লাইফ স�টাইল

  • আসছে স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি "মনবারে"

    news bazar24; খুব শীঘ্র আসছে  স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি "মনবারে"। varada entertainment প্রোডাকশন হাউসের এক অন্য ধরনের মিষ্টি প্রেমের গল্প নিয়ে তৈরী এই ছবিটি ডিরেকশন করেছেন সমীর সিংহ, মেকাপ বাবন ইসলাম। ছবিটিতে মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেছেন  দেবাংশু রায়। তার সাথে অভিনেত্রী ছিলেন দিল্লীর মেয়ে পুনম রানা।এই ছবিটির পুরোতাই শ্যুটিং হয়েছে দিল্লিতে। ছবিটির নির্দেশক সমীর সিংহ ছবি টা নিয়ে খুব আশাবাদী। তিনি বলেন এই ছবিটি একটি প্রেমের গল্প হলেও একদম অন্যরকম ঘরানায় তৈরি। যার ফলে এই ছবিটি আমরা বিভিন্ন ফ্লিম ফেস্টিভ্যালেও নিয়ে যাব। এবং সেখানেও ভাল কিছু করার বিষয়ে আমরা খুব আশাবাদী। দেবাংশুকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন মালদা থেকে গিয়ে ছবিতে অভিনয় করবার রাস্তা টা খুব সহজ ছিল না এর আগে আমি বাংলাদেশের অনেক শর্ট ফ্লিম করেছি এছারা একটি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছবি " হার মানা হার" করেছি। আগামী দিনে পুনম রানার সাথে অনেক গুলি কাজ আসছে।

  • ৮,৫০০টি স্টেশনে সুলভে ন্যাপকিন আর কন্ডোম কেনার জন্য কাউন্টার খোলা হবে

    news bazar24:ভারতীয় রেলওয়ে বোর্ডের নতুন নতুন টয়লেট পলিসি অনুযায়ী, স্টেশন চত্বরে পুরুষ, মহিলা এবং প্রতিবন্ধীদের জন্য আলাদা আলাদা শৌচাগার তৈরি করা হবে। এই শৌচাগারগুলি ব্যবহারের জন্য কোনও টাকা দিতে হবে না সাধারণ মানুষকে।কেন এই পদক্ষেপ? স্টেশন ও স্টেশন সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দাদের অনেকের বাড়িতেই শৌচাগার না থাকায় স্টেশন চত্বরেই শৌচকর্ম করেন তাঁরা। স্টেশনের শৌচাগারে টাকা দিতে হয় বলে সেখানেও অনেকে যেতে চান না। যত্রতত্র শৌচকর্মের ফলে গোটা এলাকাটাই অস্বস্থ্যকর হয়ে ওঠে। এই পরিস্থিতি বদলের জন্যই রেল স্টেশনের শৌচাগারগুলি বিনামূল্যে ব্যবহারের সুযোগ করে দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে রেলওয়ে বোর্ডের পক্ষ থেকে।জানা গিয়েছে,রেল স্টেশনেও মিলবে স্যানিটারি ন্যাপকিন এবং কন্ডোম। শুধুমাত্র যাত্রীরাই নয়, সস্তার এই ন্যাপকিন আর কন্ডোম কেনার সুযোগ পাবেন স্টেশন সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দারাও। সম্প্রতি এই সিদ্ধান্তে শিলমোহর দিয়েছে ভারতীয় রেলওয়ে বোর্ড৷ এই সামগ্রিগুলি বাজার চলতি দামের থেকে অনেকটাই কম দামে পাবেন সাধারণ মানুষ। গোটা দেশের মোট ৮,৫০০টি স্টেশনে এমন কাউন্টার খোলা হবে যেখানে সুলভে ন্যাপকিন আর কন্ডোম কেনার সুযোগ পাবেন সকলে। একটি কাউন্টার থাকবে স্টেশনের বাইরে আর একটি রাখা হবে স্টেশন চত্বরের ভিতরে।শৌচাগার দেখভালের জন্য প্রত্যেকটিতে তিনজন করে কর্মী থাকবেন। 

