইতে এঁটে উঠতে না পেরে আশপাশের জঙ্গলে, জঙ্গিরা আশ্রয় নিয়েছে। তাদের খুজে বের করার জন্য ব্যাপক অভিযানের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।  এলাকাটি রাজধানী শ্রীনগর থেকে মাত্র ১২৫ কিলোমিটার দূরে।  সেনাবাহিনী সূত্রে আরও জানা গেছে  গুরেজ এলাকায় সোমবার রাত থেকেই পাক সেনা নিয়ন্ত্রণ রেখার এপারে ভারতীয় সেনা ঘাঁটি গুলিকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ছে। অর্থাৎ  জঙ্গি অনুপ্রবেশ করানোর জন্যই পাকিস্তান ভারতীয় সেনা ঘাঁটি গুলির উপর গুলি ছুঁড়ছে বলে দাবী করেছে ভারতীয় সেনারা।