  • জানেন কি ? চুলের সুস্বাস্থ্যের জন্যেও কলা খুবই উপকারি।

    ডেস্ক ঃ সারাবছরই পাওয়া যায় ক্লা । জানেন কি, চুলের সুস্বাস্থ্যের জন্যেও কলা খুবই উপকারি। শুধুমাত্র কলা বা কলার সঙ্গে অন্য কোনও উপাদানের মিশ্রণ চুলের খুশকি দূর করে। পাশাপাশি চুলের রুক্ষতা ও চুল ঝরা নিয়ন্ত্রণেও কলা অত্যন্ত কার্যকরী। কলায় থাকে প্রচুর পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট, পটাশিয়াম, প্রাকৃতিক তেল ও ভিটামিন, যা চুলকে মসৃণ ও ঝলমলে করে তোলে। এ বার জেনে নেওয়া যাক চুলের সুস্বাস্থ্যের জন্য কলার নানান ব্যবহার। কলা, পাতিলেবু ও টকদই: চুলের খুশকি দূর করতে অর্ধেক পাকা কলার সঙ্গে তিন চামচ টক দই ও এক চামচ পাতিলেবুর রস মেশিয়ে চটকে নিন। মিশ্রণটি শুধুমাত্র চুলের গোড়া ও মাথার তালুর ত্বকে ভাল করে লাগান। খেয়াল রাখতে হবে, এই মিশ্রণটি যাতে কোনও ভাবেই মাথার বাকি চুলে না লাগে। ২০-২৫ মিনিট পর চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। পাতিলেবু আর টকদই চুলকে খুসকিমুক্ত করতে সাহায্য করে। এই মসৃণ করতে কলার ব্যবহার আসলে কন্ডিশনারের কাজ করে। কলা ও মধুর মিশ্রণ: চুল যাঁদের রুক্ষ হয়ে গিয়েছে, তাঁরা কলা এবং মধুর মিশ্রণ ব্যবহার করতে পারেন। এর ব্যবহারে চুলের হারানো উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে আর সেই সঙ্গে চুল হয়ে উঠবে মোলায়ম। দুটি পাকা কলা এবং দুই চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে ভাল করে চটকে নিন। এ বার এই মিশ্রণটি চুলে ভাল ভাবে লাগিয়ে নিন। শাওয়ার ক্যাপ বা ওই জাতীয় কিছু দিয়ে মাথা ঘণ্টাখানেক ঢেকে রাখার পর ঠান্ডা জল দিয়ে চুল ধুয়ে শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে মোটামুটি দু’বার এই মিশ্রণ ব্যবহার করলেই চুল হয়ে উঠবে ঝলমলে আর উজ্জ্বল। কলা, ডিম ও লেবুর রস: চুলের বৃদ্ধি এবং নতুন চুল গজানোর ক্ষেত্রে এই মিশ্রণ খুবই কার্যকরী। সপ্তাহে অন্তত দুদিন এই মিশ্রণটি ব্যবহার করা যেতে পারে। দুটি চটকে নেয়া কলা, একটি ডিমের শুধু কুসুমের অংশটুকু ও এক চামচ লেবুর রস ভাল করে মিশিয়ে এই মিশ্রণটি তৈরি করে নিন। এই মিশ্রণটি ভাল করে মাথার ত্বকে ও চুলে মাখিয়ে একটি প্লাস্টিক বা ফয়েল জাতীয় কিছু দিয়ে মাথা মুড়ে ফেলুন। এর ওপরে একটি তোয়ালে বা কাপড় জড়িয়ে নিন। এ ভাবে এক ঘণ্টা রাখার পর ভালো করে জল দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

  • মুখের কালো দাগ দূর করতে লেবু

    লেবু: লেবু ত্বকের কালো দাগ ছোপ দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। তুলোর সঙ্গে লেবুর রস মাখিয়ে নিন, তারপর কালো দাগের উপর ৫ মিনিট ধরে ঘষুন। তারপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে মুখটা ধুয়ে নিন। তবে মুখে বা শরীরের কোথাও লেবু মাখার পর সরাসরি সূর্যের আলোতে বেরনো যাবে না।

  • ঝড়ের সময়ে কী করবেন,আসছে কালবৈশাখি

    ডেস্কঃ(I.D). ২৫ মার্চ ২০১৮ঃ- চৈত্রের শুরু, আর তাতেই মেজাজ দেখাতে শুরু করেছে কালবৈশাখি। ইতিমধ্যেই তার হালকা ঝলক দেখিয়ে গিয়েছে প্রকৃতি। কালবৈশাখির প্রচণ্ড এলোমেলো ঝড় হলে কী করবেন? প্রচণ্ড ঝড়ে তছনছ হয়ে যেতে পারে জনজীবন। কালবৈশাখি আসলেই নানা জায়গা থেকে খবর পাওয়া যায় নানা দুর্ঘটনার। আপনিও যাতে ঝড়ের প্রভাবে দুর্ঘটনায় না পড়েন, তাই জেনে নিন প্রচণ্ড ঝড়ে কীভাবে বাঁচবেন। ড্যাম্প বা অন্য কোনও কারণে যদি বাড়িতে কোথাও কোনও ফাটল ধরে থাকে, তাহলে অবশ্যই এখনই সারিয়ে ফেলুন, জানালা-দরজার লক ঠিক আছে কিনা দেখে নিন,হ্যারিকেনে সবসময় কেরোসিন তেল ভরে হাতের কাছে রাখুন। এছাড়া, মোমবাতি কিংবা ব্যাটারি চালিত কোনও আলো সবসময় হাতের কাছে রাখুন। যাতে লোডশেডিং হলে অন্ধকারে অসুবিধা না হয়,ঘরে পর্যাপ্ত পরিমানে শুকনো খাবার, জল, ওষুধ হাতের কাছে রাখবেন,অত্যন্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ওয়াটারপ্রুফ ফাইলে ভরে রাখুন,মোবাইলে সবসময় পুরো চার্জ দিয়ে রাখুন, ঝড়-বৃষ্টির সময়ে ঘরের বাইরে বেরোবেন না। বাচ্চাদের সবসময় নজরে রাখুন। যাতে তারা কোনওভাবেই ঘরের বাইরে যেতে না পারে,ঝড়ের সময়ে বাড়ির ইলেক্ট্রিক কানেকশন বন্ধ করে দিন। মেন সুইচ বন্ধ রাখুন।

  • বেতন ২ লাখের ওপর! ঃ চাকরির বিজ্ঞাপন দিয়ে শিরোনামে ব্রিটেনের 'সেক্স টয়' প্রস্তুতকারক সংস্থা

    ডেস্ক ঃ আবার  শিরোনামে ব্রিটেনের 'সেক্স টয়' প্রস্তুতকারক সংস্থা 'সিলিকন সেক্স ওয়ার্ল্ড'। বিজ্ঞাপনে এই সংস্থা জানিয়েছে, চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহের মধ্যেই আবেদন জমা করতে হবে। তারপর আবেদনকারীদের মধ্যে নাম বাছাই পর্ব শেষ করে ২০ মার্চ তালিকা প্রকাশ করা হবে। মাসে বেতন ২ লাখের ওপর। বাৎসরিক হিসেবে 'সিটিসি' (কস্ট টু কোম্পানি) ৩০ লাখের কাছাকাছি। যোগ্য চাকরি প্রার্থী খুঁজছে লন্ডনের 'অ্যাডল্ট টয়' প্রস্তুতকারক সংস্থা 'সিলিকন সেক্স ওয়ার্ল্ড'।                                                      কাজটা আসলে কী? 'সিলিকন সেক্স ওয়ার্ল্ড' যে অ্যাডাল্ট টয়গুলি বানিয়েছে তা পরীক্ষামূলকভাবে ব্যবহার করে ফিডব্যাক জানাতে হবে কোম্পানিকে। হ্যাঁ। আপনি ঠিক পড়েছেন। কোম্পানি নির্মিত অ্যাডাল্ট টয় ব্যবহার করে তার গুণাবলী এবং ত্রুটি জানাতে হবে কর্মীকে। বিজ্ঞাপনে কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, "আমরা আমাদের দলে এমন কয়েকজন নতুন সদস্যের সন্ধান করছি, যারা এই আধুনিক আবিষ্কারগুলির গুণগত মান পরীক্ষায় আমাদের সহায়তা করবে এবং বিশ্বের শ্রেষ্ঠ সেক্স প্রোডাক্ট নির্মাণের কর্মকাণ্ডে আমাদের সঙ্গে থাকবে।"  বছরে ২২টি ছুটি আর ৩৫ হাজার ইউরো বাৎসরিক বেতন। এছাড়াও কর্মীর পরিবার কিংবা কোনও বন্ধু যদি এই কোম্পানির পণ্য কেনেন সেখানেও দেওয়া হবে আকর্ষণীয় ছাড়। এখানেই শেষ নয়, থাকছে বিশ্ব ভ্রমণের হাতছানিও। এই চাকরিতে যোগ দিলেই কোম্পানি তাদের নতুন সদস্যের হাতে তুলে দেবে একটি ব্র্যান্ড নিউ স্মার্টফোনও।